চুল পাকার কারণ এবং চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায় জেনে নিন

চুল পাকার কারণ

কালো ঘন কেশ প্রায় সবারই আকাঙ্ক্ষা। তরুণ থাকতে কে না চায় বলুন। কিন্তু সেই সৌন্দর্যের বাধা সৃষ্টি করে পাকা চুল। প্রাচীনকালে প্রায়ই বৃদ্ধ বয়সে থেকে চুল পাকা শুরু হত । কিন্তু বর্তমানে দূষণের কারণে ছোট থেকে শুরু করে বড়োদের এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। কোনও ভাবেই চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায় খুঁজে পাওয়া যায় না। যার কারণে চিকিৎসার দ্বারস্থ হতে হয়। অনেক সময়, সময়ের অভাবে বা টাকার জন্য আমরা এই সমস্যার চিকিৎসা করাতে পারি না। কিন্তু নিজেরা একটু সতর্ক হলে চুল পড়া কিছুটা রোধ করতে পারি। তার জন্য আপনাকে কি করতে হবে এই নিবন্ধে আমরা জানাব। কিন্তু চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায় জানার আগে আপনাকে চুল পাকার কারণ জানতে হবে।

চুল পাকার কারণ

চুল পাকার কারণ

যখন নতুন কোষ সৃষ্টি হওয়ার জন্য হেয়ার ফলিকলস থেকে পুরনো কোষ নষ্ট হয়ে যায় তখনই চুলের বৃদ্ধি সম্ভব। চুল যখন বৃদ্ধি পায় তখন চুলের কালো রং ধারণ করে। আবার বয়স বৃদ্ধি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চুল ধূসর হতে শুরু করে অবশেষে সাদা হয়ে যায়। কিন্তু আজকাল সেই নিয়মমাফিক হয় না। অল্প বয়স থেকে চুল পাকতে শুরু করে দেয়। বর্তমানে চুল যে কারণে পেকে থাকে তার ছোট বর্ণনা নীচে দেওয়া হল –

oলিভারের সমস্যাঃ

লিভারের সমস্যাঃ

বাইরের অতিরিক্ত পরিমাণ জাঙ্ক ফুড খাওয়ার জন্য আমদের লিভার খারাপ হতে পারে। লিভার খারাপ মানেই পাকা চুলের প্রবণতা।

oমানসিক চাপঃ

মানসিক চাপঃ

সূত্র :- img.dtnext . in

মানসিক চাপ চুল পাকার প্রধান কারণ। মনের বিভিন্ন ধরণের সমস্যার জন্য আমাদের মনে স্ট্রেস হয়ে থাকে যার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম আমাদের হয় না। এছাড়াও মাত্রাতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড বা অ্যালকোহল আমাদের চুল পাকার কারণ।

সুপারিশ নিবন্ধন :- 

o পুষ্টির অভাবঃ

 পুষ্টির অভাবঃ

সূত্র :- pngimage . net

দেহের পুষ্টির অভাব হলে অল্প বয়সীদের চুল পেকে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

o চুলে অতিরিক্ত পরিমাণ কেমিক্যালঃ

চুলে অতিরিক্ত পরিমাণ কেমিক্যালঃ

সূত্র :- productexpert . com

চুলে রং করা বা অতিরিক্ত পরিমাণ কেমিক্যালযুক্ত প্রোডাক্ট আপনার চুলের মারাত্মক ক্ষতি করে দিতে পারে। ইলেক্ট্রিক্যাল জিনিস ব্যবহার করা অল্প বয়সে চুল পাকার কারণ।

o হরমোনের কারণঃ

হরমোন চুলের স্বাভাবিক রং বজায় রাখতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে। এটির সমস্যা চুল পাকার উপর বিশাল প্রভাব ফেলতে পারে।

o মেলানিনের ঘাটতিঃ

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই, মেলানিনের ঘাটতি চুলের সাদা রঙের প্রধান কারণ। মেলানিন উৎপাদন উপযুক্ত পুষ্টি এবং প্রোটিনের উপর নির্ভর করে।

