অ্যালার্জি প্রতিরোধঃ ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জির চিকিৎসা

অ্যালার্জি

অ্যালার্জি বর্তমানে খুব পরিচিত একটি রোগ। এই সমস্যাটি ভিন্ন কারণে হয়ে থাকে। অনেকের ধুলোবালির জন্য আবার অনেকের কোন খাবারে অ্যালার্জি হয়। তাই এই সমস্যার চিকিৎসার জন্য সর্বপ্রথম আমাদের জানতে হবে অ্যালার্জির মূল কারণ। কোন জিনিসের জন্য আমাদের অ্যালার্জি হচ্ছে। তারপর এর চিকিৎসা শুরু করতে হবে। ঔষধ বেশি খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। কিছু প্রাকৃতিক উপাদান রয়েছে যার মাধ্যমে আমরা অ্যালার্জি প্রতিরোধ করা যেতে পারে।

অ্যালার্জি

আজ এই নিবন্ধটিতে আমরা আপনাদের কিছু ঘরোয়া টোটকা দেব যা আপনাদের অ্যালার্জি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করবে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যায় ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জি প্রতিরোধ করার টিপস।

Read more: চর্মরোগ |একজিমা কি

অ্যালার্জি কি

অ্যালার্জি কি (What are allergies) 

অ্যালার্জি একটি সংবেদনশীল প্রতিক্রিয়া। অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়া সৃষ্টিকারী উপাদানগুলি হ’ল অ্যালার্জেন। বিভিন্ন ধরণের অ্যালার্জি রয়েছে। কিছু অ্যালার্জি মৌসুমী এবং অন্যগুলি সারা বছর জুড়ে হয়ে থাকে।

Read more: র‍্যাশ থেকে মুক্তির উপায়

অ্যালার্জির কারণ

অ্যালার্জির কারণ (Causes of allergies) 

প্রতিদিন ভ্রমণের সময় গাছপালা, ধূলিকণা, মাটি, পোষা প্রাণী, ওষুধ এবং খাবারের আইটেম ইত্যাদির কারণে অ্যালার্জি হতে পারে। অ্যালার্জি বিভিন্ন কারণে হয়। যেমন –

  • কিছু লোক ফুল ছোঁয়াতে অ্যালার্জি করে।
  • কিছু লোকের ধুলো থেকে অ্যালার্জি হয়।
  • কিছু মানুষের খাবার থেকে অ্যালার্জি হয়।
  • পলিথিন এবং নাইলন থেকেও অ্যালার্জি হতে পারে।
  • প্রসাধনী ব্যবহার অ্যালার্জি প্রতিক্রিয়া হতে পারে।

Read more: সাইনাস থেকে মুক্তির উপায়

ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জির চিকিৎসা (10)

অ্যালার্জির লক্ষণ (Symptoms of allergies) 

অ্যালার্জির লক্ষণগুলি হল –

  • দেহ চুলকানি
  • লাল ফুসকুড়ি
  • ত্বকের লালচেভাব
  • অ্যালার্জির কারণে একজিমা নামক রোগও দেখা দেয়।
  • মুখ, ঠোঁট এবং চোখ ফোলা।

Read more: সাইনাসের লক্ষণ

ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জি প্রতিরোধ (Prevention of allergies at home) 

চিকিৎসার পাশাপাশি অ্যালার্জি থেকে মুহূর্তের মধ্যে রেহাই পেতে ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জি প্রতিরোধ করার জন্য টিপস নীচে রইল-

১. আপেল সাইডার ভিনিগার (Apple cider vinegar) 

ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জির চিকিৎসা

উপকরণ (Ingredient)

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • প্রথমে এক কাপ জল গরম করে নিন।
  • এবার উষ্ণ গরম জলে এক টেবিল চামচ আপেল সাইডার ভিনিগার ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।
  • এবার তুলোর বলে এই মিশ্রণটি নিয়ে অ্যালার্জি আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে রাখুন।
  • শুকিয়ে এলে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলবেন।

অ্যালার্জি হওয়ার সময় দিনে দুইবার ব্যবহার করে দেখবেন উপকৃত হবেন।

Key point: আপেল সাইডার ভিনিগারে রয়েছে এসিটিক এসিড, যা ত্বকের অ্যালার্জি দূর করে এবং ইনফেকশনের হাত থেকে রক্ষা করে। 

২. তুলসীপাতা (Basil leaves)

তুলসীপাতাঃ

উপকরণ (Ingredient)

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • কয়েকটি তুলসীপাতা নিয়ে ভালোভাবে জল দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • এবার তুলসীপাতাগুলি ভালোভাবে পেস্ট করে সঙ্গে আদার রস মিশিয়ে নিন।
  • এবার এই পেস্টটি যেখানে অ্যালার্জি হয়েছে সেই জায়গায় লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট বাদে ধুয়ে নিন। ভালো ফল পেতে দিনে কয়েকবার ট্রাই করে দেখুন।

