গ্রিন টির গুণাগুণ যা আপনাদের অবশ্যই জেনে রাখা প্রয়োজন

ঘুম থেকে বিছানা ছেড়েই এক কাপ চা না খেলে দিনটাই যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায়। এক কাপ চায়ে চুমুক ব্যস্তময় জীবনে ক্লান্তি দূর করতে যথেষ্ট। আর তার সঙ্গে বাড়তি পাওনা হিসাবে আপনি যদি পেয়ে যান নীরোগ  শরীর, তাহলে কেমন হয়? চা আর স্বাস্থ্য শরীর অসম্ভব এটাই নিশ্চয়ই ভাবছেন। কিন্তু আপনি কি জানেন, এমন এক চা রয়েছে যাতে ক্লান্তির সঙ্গে শরীর সুস্বাস্থ্য রাখবে। সেটি হল গ্রিন টির ম্যাজিক। শুধু শরীরর নয় ত্বক ও চুল ভালো রাখতে গ্রিনটির গুণাগুণ অপরিসীম।

cup-hot-brown-tea-with-piece-lemon-background-plantations_97716-234

ভিন্ন ধরনের চায়ের মধ্যে গ্রিন টি স্বাস্থ্যকর পানীয়। ওজন কমাতে এর তুলনা নেই। এছাড়া এর  এমন কিছু  গুণাগুণ রয়েছে যা আপনাদের অবশ্যই জেনে রাখা উচিত। আসুন তাহলে এই নিবন্ধ থেকে জেনে নিন গ্রিন টির গুণাগুণ।

গ্রিন টি আসলে কি

গ্রিন টি আসলে কি (What is Green Tea) 

গ্রিন টি বা সবুজ চা আসলে তৈরি হয় ক্যামেলিয়া সিনেন্সিস পাতা থেকে। গ্রিন টি সাধারন চায়ের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। সাধারণ চায়ের ক্ষেত্রে  অনেক প্রক্রিয়া জাতকরণ করা হয়, গ্রিন টি ক্ষেত্রে বেশিরভাগ সময় তা হয় না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আস্ত ছোট পাতা থেকে যায়, এই ধরণের প্রক্রিয়াজাতের কারণে গ্রিন টি বেশি পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ধারণ করতে সক্ষম হয়।

আরও পড়ুন । কাঁচা ছোলার গুণঃ নিয়মিত কাঁচা ছোলা এনার্জির চাবিকাঠি

গ্রিন টির পুষ্টিগুণ

গ্রিন টির পুষ্টিগুণ (Nutritional value of green tea) 

অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ছাড়াও গ্রিন টির মধ্যে যেসমস্ত পুষ্টিগুণ রয়েছে সেগুলি হল-

  • প্রোটিন ০.২২ গ্রাম
  • ক্যালোরি ০.৯৬ ক্যালোরি
  • ম্যাগনেসিয়াম ১ মিলিগ্রাম
  • ক্যালসিয়াম
  • ম্যাঙ্গানিজ ০.১৮৪ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন সি ০.৩ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন বি 6- ০.০০৫ মিলিগ্রাম
  • খনিজ
  • আয়রন ০.০১ মিলিগ্রাম

আরও পড়ুন । শসার পুষ্টিগুণ : শসার গুণাগুণ জানলে অবাক হবেন

গ্রিন টির পুষ্টিগুণের উপকারিতা

Source

গ্রিন টির পুষ্টিগুণের উপকারিতা (Nutritional benefits of green tea) 

আরও পড়ুন । মুলার উপকারিতাঃ স্বাস্থ্যের জন্য মুলার খাওয়ার উপকারিতা

গ্রিন টির গুণাগুণ

Source

গ্রিন টির গুণাগুণ (Quality of green tea)

বর্তমানে গ্রিন টির  স্বাস্থ্য সুরক্ষার কবজ হিসাবে বেশি পরিচিত। গ্রিনটি থেকে স্বাস্থ্যের জন্য ভিন্ন ধরণের সুবিধা পাওয়া যায়। হার্ট, ওজন, ক্যান্সার এবং ডায়াবেটিসের মতো গুরুতর অসুস্থতার প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

১. ওজন কমানোর সহায়ক

ওজন কমানোর সহায়ক

Source

গ্রিন টির গুনাগুন এর মধ্যে ওজন হ্রাস করা একটি। এর মধ্যে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বিদ্যমান থাকায় বিপাক ক্রিয়া বৃদ্ধি করে ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করে। এতে উপস্থিত সক্রিয় যৌগগুলি ফ্যাট বার্ন হরমোনকে প্রভাবিত করে। এমনকি ব্যায়াম করার সময়, গ্রিন টি চর্বি হ্রাস করতে সহায়তা করে।

ইনসুলিন সংবেদনশীলতা উন্নত করে। সবুজ-টি আপনার বিপাকীয় হার বৃদ্ধি করতে পারে, এবং সর্বদা সামান্য সামান্য করে ক্যালরি কম হতে থাকে।

