কাঠ বাদাম | কাঠ বাদামের উপকারিতা ও গুণাগুণ

কাঠ বাদাম

বাদাম কমবেশি সবাই খেতে ভালোবাসে। রান্নার স্বাদ বাড়াতে এছাড়াও কেক, পেস্ট্রি তৈরিতে বাদাম ব্যবহার করা হয়। এই আকারে ছোটো জিনিসটি পুষ্টিগুণেও যে ভরপুর সে বলার আর অপেক্ষা রাখে না। বাদাম শুধুমাত্র খাদ্য তালিকায় নয় এটির উপস্থিতি রূপচর্চাতেও বিদ্যমান। বাদাম অনেক ধরণের হয়ে থাকে। কিন্তু আজ আমরা আলোচনা করব কাঠ বাদাম সম্পর্কে। বিশ্বের জনপ্রিয় বাদাম গাছগুলির মধ্যে একটি কাঠ বাদাম। এই বাদামটি প্রচুর পরিমাণে নিউট্রিশনে ভরপুর।

কাঠ বাদাম

Table of Contents

কাঠ বাদাম কি (What is Almonds nuts)

প্রাচীনকালে তিন হাজার বছর আগে কাঠবাদাম ফল হিসাবে খ্যাতি ছিল। কাঠবাদামের ফল দেখতে প্রায় অনেকটা গোলাকার এবং কাঠের মতো শক্ত খোলসের আবরণ দিয়ে ঢাকা। খোলসের অভ্যন্তরে থাকে বাদামের খাবারের অংশটি।

কাঠ বাদাম একটি সুস্বাদু ও পুষ্টিকর খাবার। এতে উপস্থিত জিঙ্ক, ফলিক অ্যাসিড এবং প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে, ওজন হ্রাস করতে এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন । বাদাম কত প্রকার | বাদামের পুষ্টিকর গুণাগুণ

Almonds

কাঠ বাদামের পুষ্টিগুণ (The nutritional value of Almonds nuts)

100 গ্রাম কাঠ বাদামে পুষ্টিগুণ রয়েছে-

  • এনার্জি (৫৭১ ক্যালরি)
  • ফ্যাট (৫০ গ্রাম)
  • প্রোটিন (২১.৪৩ গ্রাম)
  • কার্বোহাইড্রেট (২১.৪৩ গ্রাম)
  • ফাইবার (১০.৭ গ্রাম)
  • আয়রন ( ৩.৮৬ মিলিগ্রাম)
  • ক্যালসিয়াম (২৮৬ মিলিগ্রাম)
  • ম্যাগনেসিয়াম (২৮৬ মিলিগ্রাম)
  • পটাশিয়াম (৭১৪ মিলিগ্রাম)
  • কপার (১.০৭ মিলিগ্রাম)
  • ম্যাঙ্গানিজ (২ মিলিগ্রাম)
  • ভিটামিন বি ২ (০.৯১১ মিলিগ্রাম)

আরও পড়ুন । বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা জেনে নিন

কাঠ বাদামের পুষ্টিগুণের উপকারিতা

কাঠ বাদামের পুষ্টিগুণের উপকারিতা (Nutritional benefits of Almonds nuts)

  • এনার্জি- আমাদের দেহে শক্তির জোগান দেয়।
  • ফ্যাট-  হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়। রক্তচাপ কমায়। কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস এবং হৃদয়ের স্বাস্থ্যের সমর্থন করে
  • প্রোটিন- শরীরের ত্বক, চুল, নখ, হাড় বিকাশে প্রোটিন প্রয়োজন। ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়া থেকে শরীরকে প্রতিরক্ষা করে।
  • কার্বোহাইড্রেট- কার্বোহাইড্রেটগুলির প্রাথমিক কাজগুলির একটি হল আপনার শরীরকে শক্তি সরবরাহ করা। আপনার খাওয়া খাবারগুলিতে বেশিরভাগ শর্করা রক্ত প্রবাহে প্রবেশের আগে হজম হয় এবং গ্লুকোজে ভেঙে যায়।
  • ফাইবার- ফাইবার হজম স্বাস্থ্য এবং নিয়মিত অন্ত্রের জন্য প্রয়োজনীয় উপাদান। এটি রক্তে শর্করার মাত্রা এবং কোলেস্টেরল উন্নত করতে পারে।
  • আয়রন- রোগ প্রতিরোধক শক্তি বৃদ্ধি করে।
  • ক্যালসিয়াম- শরীরের হাড় এবং দাঁত মজবুত করতে সহায়তা করে।
  • ম্যাগনেসিয়াম- হৃদরোগ থেকে রক্ষা করার জন্য উপকারি এবং সুগারের রোগীদের জন্য উপকারি।
  • পটাশিয়াম- রক্তচাপ, কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য, হাড়ের শক্তি এবং পেশী মজবুত করে।
  • কপার- এটিতে শরীরের সমস্ত টিস্যুতে পাওয়া যায় এবং লাল রক্তকণিকা তৈরি করতে এবং স্নায়ু কোষ এবং প্রতিরোধ ক্ষমতা বজায় রাখতে ভূমিকা রাখে।
  • ম্যাঙ্গানিজ- মানুষের হাড় গঠনের স্বাভাবিক বিকাশের জন্য ম্যাঙ্গানিজ অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।
  • ভিটামিন বি ২-ভিটামিন বি ২ ভিটামিনগুলি স্বাভাবিকভাবেই শরীরের বিভিন্ন প্রক্রিয়াগুলির জন্য প্রয়োজনীয় পদার্থ। শরীরের অনেক টিস্যু রক্ষণাবেক্ষণে এটি কাজ করে।

