জেনে নিন ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম

ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম

আপনি কি অনেকদিন ধরে ওজন কম করার চেষ্টা করে যাছেন? কিন্তু বহু চেষ্টার পরেও ওজন কমাতে পারছেন না। কারণ আপনি ওজন কমানোর জন্য সঠিক উপায়টি জানেন না। একটু পরিশ্রমে আপনি মেদ ঝরিয়ে ফেলতে পারেন। ঠিকমতো ডায়েট চার্টের সঙ্গে ওজন কমানোর নিয়মিত ব্যায়াম করা প্রয়োজন। ওজন কম করার জন্য উপযুক্ত ব্যায়াম না জানার জন্য বেশিরভাগ মানুষ সমস্যায় পড়ে। তাই আজ আমরা আপনাদের জানাবো ওজন কমানোর জন্য উপযুক্ত ব্যায়াম। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম।

ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম

ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম (Exercise to lose weight at home)

প্রত্যেকের কোন শারীরিক প্রশিক্ষক থাকে না, যে তাকে গাইড করবে কীভাবে ওজন কমিয়ে ফিট থাকা যায়। ওজন কমানোর ব্যায়াম রোজ ৩০ মিনিট করতে হবে ঘরে বসে। এখানে ওজন কমানোর ব্যায়াম সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত ধারণা দেওয়া হল যা আপনাকে ওজন কমানোর জন্য কার্যকরভাবে সহায়তা করবে।

আরও পড়ুন । ওজন বাড়ানোর ব্যায়াম যা ওজন বৃদ্ধি করবে দ্রুত

1. কার্ডিও ব্যায়াম (Cardio exercises) 

কার্ডিও ব্যায়াম হল স্কিপিং ( লাফদড়ি ) করাকে বোঝান হয়। শুনলে অবাক হয়ে যাবেন ৪০ মিনিটের জন্য এই ব্যায়াম করলে নিয়মিত ৩০০ থেকে ৪০০ ক্যালরি ওজন কমবে।

কার্ডিও ব্যায়াম

কার্ডিও ব্যায়াম করার নিয়ম: 

  1. প্রথমে পিছনের দিকে সোজা হয়ে দাঁড়ান।
  2. পায়ের পাতাগুলি একসঙ্গে রাখুন।
  3. কয়েক ইঞ্চি লাফ দিয়ে পায়ের নীচে দড়িটি রাখুন। এবং স্কিপিং করুন।
  4. যদি দড়ি না থাকে তাহলে দড়ি ছাড়াই উপর নীচে লাফান এবং হাত দুটো একইভাবে ঘোরাতে থাকুন।

কার্ডিও ব্যায়াম করার সময়:

নিয়মিত ৩০-৪০ মিনিট।

আরও পড়ুন । হার্ট ভালো রাখতে নিয়মিত হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম

2. জাম্পিং-জ্যাক (Jumping-jack) 

আমরা স্কুলে পি.টি করার সময় জাম্পিং জ্যাক করতাম। এই ব্যায়ামটি একটি ওয়ার্ক আউটের ভালো বিকল্প। এই ব্যায়ামটির জন্য কোন মেশিনের প্রয়োজন নেই। এটি খুব সহজেই ঘরে বসেই আপনি করতে পারবেন। এই ব্যায়ামটি শরীরের জন্য খুব ভালো উপকার।

জাম্পিং জ্যাক

জাম্পিং জ্যাক করার নিয়ম: 

  1. প্রথমে সোজা হয়ে দাঁড়ান।
  2. এবার হাত দুটি উপরের দিকে তুলুন।
  3. একবার লাফিয়ে পা দুটি ফাঁক করে দিন।
  4. আবার লাফান এবং আগের অবস্থায় ফিরে আসুন।

জাম্পিং জ্যাক করার সময়: 

রোজ ৩-৪ মিনিট এই ব্যায়াম অভ্যাস করুন।

আরও পড়ুন । নিয়মিত হাঁটু ব্যথার ব্যায়াম করুন এবং সুস্থ থাকুন

3. পুশ – আপ (Push-ups) 

