বাদাম কত প্রকার | বাদামের পুষ্টিকর গুণাগুণ

বাদাম কি - What are nuts?

থিয়েটার, স্কুল, অফিস, চায়ের দোকানই হোক বা জমজমাট গল্পের আড্ডাখানাই বলুন সব জায়গায় একটাই স্ন্যাক্স খুব পরিচিত। সেটি বাদাম এই মুখরোচক স্ন্যাক্সটা সবাই খেতে খুব মজাই পায়। তাছাড়াও এটি পুষ্টিগুণেও ভরপুর। স্বাস্থ্যের পক্ষেও ভালো। এই সুস্বাদু খাবারটি রান্নার স্বাদ আরও বাড়িয়ে তোলে। বাদামে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন। হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখতে এর বিকল্প নেই। রক্তে সুগারের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ রাখার পাশাপাশি স্বাস্থ্যের সমস্ত রকম রোগ থেকে মুক্ত রাখে।

বাদাম কি - What are nuts?

Source

বাদাম কি – What are nuts?

উদ্ভিদগতভাবে বলতে গেলে বাদাম হ’ল শক্ত বাইরের শেলের ভিতরে পাওয়া বীজ এবং শুকনো ফলগুলির সংমিশ্রণ। এটি একটি স্ন্যাক্স। অনেক রান্নায় এটি ব্যবহার করা হয়। বাদাম বিভিন্ন ধরণের ভিটামিন এবং খনিজ সরবরাহ করে। 

আরও পড়ুন । বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা জেনে নিন

বাদাম কত প্রকার ?

Source

বাদাম কত প্রকার -How many types of nuts?  

বাদাম কত প্রকার বলতে গেলে অনেক বাদামের কথা মাথায় আসে তবে, বাদাম সাধারণত চার প্রকার। কাঠ বাদাম, চিনা বাদাম, পেস্তা বাদাম, কাজু বাদাম এছাড়াও বাজারে অনেক রকমের বাদাম পাওয়া যায়। যা আলাদা আলাদা ভিটামিন ও প্রোটিন সমৃদ্ধ এবং তাদের স্বাদও ভিন্ন।

আরও পড়ুন । পেস্তা বাদাম খাওয়ার ১০ টি উপকারিতা

বাদামের পুষ্টিগুণ ও তার উপকারিতা

Source

বাদামের পুষ্টিগুণ ও তার উপকারিতা -Nutritional value of Nuts and its benefits

এই চার রকমের বাদামে আলাদা আলাদা পুষ্টিগুণ রয়েছে এবং এই পুষ্টি উপাদানগুলি আমাদের শরীরের জন্য উপকার।

কাঠ বাদামঃ

প্রতি আউন্স কাঠ বাদামে রয়েছে ১৬১ ক্যালোরি , ৫.৯ গ্রাম প্রোটিন, ১৩.৮ গ্রাম ফ্যাট। ক্যালোরি আমাদের দেহের শক্তি যোগায় এবং প্রোটিন দেহের বিকাশ করে। এছাড়াও বাদামে ৩৭ শতাংশ ভিটামিন ই রয়েছে যা ভিটামিন ই একটি প্রয়োজনীয় পুষ্টি যা দেহের অভ্যন্তরে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট হিসাবে কাজ করে।

চিনা বাদামঃ-

প্রতি আউন্স চিনা বাদাম ১৬১ ক্যালোরি, ৪.৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ৭.১ গ্রাম প্রোটিন, ১৩.৬ গ্রাম ফ্যাট রয়েছে। এই উপাদানগুলি আমাদের শরীরের ভালো রাখতে প্রয়োজন। চীনা বাদামে উপস্থিত আয়রন ৪.৬ মিলিগ্রাম ও জিঙ্ক ৩.৩ মিলিগ্রাম যা আমাদের সুস্থ রাখতে সহায়ক।

পেস্তা বাদামঃ-

প্রতি আউন্স পেস্তা বাদামে ১৫৯ ক্যালোরি, ৭.৮ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ৫.৭ গ্রাম প্রোটিন, ২.৯ গ্রাম ফাইবার, ১২.৪৯ গ্রাম ফ্যাট, ভিটামিন বি ৬- ২৪% আরডিআই থাকে। বি 6 দেহের শক্তি বিপাকের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে।

