ওজন বাড়ানোর খাবার তালিকা জেনে রাখুন

ওজন বাড়ানোর জন্য খাবার

আমাদের পৃথিবীতে এরকম অনেক লোক আছেন যারা নিজেদের ওজন নিয়ে চিন্তিত। নিজেদের বাড়তি ওজন নিয়ে নয় বরং পাতলা চেহারা নিয়ে। তাদের রোগা চেহারার তারা অনেকের কাছে হাসির পাত্র হয়ে ওঠে। অনেক সময় দেখা যায় ওজন বাড়ানোর খাবার যেমন ফ্যাটি জাতীয় খাবার খেয়েও নিজেদের ওজন বাড়াতে পারছেন না।

Read more:  জেনে নিন, শিশুদের জন্য স্বাস্থ্যকর খাবার এ কী কী রাখা জরুরী

ওজন বাড়ানোর খাবার

অতিরিক্ত ওজন যেমন আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয় ঠিক তেমনি আন্ডার ওয়েট কিন্তু ভালো নয়। যেকোনো মানুষের উচ্চতা অনুযায়ী ওজন সঠিক রাখা উচিত। আপনি যদি আপনার ওজন বৃদ্ধি করতে চান তাহলে আপনার দৈনিক খাবারের পরিমাণ পরিবর্তন করতে হবে সঙ্গে খাবারের তালিকাও এবং পাশাপাশি আপনাকে যোগ ব্যায়াম করতে হবে। একটু পরিশ্রম করলেই আপনি উচ্চতা অনুযায়ী আপনার ওজন বাড়িয়ে তুলতে পারেন।

আজকের এই নিবন্ধে আমরা ওজন বাড়ানোর জন্য যেসমস্ত খাবারগুলি খাওয়া প্রয়োজন তার তালিকা আপনাদের জানাব।

Read more:  দৌড়ানোর পর খাবারঃ দৌড়ানোর পর খাদ্য তালিকা কি কি রাখা উচিত?

ওজন বাড়ানোর জন্য যা যা খাবার খাওয়া দরকারঃ

ওজন বাড়ানোর জন্য যা যা খাবার খাওয়া দরকারঃ

ওজন বাড়ানোর জন্য স্বাস্থ্যকর খাবারের সঙ্গে সঙ্গে ব্যায়াম খুবই প্রয়োজন। আপনি যদি আপনার ওজন বাড়াতে চান তাহলে আপনার খাদ্যে পুষ্টি যোগ করুন। এছাড়া আপনি ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলে একটি ডায়েট চার্ট তৈরি করে নিতে পারেন এবং সেটি অনুসরণ করতে পারেন। তবে ওজন বাড়ানোর ডায়েট চার্টে ক্যালরি, চর্বি, প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট খাবারে যোগ করা খুব প্রয়োজন।