আরও পড়ুন । ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে মেথিঃ নিয়মিত মেথি করবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রন

২. ডায়াবেটিসদের জন্য গ্রিন টির গুণাগুণঃ 

ডায়াবেটিসদের জন্য গ্রিন টির গুণাগুণঃ 

Source

গ্রিন টি শরীরের কোষকে সংবেদনশীল করে তুলতে পারে, যাতে তারা চিনিকে ভালভাবে হজম করতে পারে এবং ডায়াবেটিসের প্রভাব কমাতে পারে। এই ভাবে, আপনি বলতে পারেন যে গ্রিন টি থেকে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস করা যেতে পারে।

একটি গবেষণার মতে, একজন ব্যক্তি প্রতিদিন ছয় বা তার বেশি কাপ চা পান করলে কয়েকটি শতাংশ দ্বারা টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কম হতে পারে।

Notes

তবে এক্ষেত্রে আপনাকে ডাক্তারের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে হবে, কারন 6 কাপ গ্রিন টি একদিনের জন্য স্বাস্থ্যের জন্য উপযুক্ত নয়।

 

 

 

 

৩. ইমিউন সিস্টেম

ইমিউন সিস্টেম

Source

গ্রীন-টিতে উপস্থিত ক্যাচচিনগুলি ইমিউন ফাংশন বৃদ্ধি করার একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। গ্রীন টিতে ইজিসিজি রেগুলেটরি উপস্থিত, যা টি কোষগুলিকে বাড়ায় এব ইমিউন ফাংশন নিয়ন্ত্রণ রোগগুলি ক্রমবর্ধমান হতে বাধা দেয়।

আরও পড়ুন । দ্রুত দৌড়ানোর কৌশলঃ কিভাবে দ্রুত দৌড়াবেন জেনে রাখুন

৪. হাড়ের ক্ষয় রোধ করেঃ

হাড়ের ক্ষয় রোধ করেঃ

Source

গ্রিন টিতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলি হাড়ের ক্ষয় থেকে আমাদের রক্ষা করে এবং হাড়কে শক্ত করে হাড় ভাঙ্গার সম্ভাবনা হ্রাস করে। গবেষণায় দেখা গেছে যে গ্রিন টি যদি সঠিক সময়ে সঠিক পরিমাণে পান করা যায় তবে হাড়ের শক্তি এবং গুণমান আরও উন্নত হবে।

৫. দেহ ফিট রাখেঃ

fitt-768x512

Source 

চায়ের পরিবর্তে যদি নিয়মিত গ্রিন টি পান করা যায় তাহলে বডি ফিট থাকে। কারণ এতে উপস্থিত অ্যান্টি আক্সিডেন্ট শরীরে মেদ জমতে বাঁধা দেয়। পাশাপাশি শরীর সুস্থ রাখে।

আরও পড়ুন । জন্ডিস কেন হয়, জন্ডিসের লক্ষণ এবং চিকিৎসা 

৬. ত্বক এবং চুলের জন্য গ্রিন টির গুণাগুণ

ত্বক এবং চুলের জন্য গ্রিন টির গুণাগুণ

Source

নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে ত্বক ভালো থাকে। ডার্ক সার্কেল রিমুভ করতে সহায়তা করে পাশাপাশি চুলের জন্য গ্রিন টি কার্যকারী। হেনার সাথে গ্রিন টি প্রয়োগ করলে চুল ভালো থাকে।

সুস্থ থাকতে চায়ের পরিবর্তে গ্রিন টি খান এবং সুস্থ থাকুন। আশা করব গ্রিন টি নিবন্ধটি আপনাদের ভালো লাগবে।

Key point

চিনে এই পানীয়টির উৎপত্তিস্থল। প্রাচীনকালে ভারতে গ্রিন টি ঔষধ হিসাবে ব্যবহার করা হত।

 

 

 

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. নিয়মিত গ্রিন টি খাওয়া কি ভালো? 

A. নিয়মিত গ্রিন টি খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে এটি বিপদজনক হতে পারে। যেমন গর্ভবতী অবস্থায়, রক্তস্বল্পতায় ভোগা রোগীদের ক্ষেত্রে গ্রিন টি ভালো নয়।

Q. গ্রিন টি খাওয়ার সবচেয়ে ভালো সময় কোনটি? 

A. সকালে ওয়ার্কআউটের আগে।

Q. গ্রিন টি ত্বকের জন্য কি উপকারি? 

A. গ্রিন টিতে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে উপকারি।

Q. ওজন কমানোর জন্য দৈনিক কতটা গ্রিন টি পান করা প্রয়োজন? 

A. ওজন কমানোর জন্য দিনে ২ থেকে ৩ কাপ গ্রিন টি পান করা প্রয়োজন।

1 Comment

Leave A Reply

Please enter your comment!
Please enter your name here