ঘরোয়া পদ্ধতিতে ফোস্কা থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়

ফোস্কা থেকে মুক্তি

ফোস্কা থেকে মুক্তি

সূত্র :- travelpast50 . com

আমরা নিজেদের ভালো দেখতে লাগার জন্য ত্বকের অনেক যত্ন এবং বলা যায় নিজেদের সুন্দর দেখানোর জন্য কঠোর পরিশ্রম করে থাকি। মুখের উপর আমাদের কোনো গোটা অথবা ব্রণ হলে সেটা ঠিক করার জন্য নানা ধরণের প্রোডাক্ট বা প্রাকৃতিক উপায়ে ব্যবহার করি। তবে পায়ের জন্য আমরা কতটা পরিশ্রম করি বলুন তো? মুখ এবং হাতের সঙ্গে সঙ্গে পা আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তাই শুধু মুখের যত্ন নিলেই হবে না বরং পাশাপাশি আমাদের পায়ের যত্নও নিতে হবে। অনেক সময় আমাদের পায়ে ফোস্কা পড়ে তবে আমরা তা অবহেলা করি। আমাদের হাতের সামনেই কয়েকটি উপাদান রয়েছে যা ফোস্কা থেকে মুক্তি দেয়।

অনেক সময় আমাদের জুতো পড়লে অথবা নতুন জুতো পায়ে দিলে ফোস্কা পড়ে বা তাপমাত্রা জনিত কারণে, পায়ের ক্ষত জনিত কারণে ফোস্কা পড়ে থাকে। যার ফলে পায়ে জ্বালা করে এবং পা ফুলে ওঠে। হাঁটতে অসুবিধা হয়। দেখতে তো খারাপ লাগেই। ঘরোয়া পদ্ধতিতে এমন কয়েকটি উপাদান রয়েছে যা ফোস্কা দূর করতে সহায়তা করে। তাই আজকের এই নিবন্ধে আমি আপনাদের ঘরোয়া কিছু টোটকা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব যাতে আপনারা পায়েরও যত্ন নিতে পারেন এবং পায়ের ফোস্কা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

ফোস্কা থেকে মুক্তি থেকে মুক্তি পেতে কিছু ঘরোয়া টোটকাঃ

  1. গ্রিন টিঃ

গ্রিন টিঃ

সূত্র :- cdn1.medicalnewstoday . com

গ্রিন টি তে রয়েছে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান যা পায়ের ব্যথা হ্রাস করে এবং পায়ের ফোস্কা থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে। এক কাপ গরম জলে ৪-৫ মিনিট গ্রিন টির ব্যাগ ডুবিয়ে রাখুন। ৫ মিনিট পর টি ব্যাগটি বের করে নিন এবং ঠাণ্ডা করে নিন। এবার এই ঠাণ্ডা টি ব্যাগটি পায়ের ফোস্কার উপর রেখে দিন। দিনে ৩-৪ বার একই ভাবে ব্যবহার করলে উপকৃত হবে।

  1. অ্যালোভেরাঃ

অ্যালোভেরাঃ

পায়ের ফোস্কা থেকে মুক্তি পাওয়ার আরেকটি উপায় হল অ্যালোভেরা। আমরা সবাই জানি অ্যালোভেরায় অ্যান্টি- ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল গুণ রয়েছে। তবে আপনি জানেন কি এই দুটি উপাদান ত্বক প্রদাহকে কমাতে সহায়তা করে পাশাপাশি ফোস্কা কমাতে সহায়তা করে। অ্যালোভেরা জেল পায়ের ফোষ্কার উপর লাগিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট বাদে হালকা উষ্ণ গরম জলে ফোস্কা আক্রান্ত অংশে পরিষ্কার করে নিন।

  1. ক্যাস্টর অয়েলঃ

ক্যাস্টর অয়েলঃ

পায়ের ফোস্কা ঠিক করার জন্য ক্যাস্টার অয়েল একটি কার্যকারী উপাদান। এটি ফোস্কা আক্রান্ত অংশ ময়শ্চারাইজ করে যার ফলে জ্বালা হ্রাস হয় এবং ফোস্কা দ্রুত সেরে যায়। ঘুমাতে যাওয়ার আগে একটি তুলোর বলে ক্যাস্টার অয়েল নিয়ে ফোস্কার উপর লাগিয়ে রাখুন। ২-৩ দিন এইভাবে ব্যবহার করলে খুব দ্রুত ফোস্কা শুকিয়ে যাবে এবং নিরাময় হবে।

  1. আপেল সাইডার ভিনিগারঃ

আপেল সাইডার ভিনিগারঃ

আপেল সাইডার ভিনিগারে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা পায়ের ফোস্কা দূর করতে সক্ষম এবং ইনফেকশন কমাতে সহায়তা করে। একটি পাত্রে আপেল সাইডার ভিনিগার নিয়ে তার সঙ্গে জল মিশিয়ে নিন। এবার একটি তুলোয় করে ফোস্কার উপর লাগিয়ে

  1. টি ট্রি অয়েলঃ

টি ট্রি অয়েলঃ

টি ট্রি অয়েল অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি- এজেন্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাই এটি পায়ের ফোস্কা দূর করতে উপকারী। রাখুন। শুকিয়ে গেলে হালকা উষ্ণ গরম জলে পরিষ্কার করে নিন। একটি কাপে জল এবং নারকেল তেল এবং কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিন। একটি তুলোর বলে নিয়ে ফোস্কা আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে নিন। যাতে ফোস্কা দ্রুত সেরে ওঠে।

পায়ে ফোস্কা পড়লে উপরের এই ৫ টি টোটকা অনুশীলন করুন। আশা করি খুব দ্রুত উপকৃত হবেন।

পায়ের ফোস্কা অবহেলা করলে ইনফেকশন হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। তাই ত্বকের সাথে সাথে পায়ের যত্ন নেওয়া দরকার।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

প্রঃ অ্যালোভেরা জেল পায়ের ফোস্কা কি সত্যিই দূর করে?

উঃ যেহেতু অ্যালোভেরায় অ্যান্টি- ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে তাই এটি ফোস্কা দূর করতে কার্যকর।

প্রঃ নারকেল তেল দিলে ফোস্কা কমায়?

উঃ নারকেল তেলের সাথে টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে ব্যবহার করলে দ্রুত কাজ দেবে। উপরের টি ট্রি অয়েলের টোটকা অনুশীলন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here