স্বাস্থ্যের জন্য মসুর ডাল খাওয়ার উপকারিতা

মসুর ডাল

মসুর ডাল

আমরা সবাই মসুর ডাল রান্না করে খেয়ে থাকি। আবার এটাও অনেকে জানি এটি একটি পুষ্টিকর খাবার। তবে এটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারি তা হয়তো অধিকাংশ লোকজন জেনে থাকেন না। মসুর ডাল পুষ্টি উপাদানে ভরপুর। মসুর ডাল এমন একটি ডাল যাতে ক্যালরি কম পরিমাণে থাকে এবং প্রোটিনের মাত্রা বেশি পরিমাণে থাকে। তাই এটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য লাভদায়ক বলে মানা হয়।

আজকের এই নিবন্ধে আমরা আপনাদের মসুর উপকারিতা জানাব যা প্রত্যেকের জেনে রাখা প্রয়োজন। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক স্বাস্থ্যের জন্য মসুর ডালের উপকারিতা।

আরও পড়ুনঃ স্বাস্থ্যের জন্য পুদিনা পাতার উপকারিতা

মসুর ডালের উপকারিতাঃ

  1. ব্লাড সুগারের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

ব্লাড সুগারের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

বেশি মিষ্টি খাওয়ার কারণে রক্তে শর্করা মাত্রা বাড়তে পারে। আপনি ব্লাড সুগার কম করার জন্য হয়তো অনেক কিছু করে থাকেন। তাহলে আজ থেকে আপনার খাবার তালিকায় মসুর ডাল যোগ করে নিন।

মসুর ডালে ফাইবার পাওয়া যায় যা রক্তে সুগারের পরিমাণ বাড়তে বাধা দেয়। তাই এই খাদ্যটি আপনার ব্লাড সুগারে সহায়তা করতে পারে।

সারকথাঃ

মসুর ডাল ব্লাড সুগার রোগীদের জন্য ভালো খাদ্য।

  1. হৃদয় ভালো রাখতে মসুর ডালের উপকারিতাঃ

হৃদয় ভালো রাখতে মসুর ডালের উপকারিতাঃ

একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ফাইবার আমাদের দেহের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কম করে এবং ভালো কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। যার ফলে আমাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কিছুটা হ্রাস করা যায়। পাশাপাশি আমাদের হৃদয় ভালো থাকে।

সারকথাঃ

মসুর ডালগুলিতে পাওয়া ফাইবার এবং ফোলেটের অনন্য মিশ্রণটি আপনার হৃদয়ের পক্ষে লাভজনক।

আরও পড়ুনঃ ভিটামিন ই সমৃদ্ধ খাবার তালিকা জেনে রাখুন

  1. ইমিউনিটি বাড়ানোর জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

ইমিউনিটি বাড়ানোর জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

মসুর ডাল খাওয়ার মাধ্যমে দেহের ইমিউনিটি বাড়ানো যেতে পারে। মসুর ডালে ভিন্ন ধরণের খনিজ পাওয়া যায় যা আমাদের ইমিউন সিস্টেমের জন্য প্রয়োজনীয়। তাই এটি আমাদের খাদ্য তালিকায় রাখলে স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি।

সারকথাঃ

মসুর ডাল দেহের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

  1. ওজন কমাতে মসুর ডালের উপকারিতাঃ

ওজন কমাতে মসুর ডালের উপকারিতাঃ

ইদানীং নানা কারণে মানুষ নিজের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে না। আবার অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার ফলে আমাদের ওজন বেড়ে যায়। মসুর ডাল খাওয়ার একটি সুবিধা হল ওজন নিয়ন্ত্রণ। কারণ এতে ক্যালরি পরিমাণ কম এবং উচ্চ পরিমাণে ফাইবার ও প্রোটিন রয়েছে। যা আমাদের পেট অনেক্ষন ভরিয়ে রাখে এবং খুদা নিবারণ করতে সহায়তা করে। যার ফলে ওজন বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

