ভেষজ চিকিৎসাঃ শুষ্ক ত্বকের জন্য ৬ টি ভেষজ চিকিৎসা

শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসা

যেকোনো বয়সের জন্য শুষ্ক ত্বক একটি খুব সাধারণ সমস্যা। বিশেষত যাদের শুষ্ক ত্বক তারা শীতকালে ত্বকের ভিন্ন ধরণের সমস্যায় পড়েন। ভেষজ চিকিৎসা শুষ্ক ও রুক্ষ ত্বকের জন্য কিন্তু সেরা উপায়। তার জন্য আমাদের বেশি খরচের প্রয়োজন হয় না। প্রাকৃতিক কিছু উপাদানের হাত ধরেই আমরা করে নিতে পারি শুষ্ক ত্বকের সমস্যার সমাধান।

শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসা

এখানে শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসার জন্য আপনাদের কিছু ভেষজ চিকিৎসার টিপস দেওয়া হল যা খুব সহজেই বাড়িতে বসে করে নিতে পারবেন। তাহলে আসুন দেখে নেওয়া যাক শুষ্ক ত্বকের জন্য ৬ টি ভেষজ চিকিৎসা।

Read more: হারবাল ফেসিয়ালের উপকারিতা এবং ব্যবহার

Herbal Treatment

ভেষজ চিকিৎসা (Herbal Treatment)

ভেষজ চিকিৎসা অথবা আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা হিসাবে পরিচিত। স্বাস্থ্যকর বা অসুস্থ ব্যক্তিদের জন্য আয়ুর্বেদের সামগ্রিক দৃষ্টিভঙ্গি অন্য কোনও চিকিৎসা বিজ্ঞানের সাথে তুলনা করা যায় না। ভেষজ চিকিৎসার মূল লক্ষ্য হল রোগকে রোগ থেকে রক্ষা করা এবং সুস্থ রাখা।

Read more: শসার পুষ্টিগুণ

শুষ্ক ত্বকের জন্য ভেষজ চিকিৎসা (Herbal Treatment for dry skin)

  1. পেঁপে (Papaya) 

পেঁপে

পেঁপে ভিটামিন এ সমৃদ্ধ একটি ফল, যা ত্বকের জন্য অপরিহার্য। পেঁপে ত্বকের শুষ্কতা প্রতিরোধ করে। পেঁপের রস স্ক্রাব হিসাবে আপনি ব্যবহার করতে পারেন। পেঁপের রস পেস্ট করে মুখে হালকাভাবে ধীরে ধীরে মাসাজ করুন। পেঁপে আপনি নিয়মিত ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন। কারণ এর কোন সাইড এফেক্ট নেই।

Read more: সাইনাস থেকে মুক্তির উপায়

  1. অ্যালোভেরা (Aloe vera) 

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা এমন একটি উপাদান যা চামড়া এবং চুলের জন্য অত্যন্ত উপকারী। এটি চটজলদি যেকোনো সমস্যায় কাজ করে। শুষ্ক ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে এবং ময়শ্চারাইজারের কাজ করে। অ্যালোভেরার পাতার জেল মুখের শুষ্ক ভাব কমিয়ে ত্বক ব্রাইট করে এবং করে তোলে গ্লোয়িং।

আপনি বাড়িতে দই এবং অ্যালোভেরার প্যাক বানিয়ে নিতে পারেন। এক চামচ দই এবং অ্যালোভেরা পাতার জেল নিয়ে ভালোভাবে মিশ্রিত করে একটি প্যাক তৈরি করুন। এবার প্যাকটি পুরো মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করে পরিষ্কার করে নিন। এতে ত্বকের শুষ্কতা দূর হবে।

Read more: বডি স্পা

কলা ও মধু (Banana and honey)

কলা ও মধু

কলা এবং মধু শুষ্ক ত্বকের জন জন্য চমৎকার ভেষজ চিকিৎসা। এটি ত্বকের শুষ্ক ভাব দূর করে এবং ত্বক করে তোলে লাবণ্যময়। আপনার চামড়া যদি অতিরিক্ত ড্রাই হয়। এক চামচ কাঁচা মধু এবং দুই চামচ পাকা কলা ভালোভাবে মিশিয়ে নিন এবং ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পরিষ্কার করে নিন। মাত্র কয়েক সপ্তাহ ব্যবহার করলে ত্বক শুষ্কতা দূর হবে।

  1. চন্দন গুঁড়ো (Sandalwood powder) 

চন্দন গুঁড়োঃ

চন্দনের পেস্ট একটি অসাধারণ ভেষজ চিকিৎসা। প্রাচীনকাল থেকে চন্দনের গুঁড়ো আয়ুর্বেদিক এবং ভিন্ন ধরণের পণ্য সামগ্রীতে ব্যবহার হয়ে আসছে। আর বলাই বাহুল্য শুষ্ক ত্বকের জন্য চন্দন একটি কার্যকারী উপাদান। চন্দনের গুঁড়োর সঙ্গে গোলাপ জল মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের মৃত কোষগুলি দূর হয় এবং একটি ফ্রেস ও গ্লোয়িইং ত্বক পাওয়া যায়।

Read more: গরমে ত্বক উজ্জ্বল করার উপায় 

  1. শসা ও টমেটো (Cucumbers and tomatoes) 

শসা ও টমেটোঃ

শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসায় টমেটো এবং শসা ব্যবহার করা হয়। এই উপাদানগুলি রুক্ষ ও শুষ্ক ত্বক দূরে রেখে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সহায়তা করে। এছাড়া শসা এবং টমেটো এই দুটি উপাদান শুধু ত্বক হাইড্রেট রাখে না বরং ত্বক পরিষ্কার করে। ভালো ফল পেতে শসা এবং টমেটো পেস্ট করে মুখে লাগান।

Key point: শসা এবং টমেটো জল সমৃদ্ধ যা ত্বকে আর্দ্রতা বজায় রাখে।

  1. নিমপাতা (Neem leaves) 

নিমপাতা

নিমপাতাগুলি শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসা সহায়তা করে এবং এছাড়া নিমাপাতায় ব্যাকটেরিয়া বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে। নিমপাতা শুধুমাত্র শুষ্ক ত্বকের জন্য উপকারী নয় বরং এটি ত্বকের ব্রণ দূর করতে সক্ষম। নিমপাতা পেস্ট ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের শুষ্কতা রোধ করে।

Read more: র‍্যাশ থেকে মুক্তির উপায়

ভেষজ চিকিৎসা অন্যান্য সমস্ত চিকিৎসাকে হার মানায়। তাই আপনি যদি চান নিজেকে সুন্দর এবং সুস্থ রাখবেন তাহলে নিশ্চিন্তে ভেষজ উপাদানের উপর ভরসা রাখুন।

Key point: ভেষজ চিকিৎসার কোন সাইড এফেক্ট নেই।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. ভেষজ চিকিৎসার কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে?

A. ভেষজ চিকিৎসার কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই ।

Q. দই শুষ্ক ত্বকের জন্য কি উপকার?

A. হ্যাঁ, দই শুষ্ক ত্বকের জন্য খুব উপকারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here