চুল ঘন করার উপায়ঃ ৯ টি আশ্চর্যজনক পদ্ধতি

চুল ঘন করার উপায়

চুল ঘন করার উপায়

চুল ঘন করার উপায়

প্রতিটি মানুষ চায় ঘন ও লম্বা চুল। বিশেষ করে মেয়েরা ,কারণ তাদের সৌন্দর্যতা লুকিয়ে আছে তাদের ঘন লম্বা চুলে। সব মেয়েদের আকাঙ্ক্ষা ঘন, লম্বা চুল।  কিন্তু সেই ঘন কেশ যদি অকালে ঝরে পড়ে, তাহলে তো সমস্যার শেষ নেই।

অনেক সময় দেখা যায় চুল পড়ার দরুন চুলে ঘনত্ব কমে আসে। আবার ঠিক মতো পুষ্টির অভাবে চুলের গোড়া শক্ত না হওয়ায় অকালে চুল ঝড়ে পড়ে। অনেক সময় আমরা বুঝে উঠতে পারি না, কী করলে চুল পড়া বন্ধ হবে, চুলের ঘনত্ব বাড়বে।

এখানে আমি আপনাদের কিছু ঘরোয়া পদ্ধিতে চুল ঘন করার উপায় বলব,যাতে আপনাদের  সহযোগিতা হয়।

পেঁয়াজের তেল

চুল পড়া বন্ধ করার ক্ষেতে  পেঁয়াজের রস কর্যকারিতা অপরিসীম কিন্তু আপনি জানেন কী  পেঁয়াজের তেল আপনার চুলের ঘনত্বটা আরও বাড়িয়ে তুলবে।

দুটো পেঁয়াজ, তিন-চার কোয়া রসুন কুচি করে কেটে নিন, সেটি  নারকেল তেলে সাথে মিশিয়ে গরম করুন। যতক্ষণ না পর্যন্ত পেঁয়াজ রঙ বাদামী হছে ততক্ষণ নাড়তে থাকুন। তারপর সেই গরম তেলটি মাথায় মাসাজ করুন ১০-১৫ মিনিট ধরে। ঘণ্টা খাণেক রেখে ধুয়ে শ্যাম্পু করে নিন।

কাস্টার অয়েল

কাস্টার অয়েল

কাস্টার অয়েল খুব পরিচিত একটি হেয়ার অয়েল যা চুলের ঘনত্ব বাড়ানোর জন্য খুব উপকারী। এটির বহু গুণ, এটি স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে চুলের গোড়া মজবুত করে। এই অয়েলটিতে রয়েছে  প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও প্রোটিন যা চুলের গোড়া মজবুত করে চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে ও চুলের ঘনত্ব বাড়ায়।

কাস্টর অয়েল সাথে নারকেল তেল বা অলিভ অয়েল মিশিয়ে চুলের স্ক্যাল্পে ভাল করে মাসাজ করুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট (রাতে শোয়ার আগে)। সকালে ঘুম থেকে উঠে শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে ৩-৪ বার ব্যাবহার করুন ভালো ফল পেতে।

আমন্ড অয়েল                                                               

আমন্ড অয়েল চুল পড়া কমিয়ে চুলের ঘনত্ব বাড়াতে সাহায্য করে। আমন্ড অয়েল চুলের গোড়া শক্ত করে চুল পড়া রোধ করে। চুল ঘন করার উপায়ে এই তেলটি খুব উপকারী। এটি গরম করে চুলে মাসাজ করুন ১০-১৫ মিনিট তারপর ঘণ্টা খানেক রেখে ধুয়ে ফেলুন।  

চুল ঘন করার উপায়- এ ডিম ও মধুর চুলের প্যাকের গুনাগুন        

চুল ঘন করার উপায়- এ ডিম ও মধুর চুলের প্যাকের গুনাগুন

ডিমের সাদা কুসুমের অংশ , ১ চামচ মধু ও অলিভ অয়েল এর সাথে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। সেই প্যাকটি চুলের গোড়ায় ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন, যাতে এই প্যাকটি থেকে স্ক্যাল্প  পুরোপুরি পুষ্টি সংগ্রহ করতে পারে। এরপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে নিন। এটি চুল গজানোর পক্ষে খুব কার্যকারী।

চুল ঘন করার উপায়- এ আদার রস উপকারিতা

আদার রস চুলকে ঘন করে। আদার রসের গুণাগুণ প্রচুর। এটি চুলের পুষ্টি যোগায়, চুলের গোড়া শক্ত করে, চুলকে মজবুত করে। আদার রস চুল পড়া বন্ধ করে। আদা থেঁতো করে তার রস চুলে ১০-১৫ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে নিন।

সম্পর্কিত নিবন্ধ চেক করুন :- 

আমলকী তেল

আমলকী চুলের রুক্ষতা দূর করে চুলের গোড়া শক্ত করে, চুলের ঘনত্বটা বাড়ায়। আমলকীর বীজ ছাড়িয়ে, আমলকী পিষে রস বার করে,তার সাথে ২ চামচ নারকেল তেল, কেশতী পাতার রস মিশিয়ে, মিশ্রণটি ভাল করে ফোটান। যখন মিশ্রণটি ভালো ভাবে ফুটে যাবে তখন হাল্কা ভাবে মাথায় মাসাজ করে নিন। এই তেলটি সপ্তাহে ৪-৫ বার ব্যবহার করুন। এই উপকরণটি চুলে পুষ্টি বৃদ্ধি করে।

জবা ফুলের তেল

চুল ঘন করার উপায়-এ একটি বিশেষ উপকরন হল জবা ফুলের তেল । এই তেলটি নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। চুল পড়া  চিরতরে বন্ধ করে। নারকেল তেল গরম করে তাতে জবা ফুলের পাঁপড়ি দিয়ে ৫-১০ মিনিট ফোটান। ঠান্ডা হয়ে গেলে একটি প্রাত্রে  রেখে দিন। প্রতিদিন শোবার আগে স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন।

অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরা জেল চুল গজানোর পক্ষে খুবই কার্যকারী। এই জেল চুলে লাগালে চুল পুষ্টি যোগায়, চুল মজবুত করে,ঘন করে তোলে। যাদের  চুল খুব পাতলা , তাদের পক্ষে খুব উপকারী। অ্যালোভেরা গাছের থেকে জেলটা বের করে নারকেল তেলের সাথে মিশিয়ে গরম করুন। এই গরম তেলটি শোবার আগে মাথায় মাসাজ করুন উপকার পাবেন।

গরম তেল মাসাজ

গরম তেল মাসাজ

নারকেল তেল গরম করে মাথার স্ক্যল্পে  মাসাজ করলে মাথায় রক্ত সঞ্চালন ভালো হয়, চুলের গোড়া শক্ত করে। চুলকে পড়া থেকে রক্ষা করে। প্রতিদিন রাতে শোবার আগে গরম তেল মাসাজ করুন উপকার পাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here