আদর্শ খাবারের তালিকা ও তার শ্রেণীবিভাগ

আদর্শ খাবারের তালিকা

খাবার ছাড়া আমাদের জীবনধারণ সম্ভব নয়। দৈনন্দিন কাজকর্ম ও চলাফেরা করার জন্য দরকার সবল, রোগমুক্ত ও সুস্থ শরীর। আর এই শরীর বজায় রাখতে খাবার প্রয়োজন। খাবার শরীর গঠন, বৃদ্ধি সাধন এবং ক্ষয়পূরণ করার পাশাপাশি তাপশক্তি ও কর্মক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া রোগমুক্ত রাখতে সহায়তা করে। অসুস্থ শরীরকে আরোগ্য হতেও সাহায্য করে। তবে খাবারে রয়েছে অনেক শ্রেনীবিভাগ। আর দেহকে সুস্থ রাখতে কোন খাবার কতটুকু শরীরের জন্য দরকার, সেটিও জানা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

আদর্শ খাবারের তালিকা

আদর্শ খাবারের তালিকা

1. প্রোটিন
2. ফ্যাট
3. কার্বোহাইড্রেট
4. খনিজ
5. ভিটামিন
6. জল

প্রোটিনের খাদ্য তালিকাঃ

প্রোটিনের খাদ্য তালিকাঃ

প্রোটিন হল উচ্চ ভর বিশিষ্ট নাইট্রোজেন যুক্ত জটিল যৌগ। এটি কার্বন, নাইট্রোজেন, অক্সিজেন, হাইড্রোজেন দিয়ে গঠিত। আমাদের শরীরের অস্থি, পেশি থেকে শুরু করে নাক, চুল, দাঁত পর্যন্ত প্রোটিন দ্বারা গঠিত।
মস্তিষ্কের বিকাশ ঘটাতে প্রোটিন অপরিহার্য। প্রোটিনের অভাবে দেহের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা কমে যায়। তাই আদর্শ খাবারের তালিকা প্রোটিনযুক্ত খাদ্য গ্রহণ করা প্রয়োজন।

প্রোটিনযুক্ত খাদ্যঃ

• ডিমঃ- প্রতিদিন একটি ডিম মস্তিষ্কের বিকাশ ঘটায়। একটি ডিমে রয়েছে সাত থেকে আট গ্রাম প্রোটিন।

পনিরঃ- পনিরে রয়েছে প্রচুর পরিমানে প্রোটিন। দুগ্ধজাত খাবারের মধ্যে পনির অন্যতম। পনিরে প্রোটিনের পাশাপাশি ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস রয়েছে যা হাড় ও দাঁতকে মজবুত রাখে।

মাছ ও মাংসঃ- প্রোটিনযুক্ত খাবারের মধ্যে জনপ্রিয় খাবার মাছ ও মাংস। মাছ ও মাংসে রয়েছে ২০ থেকে ৩০ শতাংশ প্রোটিন। যা দেহের মাংসপেশি শক্তিশালী করে।

দুধঃ- দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার দৈনিক প্রোটিনের চাহিদা মেটায়। এক কাপ দুধে রয়েছে প্রায় সাত থেকে আট গ্রাম প্রোটিন।

ফ্যাট জাতীয় খাবার তালিকাঃ

ফ্যাট জাতীয় খাবার তালিকাঃ

প্রোটিনের মতো ফ্যাটও পুষ্টির একটি অপরিহার্য অংশ। ফ্যাট হল শক্তির প্রধান উৎস। এক গ্রাম ফ্যাটে নয় শতাংশ ক্যালোরি রয়েছে। যা কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিনের থেকেও বেশি।
এটি অক্সিজেন, হাইড্রোজেন ও প্রোটিন দিয়ে গঠিত। যা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত জরুরী। আদর্শ খাবারের তালিকা ফ্যাট জাতীয় খাবার রাখা দরকার।

ফ্যাট জাতীয় খাদ্যঃ

• মাখন ও ঘিঃ- ফ্যাট জাতীয় খাবারের মধ্যে অন্যতম খাদ্য মাখন ও ঘি। মাখনে রয়েছে ওমেগা থ্রি ও ওমেগা সিক্স ফ্যাটি অ্যাসিডও যা চুল, ত্বক ও হাড়ের পাশাপাশি মস্তিস্ক সতেজ রাখে।