আরও পড়ুন । পেস্তা বাদাম খাওয়ার ১০ টি উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ

কাঠ বাদামের উপকারিতা (Benefits of Almonds nuts)

১. ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারে (Control Blood Sugar Level)

কাঠ বাদামের উপকারিতা

আজকাল তরুণদের মধ্যেও ব্লাড সুগারের সমস্যা দেখা যাচ্ছে। যারা এই সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য বাদাম একটি নিরাময় চিকিৎসা। বাদামে কার্বোহাইড্রেট খুব কম পরিমাণে থাকে কিন্তু এটি উচ্চ স্বাস্থ্যকর ফ্যাট, প্রোটিন এবং ফাইবার সমৃদ্ধ। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য পারফেক্ট চয়েস।

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি রয়েছে এবং বাদাম খেলে ম্যাগনেসিয়ামের পরিমাণ বাড়ায় এবং রক্তে সুগারের লেভেল নিয়ন্ত্রনে থাকে।

২. হার্ট ভালো রাখে (Heart keeps well) 

হার্ট ভালো রাখে

এফ.ডি.এ অনুসারে, নিয়মিত ১.৫ গ্রাম ওজনের কাঠ বাদাম খেলে হার্ট ভালো থাকে। পুষ্টি ভরপুর কাঠ বাদাম হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করে। এই বাদামগুলি ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ, যা হার্ট অ্যাটাক এবং উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধ করতে সক্ষম।

২০১৫ সালে আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশন গবেষণায় দেখা যায়, নিয়মিত খাবারের তালিকায় এই বাদাম থাকলে, এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা এবং ওজন বৃদ্ধির ঝুঁকি হ্রাস পায়।

আরও পড়ুন । নিয়মিত চিনা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা

৩. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উচ্চ উৎস (Rich source of antioxidants)

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট

কাঠ বাদাম অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের একটি সমৃদ্ধ উৎস, এবং বেশিরভাগ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট তাদের বাদামী ত্বকে উপস্থিত থাকে। বাদামের অপরিহার্য স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলির মধ্যে একটি হল এটি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলি শরীরকে ক্ষতিকর অক্সিডেটিভ স্ট্রেস এবং সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করতে পারে।

৪. ওজন নিয়ন্ত্রণ (Weight control) 

ওজন নিয়ন্ত্রণ

কাঠ বাদাম স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখার জন্য উপকারী। প্রোটিন, ফাইবার এবং ফ্যাট সমৃদ্ধ এই খাবারটি আপনার খিদে সন্তুষ্ট করতে সক্ষম। বাদামে রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম, যা রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে এবং যা অতিরিক্ত খুদা হ্রাস করার চাবিকাঠি।

Key point: কাঠ বাদাম বডির কোলেস্টেরল শোষণ বন্ধ করতে সক্ষম এবং প্রচুর ওজন হ্রাস করতে কার্যকারী। কারণ বাদামগুলি স্বাভাবিক ভাবেই উচ্চ ক্যালোরি।

৫. ক্যান্সার প্রতিরোধ (Cancer prevention) 

ক্যান্সার প্রতিরোধ

কাঠ বাদামে রয়েছে বিশেষ ধরণের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যা ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে। গবেষকরা মনে করছেন, চীনা বাদাম, আখরোট এবং কাঠ বাদাম স্তন ক্যান্সারের সুরক্ষা কবজ।

Notes: কাঠ বাদামে অ্যালার্জি হওয়ার সম্ভবনা বেশি। অ্যালার্জি আক্রান্ত ব্যক্তিদের না খাওয়াই ভালো ।

৬. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে (Relieves constipation) 

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে

কাঠ বাদাম এক ধরণের আঁশ রয়েছে, যা কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে।

Notes: অত্যাধিক পরিমাণে খেলে আবার অন্য সমস্যা হতে পারে ।

৭.  রক্তের কোলেস্টেরল উন্নত করতে পারে (Can Improve Blood Cholesterol)

রক্তের কোলেস্টেরল

রক্তের কোলেস্টেরলের উপর কাঠ বাদামের যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে।  দুই ধরণের কোলেস্টেরলের মধ্যে এলডিএল কোলেস্টেরল খারাপ কোলেস্টেরল হিসাবে চিহ্নিত, যাতে হৃদরোগের ঝুঁকি রয়েছে। কাঠ বাদাম রক্তের এই খারাপ কোলেস্টেরল মাত্রা কমিয়ে আনতে পারে।

৮. গর্ভস্থ শিশুর জন্মকালীন সমস্যা হ্রাস (Reduces fetal problems) 