চুল পাকার কারণ তো জেনে নিলেন এবার আসা যাক চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায়। ঘরে বসেই কয়েকটি অবলম্বন মেনে চললে চুল পাকার সমস্যা থেকে কিছুটা মুক্তির উপায় পেতে পারেন।

চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায়

1. উচ্চ ভিটামিনযুক্ত খাবার খান –

উচ্চ ভিটামিনযুক্ত খাবার খান

সূত্র :- jellygamatwalatra . com

ভিটামিনযুক্ত খাবার পাকা চুল প্রতিরোধে সেরা উপায়। বিশেষ করে ভিটামিন বি ১২ স্ক্যাল্প ভালো রাখতে সহায়তা করে। ভিটামিন বি ১২ সমৃদ্ধ টাটকা ফল এবং সবজি (পনির, অ্যাভোকাডো, বাদাম, কমলা লেবু ইত্যাদি) আপনার খাবারের তালিকায় যোগ করুন। শীঘ্রই ফলাফল দেখতে পাবেন। ভিটামিন ১২ পাকা চুলগুলি ঝরিয়ে নতুন চুল গজায় পাশাপাশি চুল পাকার হাত থেকে রেহাই দেয়।

2. তেল ব্যবহার করুন –

তেল ব্যবহার করুন

এখন স্টাইল বজায় রাখার জন্য চুল চিটচিটে হয়ে যাওয়ার কারনে আমরা চুলে তেল লাগাই না। চুল পড়ে যাওয়া, পাতলা হয়ে যাওয়া এবং পেকে যাওয়া এর মূল কারণ। তেল স্ক্যাল্পের পুষ্টি যোগায়। তাই যদি চান চুল সুস্বাস্থ্য করতে তাহলে চুলে অলিভ অয়েল বা আমন্ড অয়েল ব্যবহার করুন নিয়মিত। দরকার হলে পরে শ্যাম্পু করে নেবেন। চুল স্ক্যাল্পে ময়শ্চারাইজ করে। তাই সাদা চুল পরিত্রাণ করতে নিয়মিত চুলে তেল লাগানো শ্রেষ্ঠ উপায়।

3. বায়োটিন সমৃদ্ধ পণ্য –

বায়োটিন সমৃদ্ধ পণ্য

সূত্র :- media.mehrnews . com

বায়োটিন এমন এক ধরনের প্রাকৃতিক উপাদান যা চুলের কালো রং ধরে রাখে। তাই অল্প বয়সে যদি চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায় পেতে চান তাহলের বায়োটিন সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করুন।
আপনি যদি প্রোডাক্ট ব্যবহার করেন তাহলে বায়োটিনযুক্ত পণ্য সামগ্রী ব্যবহার করবেন।

4. মেহেন্দি –

মেহেন্দি

সূত্র :- 5.imimg . com

মেহেন্দি বা হেনা চুলের প্রাকৃতিক রং নিয়ন্ত্রণ করে এবং স্ক্যাল্পে ক্ষত নিরাময়ের ওষুধ। এটি শুধু চুলের স্বাস্থ্য প্রতিরক্ষা করবেই না বরং পাকা চুলের সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে। অকালে চুল পড়া থেকে রেহাই পেতে সপ্তাহে অন্তত ১ দিন সময় বের করে হেনা করুন। এতে আপনার চুলের প্রাকৃতিক রং বজায় থাকবে।

সতর্কতাঃ-

  • চুলকে অতিরিক্ত কেমিক্যাল প্রোডাক্ট থেকে দূরে রাখুন।
  • ইলেক্ট্রিক্যাল গ্যাজেট ব্যবহার না করাই ভালো।
  • জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলুন।
  • প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করুন।
  • লিভার ভালো রাখতে প্রচুর পরিমাণ জল পান করুন।

আশা করি, পদ্ধতিগুলি মেনে চললে চুল পাকার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

সারকথাঃ

লিভারের খারাপ হয়ে গেলে চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায় পাওয়া অসম্ভব হয়ে পড়ে। এর একমাত্র মুক্তির উপায় চিকিৎসা। লিভার খারাপ হয়ে গেলে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here