Read more:  ওজন বাড়ানোর ব্যায়াম যা ওজন বৃদ্ধি করবে দ্রুত 

  1. প্রোটিন সেক এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার ওজন বাড়ানোর জন্য উপকারি। আপনাকে খাবার তালিকায় প্রোটিনযুক্ত খাবার সপ্তাহে ৩-৪ দিন রাখতেই হবে। প্রোটিন যুক্ত খাবারের মধ্যে ওজন বাড়ানোর খাবার হল মাছ, ডিম, মাংস, দুধ, লেবু, বাদাম, রেড মিট, মটরশুঁটি, অ্যাভোকাডো ইত্যাদি।
  2. ওজন বাড়ানোর জন্য দুধ খুব ভালো পানীয়। আপনি যদি দুধ খেতে পছন্দ করেন তাহলে ঘুমানোর আগে দুধে মধু মিশিয়ে নিয়মিত পান করুন। কিছুদিনের মধ্যে আপনার ওজন বৃদ্ধি হতে সাহায্য করবে। আপনি প্রতিদিন এক গ্লাস দুধের সঙ্গে চবনপ্রাস খেলে এতে আপনার হাড় শক্তিশালী হবে এবং আপনার ওজন বৃদ্ধি পাবে।
  3. ওজন বাড়ানোর জন্য আপনি তৈলাক্ত এবং পুষ্টিকর খাবার খেতে পারেন। এটি জন্য আপনি পনির, ঘি, তেল, পনির, মাখন। যদি আপনি চান তাহলে আপনার স্যুপে ঘি, মাখন যোগ করে খেতে পারেন। এছাড়া আপনাকে ফিট থাকার জন্য ওজন বজায় রাখাতে শস্য, গম, ময়দা এবং আটা ইত্যাদি খাওয়া উচিত।
  4. আপনি গম- বিস্কুট, ওটমিল, ব্রাউন চাল ইত্যাদি খাওয়া উচিত। ওজন বৃদ্ধি করার জন্য ড্রাই ফ্রুট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আপনি শুকনো ফলগুলির মধ্যে বাদাম, তরমুজ, আখরোট, কিসমিস, চকলেট ইত্যাদি খেতে পারেন। এছাড়াও আপনাদের বেশি করে চাল এবং ডাল খেতে হবে।
  5. ওজন বাড়ানো খাবারের মধ্যে সবুজ সবজি খাওয়া অত্যন্ত উপকারি। এতে আপনার স্বাস্থ্যও ভালো থাকবে এবং আপনি বিনা পরিশ্রমে ওজন বৃদ্ধি করতে পারবেন।
  6. ফল, ফলের রস, সবজি, তরমুজ ইত্যাদি নিয়মিত খাওয়ার মাধ্যমে ওজন সহজেই বাড়ানো সম্ভব। ওজন বাড়ানোর জন্য মিষ্টি খুব উপকারি। মিষ্টি, গুঁড়, পুডিং, কাস্টার্ড, মধু থেকে তৈরি জিনিস ওজন বাড়ানোর জন্য খেতে পারেন।

এই খাবারগুলি আপনার খাবার তালিকায় রাখলে খুব দ্রুত ওজন বাড়াতে সহায়তা করবে। এছাড়াও নীচে ওজন বাড়ানোর একটি ডায়েট চার্ট আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করলাম।

Read more: জেনে নিন ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম

ওজন বাড়ানোর জন্য ডায়েট চার্ট

ওজন বাড়ানোর জন্য ডায়েট চার্ট

ওজন বাড়ানোর খাবারের তালিকা

দৈনিক সময়সময়

খাবার

সকালের খাবার

৭ am – ৮ am

চিনি মিশ্রিত দুধ বা চা সঙ্গে বিস্কুট।

সকাল

৮ am – ৯ am

মাখন রুটির সঙ্গে এবং দুটি অমলেট অথবা ওটমিল, ভুট্টা,ফল, একবাটি সবজি।

সকাল ব্রেকফাস্ট

১০ am – ১১ amএক গ্লাস দুধ বা প্রোটিন সেক।

দুপুররে খাবার

১২.৩০ ৩০ pm- ১.৩০ pm

নিরামিষ ভোজীদের জন্য এক বাটি সবজি বা ডালের সাথে এক বাটি ভাত এবং দুটি রুটি এবং আমিষ ভোজীদের জন্য ভাত, চিকেন, ডিম এবং পনির, এক বাটি দই, এক বাটি সবজি।

সন্ধ্যাবেলার টিফিন

৫.৩০ pm – ৬.৩০ pmমাখন সঙ্গে সবজির স্যুপ অথবা মেয়োনিজের সাথে স্যান্ডউইচ।
রাতের খাবার৮.৫০ pm – ৯.৩০ pm

রুটি, এক বাটি সবজি, মাছ, ডাল

রাত

১০ pm – ১১ pm

এক গ্লাস দুধ

 