গর্ভস্থ শিশুর জন্মকালীন সমস্যা হ্রাস

কাঠবাদাম ফলিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন বি। যা গর্ভস্থ শিশুদের জন্মকালীন সমস্যা হওয়ার সম্ভবনা কম। তাই গর্ভবতী মায়েদের নিয়মিত কাঠ বাদাম খাওয়া উচিত।

৯. ভিটামিন ই এর ভালো উৎস (Source of Vitamin E)

ভিটামিন ই

বাদাম হল ভিটামিন ই এর একটি ভালো উৎস। বাদামে প্রোটিন এবং পর্যাপ্ত ভিটামিন ই আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখে। ভিটামিন ই ফ্যাট-দ্রবণীয় অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের একটি পরিবার। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলি আপনার শরীরের কোষের ঝিল্লিতে তৈরি হতে থাকে, আপনার কোষগুলিকে অক্সিডেটিভ ক্ষতি থেকে রক্ষা করে।

১০. অন্যান্য স্বাস্থ্যের উপকারিতা (Other health benefits) 

অন্যান্য স্বাস্থ্যের উপকারিতা

কাঠ বাদামে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। যা গ্যাস্ট্রিক সমস্যা দূরে রাখে পাশাপাশি ডায়াবেটিসের সঙ্গে লড়াই করার ক্ষমতা রাখে। প্রাইবায়োটিকগুলি অ-পচনশীল খাদ্য পদার্থ, যা অভ্যন্তরীণ এলাকা ভালো ব্যাকটেরিয়া হিসাবে খাদ্য সরবরাহ করে এবং স্বাস্থ্যকর ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করে।

Key Point: কাঠ বাদামে রয়েছে ভিতামিন ”সি” যা ত্বক সুন্দর রাখতে অতুলনীয়।

আরও পড়ুন । স্বাস্থ্য এবং রূপচর্চায় মধুর উপকারিতা ও ব্যবহার

তাহলে দেখলেন তো কাঠ বাদাম খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে কতটা জরুরী। তাহলে নিয়মিত খাবারের তালিকায় নিউট্রিশনে ভরপুর কাঠ বাদাম আজ থেকেই যোগ করুন।

কাঠ বাদাম খাওয়ার নিয়ম

কাঠ বাদাম খাওয়ার নিয়ম (Rules for eating Almonds nuts)

কাঠ বাদাম কাঁচা খাওয়া যায় আবার জলে ভিজিয়েও খাওয়া যায়। তবে পুষ্টিবিদের মতে সারারাত জলে ভিজিয়ে রেখে বাদাম খেলে বেশি উপকারিতা পাওয়া যায়।

কাঠ বাদাম

দৈনিক কতটুকু কাঠ বাদাম খাওয়া উচিত (How much Almonds nuts eaten daily)

মার্কিন যুক্ত রাষ্ট্রের কৃষি বিভাগের গবেষণা মতে দৈনিক ১০ থেকে ১৩ টি কাঠ বাদাম খাওয়া যেতে পারে।

কাঠ বাদাম

কাঠ বাদামের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া (Side effects of Almonds nuts)

নির্দিষ্ট পরিমাণে কাঠ বাদাম খেলে যেমন উপকার পাওয়া যাবে ঠিক তেমন অতিরিক্ত পরিমাণে গ্রহণ করলে এর কিছু সাইড এফেক্ট রয়েছে। যেমন-

  1. অ্যালার্জির সমস্যা হতে পারে।
  2. অতিরিক্ত পরিমাণে গ্রহণ করলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা হতে পারে।
  3. অতিরিক্ত পরিমাণে গ্রহণে ওজন বাড়তে পারে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. নিয়মিত কত পরিমাণ কাঠ বাদাম খাওয়া উচিত?

A. রোজ ১০ থেকে ১৩ টি কাঠ বাদাম খাওয়া উচিত।

Q. নিয়মিত কাঠ বাদাম গ্রহণ করলে কি উপকার পাওয়া যাবে? 

A. নিয়মিত কাঠ বাদাম খেলে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ হবে। ওজন নিয়ন্ত্রণ হবে, ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কম হয়।

Q. কাঠ বাদাম খাওয়া কোন সময়ে বেশি ভালো? 

A. কাঠ বাদাম আপনি সকালে ব্রেকফাস্টের সাথে খেতে পারেন।

Q. কাঠ বাদাম কি হার্টের জন্য ভালো? 

A. হ্যাঁ, কাঠ বাদাম হার্টের জন্য খুব ভালো।

Q. অতিরিক্ত পরিমাণ কাঠ বাদাম খেলে কি ক্ষতি হবে? 

A. অ্যালার্জির সমস্যা হতে পারে।

2 Comments

  1. কাঠ বাদাম, কাজু বাদাম, পেস্তা বাদাম, চিনা বাদাম প্রতিদিন খেতে চাইলে কি নিয়মে খেতে হবে? উপকারিতা কি?

    • নিয়মিত স্ন্যাক্স হিসাবে খেতে পারে তবে অল্প পরিমাণে। অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া উচিত নয়।

Leave A Reply

Please enter your comment!
Please enter your name here