সারকথাঃ

মসুর ডালের খাওয়া পাশাপাশি ওজন কমাতে ব্যায়াম করা প্রয়োজন।

আরও পড়ুনঃ ঘরোয়া পদ্ধতিতে সর্দি কাশির চিকিৎসা

  1. হজমের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

হজমের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

আমাদের খাওয়ার জন্য কখনো কখনো আমাদের হজমের সমস্যা হয়। মসুর ডাল আপনার পচনতন্ত্র ভালো রাখতে সহায়তা করতে পারে। কারণ এতে থাকা ফাইবারগুলি আপনার খাদ্য দ্রুত হজম করতে সহায়তা করে। যার ফলে হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

  1. মস্তিষ্কের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

মস্তিষ্কের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

আমাদের মস্তিষ্কের ব্যাঘাত ঘটলে আমরা খুব তাড়াতাড়ি বিরক্ত প্রকাশ করি, মানসিক অবসাদে ভুগি। মসুর ডাল মস্তিষ্ক সম্পর্কিত নানা ধরণের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে পাশাপাশি মানসিক চাপ দূর করে।

সারকথাঃ

মসুর ডালে ফোলেট নামে একটি যৌগ উপস্থিত রয়েছে যা স্মৃতিশক্তি শক্তিশালী করে।

আরও পড়ুনঃ আপেল সাইডার ভিনগার যে এত গুণ জানলে অবাক হবেন

  1. ত্বকের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

প্রতেকেই চায় তাদের ত্বক সুন্দর থাকুক। এর জন্য তারা অনেক ক্রিম ব্যবহার করে একগুচ্ছ টাকা খরচ করে। আপনার হাতের সামনেই এমন একটি উপাদান আছে যা আপনার সুস্থ ত্বকের জন্য সহায়তা করতে পারে। মসুর ডাল কিন্তু শুধু খাওয়ার জন্য উপকারি নয় বরং ত্বকের রূপচর্চার কাজেও অসাধারণ কাজ করে।

মসুর ডালে অনেক পুষ্টিকর উপাদান রয়েছে যা আমাদের ত্বকের জন্য উপকারি। মসুর ডাল পেস্ট করে মুখে লাগালে ত্বকের অনেক সমস্যা দূর হয়।

সারকথাঃ

মসুর ডাল আয়ুর্বেদিক ঔষধ হিসাবে ব্যবহার করা হয়।

আরও পড়ুনঃ দাঁতের যত্নঃ কীভাবে নেবেন দাঁতের যত্ন জেনে নিন

  1. চুলের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

চুলের জন্য মসুর ডালের উপকারিতাঃ

আজকাল তো চুলের সমস্যা দূর করার জন্য আমরা কত টাকা খরচ করে থাকি। অতিরিক্ত চুল পড়া সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। তবে জানেন কি মসুরের ডাল খাওয়ার আরেকটি লাভজনক সুবিধা হল চুলের সমস্যা।

ভিটামিন এবং পুষ্টির অভাবে আমাদের চুল অকালে ঝরে পড়ে। আর মসুর ডাল পুষ্টিগুণে ভরপুর। তাই এটি নিয়মিত খাওয়ার মাধ্যমে আমরা চুল পড়া আটকাতে পারি।

সারকথাঃ

মসুর ডালে ভিটামিন বি এবং সি রয়েছে যা চুলের গোঁড়া মজবুত করে।

আরও পড়ুনঃ এলার্জি জাতীয় খাবার: এই খাবারগুলি খেলে এলার্জি হতে পারে

আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য মসুর ডাল খাওয়া উপকারিতা তো অনেক। তবে অতিরক্ত পরিমাণ খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা হতে পারে। তাই সঠিক মাত্রায় খেলে স্বাস্থ্যের জন্য লাভজনক।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

প্রঃ মসুর ডাল ত্বকে কীভাবে ব্যবহার করব?

উঃ মসুর ডাল পেস্ট করে ত্বকে লাগলে উপকার পাবেন।

প্রঃ মসুর ডাল খেলে ব্লাড সুগার কমানো যায়?

উঃ অনেক খাবার রয়েছে যা আমরা খাবার তালিকায় যোগ করলে ব্লাড সুগার বাড়তে পারে না। তার মধ্যে মসুর ডাল অন্যতম। তবে অবশ্যই ঔষধের পাশাপাশি খেতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here