কাজু বাদামঃ-

প্রতি আউন্স কাজু বাদামে রয়েছে ১৫৭ ক্যালোরি, ৮.৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ৫.১ গ্রাম প্রোটিন, ০.৯ গ্রাম ফাইবার, ১২.৩ গ্রাম ফ্যাট। এছাড়াও কাজু বাদামে ম্যাগনেসিয়াম উচ্চ পরিমাণে রয়েছে যা রক্তচাপ কমিয়ে এবং রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন । কাঠ বাদামঃ কাঠ মাদামের উপকারিতা ও গুণাগুণ

স্বাস্থ্যের জন্য ভিন্ন ধরনের বাদামের উপকারিতা – Benefits of different types of nuts for health

গবেষণায় দেখা গেছে যারা নিয়মিত বাদাম খান, তাদের দীর্ঘায়ু। বাদামে এমন গুন আছে, যা জীবনকে রাখে সর্বদা আনন্দময়।

কাঠ বাদাম – Almonds

কাঠ বাদাম - Almonds

Source

সাধারণত কাঠ বাদাম আমন্ড বাদাম হিসাবে পরিচিত। কাঠ বাদাম দেখতে প্রায় গোলাকার। এই বাদামটিতে কাঠের মতো খোলস থাকে। কাঠ বাদাম বিশ্ব জুড়ে খ্যাতি অর্জন করেছে। এটি রক্তে কোলেস্টেরল এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখে এবং অন্ত্রের জন্য উপকারী।

নিয়মিত এই বাদাম  ক্ষুধা হ্রাস করে ওজন কমাতে সহায়তা করতে পারে। এই বাদামে যেহেতু প্রোটিনের পরিমাণ ভালো মাত্রায় আছে তাই  বাচ্চাদের খাদ্য তালিকায় এই সুস্বাস্থ্য স্ন্যাক্সটি রাখা জরুরী।

এটি স্বাস্থ্যের পাশাপাশি ত্বকের যত্নও রাখে।  কাঠ বাদাম বাটা ও কাঁচা দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে মাখলে ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে আসে

Key Point: ডায়েটে বাদাম যুক্ত করলে রোজ গ্লুকোজের মাত্রা কমাতে সহায়তা করতে পারে।  

চিনা বাদাম – Peanuts

চিনা বাদাম - Peanuts

Source

বাদামের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয়তা বেশি এই বাদামে। চিনা বাদাম একটি পুষ্টিকর খাবার। চিনা বাদাম এইচডিএল মাত্রা বাড়িয়ে কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে। এটি রক্তে খারাপ চর্বি এবং রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে

চিনা বাদাম মাখন একটি সুস্বাদু খাবার। এই খাবারের উপর স্বাস্থ্যকর উপায় হল এর থেকে বেশি বাদাম পাওয়া যায়। চিনা বাদামে রয়েছে খনিজ, ম্যাগনেসিয়াম, যা ত্বক ও চুল মসৃণ করার পাশাপাশি দাঁত ও মাড়ীকে মজবুত করে।

Notes: চীনা বাদামে অ্যালার্জি হওয়ার সম্ভবনা থাকে। তাই অ্যালার্জি থাকলে এড়িয়ে চলুন।

পেস্তা বাদাম – Pistachio Nuts 

পেস্তা বাদাম - Pistachio Nuts 

Source 

এই বাদাম স্যালাড তৈরি করতে বা রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয়। একে আদর্শ খাবারের তালিকায় রাখা যায়। কারণ এই বাদামে ভিটামিন বা প্রোটিন কোনও কিছু কমতি নেই। হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখতে, ওজন কমাতে ও উচ্চ রক্তচাপ কমাতে এটি অতুলনীয়।

নিয়মিত পেস্তা বাদাম খেলে ফুসফুসে ক্যান্সার রোধ হয়। পাশাপাশি পেস্তার তেল ত্বকের পরিচর্চায় খুব কার্যকারী। ত্বক খসখসে হয়ে যাওয়া থেকে বাঁচায়।