Read more:  ওজন কমানোর ডায়েট চার্টঃ ওজন কমানোর জন্য উপযুক্ত ডায়েট চার্ট

উপরের এই খাবারগুলি ওজন বাড়ানোর খাবার তালিকায় যোগ করুন এবং ডায়েট চার্ট অনুযায়ী অনুকরণ করুন ধীরে ধীরে আপনার ওজন বৃদ্ধি পেতে থাকবে। ওজন বিকাশের জন্য সুষম খাদ্য খাওয়া প্রয়োজন পাশাপাশি ওজন বাড়ানোর ব্যায়াম করুন।

Key point

ওজন বৃদ্ধি করতে হলে প্রত্যেকের শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিনের প্রয়োজন হয়।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

প্রঃ ওজন বাড়ানোর জন্য তৈলাক্ত এবং ফ্যাট জাতীয় খাবার খাওয়া কি ভালো?

উঃ তৈলাক্ত এবং ফ্যাট জাতীয় খাবার ওজন বৃদ্ধি করে তবে জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলুন।

প্রঃ চকলেট খেলে কি ওজন বৃদ্ধি পায়?

উঃ ডার্ক চকলেট খেলে ওজন বৃদ্ধি করার জন্য ভালো।

10 Comments

  1. আমার বয়স ২১ এবং ওজন খুবই কম (৩৬ কেজি)
    আমার সমস্যাঃ- ক্ষুদা লাগে বাট একটু খেলেই পেট ভরে যায় আর খেতে পারি না। দয়া করে এর সমাধান দিবেন প্লিজ

    • তুমি অনেক করে পানি খাবে ভাত খাওয়ার ১ ঘন্টা পর। কমপক্ষে ২ লিটার পানি খেতে হবে। তার সাথে নিয়মিত ব্যায়াম করবে তাহলে খুদা লাগবে খেতে পারবে। প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন যুক্ত খাবার খেতে হবে। বিভিন্ন ধরনের বাদাম কিসমিস দুধ কলা এগুলো বেশি করে খেতে হবে।

  2. আসসালামুয়ালাইকুম স্যর আমার বয়স ২২ বছর কিন্তু এখনো ১৫ বছরের ছেলের মতো মন হয়। বাসার সবাই আমকে নিয়ে মজা করে … খাবারে কোনো প্রকার রুচি নাই। আমার চেয়ে আমার ছোট ভাই আরো বেশি খাবার গ্রহন করে। প্রতিদিন পড়ালেখার চাপে থাকি তাই বাইরেও বের হই না … এই অবস্থায় ওজন বাড়াতে আমকে কি করা উচিত স্যার

    • আপনার শরীরে প্রোটিন এবং ক্যালোরি বেশি মাত্রায় প্রয়োজন। নিয়ম করে রোজ কলা, দুধ জাতীয় খাবার, ড্রাই ফুড (বাদাম), এক বাটি ডাল ইত্যাদি খাওয়ার চেষ্টা করুন। অনেক সময় শরীরের কোনও সমস্যা থাকলে ওজন বাড়ে না সেক্ষেত্রে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন।

  3. গ্যাস এর সমস্যা হয় তাই খাবার তেমন রুচি হয় না এবং বেশি খেতে পারি না
    আমার করনীয় কি শরীর ও ওনেক দুর্বল

    • অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন এবং কিছু ঘরোয়া টোটকা অনুসরণ করতে পারেন।

  4. আমার নাম কাওছার। মহান আল্লাহ তায়ালার রহমতে ভালো আছি। আমার ওজন ৫৮। এবং উচ্চতা ৫”১০” আমার ‌‌ওজন বাড়াতে আমাকে কি কি করতে হবে । দয়া করে জানাবেন প্লিজ

    • এই ওজন বাড়ানোর তালিকা আপনি অনুসরণ করতে পারেন আশাকরি ভালো ফল পাবেন। এছাড়াও কিছু ওজন বাড়ানোর ব্যায়াম রয়েছে সেগুলো নিয়মিত অনুসরণ করুন। তবে ব্যায়ামের সাথে সাথে পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবার খাওয়া প্রয়োজন। দৈনিক ৫০০–৭০০ ক্যালরি খাবার বেশি খেতে হবে।

Leave A Reply

Please enter your comment!
Please enter your name here