বাদামঃ- প্রতিদিন খাবারের তালিকায় আমন্ড বাদাম ফ্যাটের পাশাপাশি ভিটামিন ও যোগায়। শতকরা ৮০ ভাগ ফ্যাট থাকে বাদামে যা দেহের পক্ষে উপকারি।

• খাসির মাংসঃ- দুধ, ডিমের পাশাপাশি খাসির মাংসও পুষ্টিগুণে পিছিয়ে নেই। প্রতি একশো গ্রাম খাসির মাংসে ২-৩ গ্রাম চর্বি থাকে।

কার্বোহাইড্রেট খাদ্য তালিকাঃ

কার্বোহাইড্রেট খাদ্য তালিকাঃ

শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট সুস্থ শরীরের অপরিহার্য অংশ। কার্বোহাইড্রেট জীবদেহে শক্তির প্রধান উৎস। এটি কার্বন, হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন নিয়ে গঠিত।
কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবার এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, পুষ্টি ও অ্যান্টি অক্সিজেন থাকে। শরীরে প্রোটিন ও ফ্যাটের পাশাপাশি কার্বোহাইড্রেট থাকা গুরুত্বপূর্ণ।

সম্পর্কিত নিবন্ধ চেক করুন :- 

কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবারঃ

• সবুজ সবজিঃ- আদর্শ খাবারের তালিকা য় সবজি প্রথমেই রাখা উচিত। সুস্থ থাকার চাবিকাঠি হল সবুজ সবজি।
আলু, পেঁয়াজ, বিনস, ফুলকপি, বাঁধাকপি প্রভৃতি সবজি কার্বোহাইড্রেট যুক্ত যা শরীরের পক্ষে উপযুক্ত। প্রতি একশো গ্রাম সবজিতে ১২-১৩ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট রয়েছে।

• মাশরুমঃ- মাশরুম কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবার। মাশরুমে আট থেকে দশ শতাংশ কার্বোহাইড্রেট আছে।

• মিষ্টিঃ- যদি ডায়াবেটিস না থাকে তাহলে নিঃসন্দেহে খাদ্য তালিকায় মিষ্টি রাখাতে পারেন। মিষ্টিতে ৬৫ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট রয়েছে।

ভিটামিন খাদ্য তালিকাঃ

ভিটামিন জৈব্য পদার্থের একটি গোষ্টী। ভিটামিন শরীরের পুষ্টি যোগায়। শরীরের রোগ প্রতিরোধে সক্ষম। ভিটামিনের অভাবে নান রকমের রোগের সৃষ্টি হতে পারে যেমন- চোখে কম শোনা, কানে কম শোনা, হার্টের রোগ ইত্যাদি।

সারকথাঃ
ভিটামিন অনেক রকমের হয়। ভিটামিন এ, বি, সি,ই, ডি, কে।

ভিটামিনযুক্ত খাবারঃ

ভিটামিনযুক্ত খাবারঃ

পালং শাকঃ– পালং শাকে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি ও কে রয়েছে যা মস্তিস্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহয়তা করে। পালং শাক রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা রাখে।

কমলালেবুঃ কমলালেবুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। যা ত্বকের জন্য খুব উপকার।

গাজরঃ গাজরে ২৮ গ্রাম ভিটামিন কে থাকে। এটি রোগ দূর করার পাশাপাশি নার্ভাস সিস্টেম শক্ত রাখে। প্রতিদিন এক গ্লাস গাজরের রস খেলে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ে।

মিষ্টি আলুঃ- ভিটামিন ই ফুসফুস ও দেহের টিস্যু গঠনের সাহায্য করে। মিষ্টি আলুতে রয়েছে ভিটামিন ই। তাই আদর্শ খাবারের তালিকা এটি একটি সুষম খাদ্য।

এছাড়াও সবজি, মাছ, দুধ, লেবু, আপেল, ডিম, টমেটো ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন রয়েছে যা খাবারের তালিকায় গুরুত্বপূর্ণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here