পুশ আপ আপনি যে কোনো সময়ে করতে পারেন। এটি খুব সহজ একটি ব্যায়াম যা ওজন দ্রুত হ্রাস করে। এর জন্য কোন যন্ত্র প্রয়োজন হয় না। আপনি ঘরে বা যে কোন জায়গায় এই ব্যায়ামটি অনায়াসে করতে পারেন। পুশ – আপ শরীর শক্তিশালী করার জন্য অসাধারণ কার্যকর।

পুশ – আপ

পুশ – আপ করার নিয়ম: 

  1. একটি তক্তা নিন।
  2. প্রথমে সোজাভাবে শুয়ে পড়ুন।
  3. পা দুটি একসঙ্গে জোড়া করুন।
  4. এবার হাত ও পায়ের উপর ভর করে একবার নীচে এবং উপরের দিকে ওঠার ট্রাই করুন এইভাবে অনবরত পুশ – আপ করে যান।
  5. এটি ওজন কমানোর পাশাপাশি বডি সোজা রাখে।

পুশ – আপ করার সময়:

নিয়মিত ৫-১০ মিনিট ধরে পুশ – আপ করুন।

আরও পড়ুন । যোগ ব্যায়ামের সুবিধাঃ নিয়মিত যোগাসনের সুবিধা কি কি

4. সূর্য নমস্কার (Surya namaskara) 

সূর্য নমস্কার রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখে এবং ১৩.৯০ শতাংশ ক্যালরি ঝরাতে সাহায্য করে। সূর্য নমস্কার ব্যায়ামটি নিয়মিত করার ফলে শরীরের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি হয়, কিডনি ও পাকস্থলী সবল হয় পাশাপাশি অতিরিক্ত মেদ বৃদ্ধি রোধ করে।

সূর্য নমস্কার

সূর্য নমস্কারের নিয়ম:

    1. প্রথমে সূর্যের দিকে মুখ করে সোজা হয়ে ম্যাটের উপর দাঁড়ান।
    2. দুই পা জোড়া করুন।
    3. দেহের ওজন দুই পায়ের উপর সমানভাবে রাখার চেষ্টা করুন।
    4. শ্বাস নেওয়ার সঙ্গে দুদিক থেকে হাত তুলন।
    5. শ্বাস ছাড়ার সময় হাত দুটি নমস্কার ভঙ্গিতে বুকের কাছে আনুন।

সূর্য নমস্কারের সময়:

নিয়মিত সকালে অন্তত ৫মিনিট

আরও পড়ুন । স্বাস্থ্যের জন্য সকালে দৌড়ানোর উপকারিতা

5. দৌড়ানো (Running) 

দৌড়ানো

ওজন কমানোর যাদু কাঠি হল দৌড়ানো। রোজ সকালে বাইরে যান নিয়মিত ৩০ মিনিট করে দৌড়ান। এতে শুধু আপনার ক্যালরি ঝরবেই না পাশাপাশি দেহ ফিট থাকবে।

6. সাঁতার কাটা (Swimming) 

সাঁতার কাটা

এক ঘণ্টা সাঁতার কাটা ৩ মাইল হাটার সমান। নিয়মিত সাঁতার কাটার ফলে প্রচুর পরিমাণে ক্যালরি হ্রাস হয়। দ্রুত ওজন কমাতে নিয়মিত সাঁতার কাটার অভ্যাস করুন।

আরও পড়ুন । দৌড়ানোর উপকারিতা: সুস্থ থাকতে চাইলে নিয়মিত দৌড়ান

আশা করি, এবার আর বলতে পারবেন না ওজন কমানোর উপায় আপনি জানেন না। তাহলে আজ থেকেই ট্রাই করুন।

Key point

ওজন কমানোর ব্যায়াম ওজনের পাশাপাশি হার্ট সুস্থ রাখে, ক্যান্সার রোধ করে।

 

 

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. ওজন কমানোর জন্য রোজ কতবার পুশ আপ করা প্রয়োজন? 

A. ৫-১০ মিনিট ধরে যতবার সম্ভব।

Q. কখন দৌড়ানো সবচেয়ে ভালো? 

A. সকালে দৌড়ানো সবচেয়ে ভালো।

Q. জাম্পিং জ্যাক কতবার করতে হবে? 

A. ৩-৪ মিনিট করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here