Key point: তুলসীর অ্যান্টি- ইনফ্লেমেটরি ত্বকের অ্যালার্জির দূর করতে সক্ষম।

৩.অ্যালোভেরা (Aloe vera) 

অ্যালোভেরাঃ

উপকরণ (Ingredient)

  • অ্যালোভেরা জেল।

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • প্রথমে অ্যালোভেরা গাছের পাতা নিন।
  • এবার পাতার ভেতর থেকে জেল বের করে অ্যালার্জি আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে নিন।
  • ২৫-৩০ মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন। দিনে তিনবার ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন।

Key point: অ্যালোভেরা জেল অ্যালার্জির জ্বালাভাব থেকে রেহাই দেয়।

Read more:

৪. নিমপাতা (Neem leaves) 

নিমপাতাঃ

উপকরণ (Ingredient)

  • কয়েকটি নিমপাতা।
  • আদা।

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • কয়েকটি নিমপাতা নিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার জলে ধুয়ে নিন।
  • এবার পরিষ্কার করা নিমপাতাগুলি সঙ্গে আদা নিয়ে পেস্ট করে নিন।
  • এবার পেস্টটি অ্যালার্জি আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে ২০-২৫ মিনিট পর ধুয়ে নেবেন।
  • দিনে এটা ততবার বার লাগবেন যতক্ষণ না অ্যালার্জি নিরাময় হচ্ছে।

Key point: নিম অ্যান্টি- প্রদাহজনক ক্রিয়াকলাপের সঙ্গে অ্যালার্জি নিরাময় করতে সক্ষম।

৫. নারকেল তেল (Coconut oil) 

নারকেল তেলঃ

উপকরণ (Ingredient)

  • অল্প পরিমাণে খাঁটি নারকেল তেল নেবেন।

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • অল্প পরিমাণে নারকেল তেল নিয়ে গরম করে নিন।
  • এবার নারকেল তেল কয়েক মিনিট হাতের তালুতে ঘসে নিয়ে অ্যালার্জি জায়গায় লাগিয়ে রাখুন।
  • ৩০ মিনিট পর ধুয়ে নিন। দিনে ৩-৪ বার ব্যবহার করবেন।

Key point: নারকেল তেল স্ক্রিন অ্যালার্জির একটি দুর্দান্ত প্রতিকার।

৬. আদা (Ginger) 

আদা (Ginger

উপকরণ (Ingredient)

  • ছোট পরিমাণ আদার টুকরো।
  • এক কাপ জল।

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • এক কাপ জলে ছোট পরিমাণ আদার টুকরো নিয়ে ভালোভাবে ফোটান।
  • এবার আদা মিশ্রিত জলটি ঠাণ্ডা হয়ে গেলে ছেঁকে অন্য পাত্রে তুলে রাখুন।
  • একটি তুলোর বল নিয়ে আদার জলটি অ্যালার্জি আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে রাখুন।
  • ৩০ মিনিট পর পরিষ্কার করে নিন। দিনে কয়েকবার করলেই দেখবেন অ্যালার্জি কমে যাবে।

Key point: আদায় অ্যান্টি- ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টিমাইক্রোবাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা অ্যালার্জি চিকিৎসার ভালো মাধ্যম।

৭. লেবুর রস (Lemon juice) 

লেবুর রস (Lemon juice) 

উপকরণ (Ingredient)

  • এক কাপ গরম জল।
  • একটি পাতিলেবু।

Read more: ফোস্কা থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়

ব্যবহার করবেন যেভাবে (How to use) 

  • প্রথমে জল উষ্ণ গরম করে নিন।
  • এবার গরম জলে লেবুর রস মিশিয়ে নেবেন ভালোভাবে।
  • একটি তুলোর বল দিয়ে অ্যালার্জি আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে রাখুন।
  • শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নেবেন। দিনে দুবার ব্যবহার করলে ফল বুঝতে পারবেন।

Key point: লেবুর রসে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি গুণ রয়েছে, যা ত্বকের ব্যাকটেরিয়া দূর করে পাশাপাশি অ্যালার্জি কম করে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জি প্রতিরোধ করা কি সম্ভব?

A. উপরের পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করুন ভালো ফল পাবেন।

Q. ঘরোয়া পদ্ধতি চিকিৎসা করলে কি ডাক্তারের চিকিৎসার প্রয়োজন নেই?

A. ঘরোয়া পদ্ধতিতে অ্যালার্জি কমে গেলে প্রয়োজন নেই, তবে না কমলে অবশ্যই আপনাকে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে।

Q. অ্যালার্জি চিকিৎসায় নিম কি ব্যবহার করা ভালো?

A. নিম খুব ভালো একটি উপাদান। অনেক রোগব্যাধি কমাতে সক্ষম। আর অ্যালার্জির জন্য নিমপাতা খুব উপকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here