Key Point: পেস্তায় ভিটামিন বি ৬ উচ্চ পরিমাণে রয়েছে। হিমোগ্লোবিন তৈরির জন্য ভিটামিন বি 6 প্রয়োজন। 

কাজু বাদাম – Cashew Nuts

কাজু বাদাম - Cashew Nuts

Source

কাজু বাদাম প্রধানত ভিয়েতনাম ও নাইজেরিয়া থেকে আমদানি হয়  চীনে এই বাদামের তৈরি খাবার খুব সুস্বাদু। গবেষণায় দেখা গেছে, কাজু বাদাম ডায়াবেটিসের প্রকোপ কমায়। এছাড়াও হার্টের অসুখ রোধ করে, ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং চুলের সৌন্দর্যতা বৃদ্ধি করে। প্রতিদিন এক মুঠো কাজু বাদাম খেলে ক্যান্সার প্রতিরোধ হয়।

Key Point: কাজু হ’ল ম্যাগনেসিয়ামের একটি ভাল উৎস,একটি খনিজ যা মানবদেহে অনেকগুলি গুরুত্বপূর্ণ ক্রিয়াকলাপ চালায়। 

বাদাম কত প্রকার আলোচনায় এখানে কিছু জনপ্রিয় বাদামের আলোচনা করা হল। এছাড়াও আরও সুস্বাদু বাদাম রয়েছে।

আরও পড়ুন । নিয়মিত চিনা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা

বাদামের সাইড এফেক্ট - Side effects of nuts

Source

বাদামের সাইড এফেক্ট – Side effects of nuts

আমরা সকলেই জানি যে শুকনো ফলগুলি বিভিন্ন ধরণের পুষ্টিতে সমৃদ্ধ, পাশাপাশি এতে প্রচুর ফাইবার থাকে, যদিও হজমে ফাইবারের প্রয়োজন হয়। তবে যখন নির্দিষ্ট পরিমাণ না খেয়ে অতিরিক্ত পরিমাণে খাই তখন আমাদের শরীরের কিছু সমস্যা সৃষ্টি হয়।

তাহলে আজকের নিবন্ধে বাদাম বাদাম কত প্রকার এবং তার গুনাগুণ জানতে পারলেন। তাহলে আজ থেকে ডায়েটে এটি যুক্ত করুন তবে সাবধান অল্প পরিমাণে। অতিরিক্ত পরিমাণ আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তর 

Q. কোন বাদামে ওজন কমে? 

A. পেস্তা বাদামে ওজন কমতে পারে।

Q. নিয়মিত বাদাম কতটা পরিমাণে খাওয়া উচিত?

A. ২০-৩৫ গ্রাম মতো নিয়মিত খাওয়া উচিত।

Q. বাদামে কি অ্যালার্জি হতে পারে?

A. কিছু কিছু বাদাম অতিরিক্ত পরিমাণ খেলে অ্যালার্জি হয়।

Q. ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য বাদাম খাওয়া উপকার?

A. অল্প পরিমাণে খেতে হবে। তবে সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

Q. বাদাম গ্যাসের সমস্যা হতে পারে?

A. বাদামে বেশি খেলে গ্যাসের সমস্যা হতে পারে।

Previous articleবিবাহ বার্ষিকী ম্যাসেজ | শুভেচ্ছা | এসএমএস
হাই, আমি তিশা সেন। একজন ব্লগ লেখিকা এবং স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ। আমার প্যাশন মানুষের শরীর- স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতন করা। মানুষের শরীরের রোগ সংক্রান্ত চিকিৎসা এবং স্বাস্থ্য ভালো রাখার টিপস নিয়ে লেখালেখির কাজ করতে ভালোবাসি। আমার লক্ষ্য রোগের এবং স্বাস্থ্য সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা। বিভিন্ন ধরণের রোগের চিকিৎসার উপায় জেনে নিজেকে সুস্থ রাখুন এবং নিজের সৌন্দর্যকে বজায় রাখার টিপস জানতে আমাদের এই পেজ অনুসরণ করুন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here