জেনে নিন হারবাল ফেসিয়ালের উপকারিতা এবং ব্যবহার

facial

facial

সূত্রঃ- 5.imimg . com

আধুনিক যুগে নারীরা সবাই চায় নরম এবং গ্লোয়িং ত্বক। নিজেদের সুন্দর করতে আমরা মাসে এক বা দুই বার পার্লারে ফর্সা হওয়ার ফেসিয়াল করে থাকি। কিন্তু আপনি জানেন কি হারবাল ফেসিয়াল একটি ভেষজ ফেসিয়াল। যার কোন সাইড এফেক্ট নেই। এই ফেসিয়াল আপনি বাড়িতেই বসে করে নিতে পারেবন। অবাক হছেন নিশ্চয়ই। কিন্তু এতাই সত্য। আপনার রান্নাঘরে রয়েছে কিছু উপাদান যা দিয়ে আপনি হারবাল ফেসিয়াল বানিয়ে নিতে পারবেন। রূপচর্চায় এই ফেসিয়ালের উপকারিতাও রয়েছে। ত্বক গ্লো করে তুলতে এর জুরি মেলা ভার। কিন্তু পার্লারের কেমিক্যালযুক্ত হারবাল প্রোডাক্টে পিম্পেল এর সমস্যা হতে পারে। তাই ঘরে বসেই খুব সহজেই করে নিন হারবাল ফেসিয়াল। তাই এই আর্টিকেলে আজ রইল হারবাল ফেসিয়ালের উপকারিতা এবং তার ব্যবহার।

হারবাল ফেসিয়াল কি?

facial 1

সূত্রঃ- static.punjabkesari . in

আমাদের প্রকৃতি রহস্যে পরিপূরণ। প্রাচিনকাল থেকেই রূপচর্চায় প্রাকৃতিক অমূল্য উপাদানগুলি ব্যবহার হয়ে এসেছে। আর এই প্রাকৃতিকই এক অন্যতম উপাদান হল হারবাল। হারবাল ফেসিয়াল হল সেই উপাদান যা আমাদের ত্বককে আসধারন ফল দেয় যা যে কোন নামীদামী ফেসিয়ালের থেকে প্রাপ্ত উজ্জ্বলতাকে ফিকে করে দেয়। এবং এতে আপনার ত্বকে কোনরকম ক্ষতি করে না। আপনাকে নিজের পছন্দের যে কোন হারবাল ফেসিয়াল এর কোন ফেসিয়াল কিট বেছেনিন নিজেদের স্কিন টাইপ এবং নিজেদের ত্বকের সমস্যা অনুযায়ী অথবা আপনি বাড়িতে বসেই করে নিতে পারেন। হারবাল ফেসিয়াল তৈরি হয় বিভিন্ন প্রাকিতিক উপাদান দিয়ে যেমন-পেঁপে, নিম, টোমাটো, এছারাও বিভিন্ন ফল জেমন-আম, তরমুজ ইত্যাদি।

হারবাল ফেসিয়ালের উপকারিতা

herbal facial

সূত্রঃ- auraayurvedicspa . com

হারবাল ফেসিয়াল প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয়, যার কোন সাইড এফেক্ট নেই। এটি ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা যেমন- অতিরিক্ত তৈলাক্ত, বিবর্ণ ভাব, ট্যান দূর করে ত্বক নরমাল রাখতে সাহায্য করে এবং আর্দ্রতা বজায় রাখে।

সুপারিশ নিবন্ধন :-

হারবাল ফেসিয়ালের করার জন্য উপাদানঃ

  • মধু ৩ চামচ
  • চালের গুঁড়ো ৩ টেবিল চামচ
  • ৩ চামচ চালের গুঁড়ো
  • ২ কাপ কমলালেবুর রস
  • ১/৪ কাপ পেঁপে
  • ৩ টে স্ট্রবেরি
  • গ্রিন টি পরিমাণমতো
  • কলা ২ কাপ
  • বাদাম তেল ২ চামচ
  • বরফের টুকরো
হারবাল ফেসিয়াল করার নিয়মঃ
প্রথমে ত্বক পরিষ্কার করে নিনঃ

facial 3

সূত্রঃ- www.wfa.com . au

প্রথমে জল দিয়ে ভালোভাবে মুখ পরিষ্কার করে নিন। এবার এবার আপনি চাইলে একটু আলুর রস নিয়ে মুখে ঘসে পরিষ্কার করে নিতে পারেন। আলু রস মুখের ময়লা এবং সূর্যের ট্যান খুব দ্রুত দূর করতে সাহায্য করে।

হারবাল স্ক্রাবঃ

এবার একটি পাত্রে পেঁপে পেস্ট করে তার মধ্যে চালের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ৪-৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। ৪-৫ মিনিট পর ভেজা কাপড় দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন।

স্টিমঃ

herbal facial 4

সূত্রঃ- images.herzindagi . info

গরম জলে গ্রিন টি ব্যাগ দিয়ে উষ্ণ জলে ৫ মিনিটের জন্য গরম ভাপ নিন। এতে ত্বকের ছিদ্রগুলি খুলে যাবে এবং মুখের ব্ল্যাকহেডস দূর হবে পাশাপাশি মুখের ময়লা দূর হবে। ভাপ নেওয়ার পর ৫ মিনিট মুখে বরফ ঘসে নিন। এতে ছিদ্র বন্ধ হবে এবং ত্বক তরতাজা হবে।

ময়শ্চারাইজিং

স্টিম হয়ে যাওয়ার পর এবার আপনার ত্বককে ময়শ্চারাইজিং করতে হবে। ময়শ্চারাইজিং করার জন্য আপনাকে প্রথমে মধু এবং দুধ, কমলালেবুর রস এবং কলা ভালোভাবে পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে মাসাজ করুন আপনি চাইলে বাদামের তেল যোগ করতে পারেন। ৪-৫ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করে নিন।

হারবাল ফেসিয়াল প্যাকঃ

harbar 1

সূত্রঃ- 5.imimg . com

স্ট্রবেরি, চালের গুঁড়ো এবং মধু মিশিয়ে ফেস প্যাক তৈরি করে নিন। এবার প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট বাদে পরিষ্কার জলে ধুয়ে ফেলুন। এতে ত্বকের অতিরিক্ত ময়লা এবং তৈলাক্ত ভাব দূর হবে এবং ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল। প্যাক উঠিয়ে ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করার পর ময়শ্চারাইজার ক্রিম লাগিয়ে নিন। তফাৎটা নিজেই বুঝতে পারবেন।

আশা করি হারবাল ফেসিয়ালের উপকারিতা এবং তার ব্যবহার জেনে নিলেন। এবার নিজের ত্বক ভালো রাখতে বাড়িতে বসেই করে নিন হারবাল ফেসিয়াল।

সারকথাঃ

অন্যান্য ফেসিয়ালের তুলনায় হারবাল ফেসিয়ালের সাইড এফেক্ট থাকে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here