বাচ্চাদের জন্য গ্যাজেট এর ক্ষতিকারক প্রভাব

গ্যাজেটের ক্ষতিকারক প্রভাবঃ

গবেষণায় দেখা গেছে যে, শিশুরা অর্ধেকটা সময় কাটিয়ে দেয় বিভিন্ন গ্যাজেটের সঙ্গে যেমনমোবাইল, টিভি, আইপড ইত্যাদি। তারা বিভিন্ন কারনে এই গ্যাজেটগুলো ব্যবহার করে থাকে। গেম খেলার জন্য, কার্টুন দেখার জন্য, ভিডিও দেখার জন্য গান শোনার জন্য। বাচ্চারা বেশিরভাগ সময়টা এই সব  গ্যাজেটে মেতে থাকার জন্য তারা পড়াশুনো, খেলাধুলো, স্বাস্থ্যের দিকে মনোযোগী হতে পারে না। যার ফলে তাদের স্বাস্থ্যের ক্ষতির সঙ্গে তাদের দৃষ্টিশক্তি কমে যাছে। বর্তমান যুগে এই সমস্ত আধুনিক গ্যাজেটের থেকে আমরা বাচ্চাদের দূরে সরিয়ে রাখতে পারছি না।

গ্যাজেটের ক্ষতিকারক প্রভাবঃ

সূত্র :- earlytechnews . wordpress . com

গ্যাজেটের ক্ষতিকারক প্রভাবঃ

বাচ্চাদের ইলেকট্রনিক গ্যাজেটের থেকে দূরে সরিয়ে রাখাটাই উচিত। শিশুরা স্মার্ট ফোন, আইপ্যাড, টিভিতে অভ্যস্ত হয়ে পড়লে তাদের শারীরিক সমস্যা দেখা দেবে। কানে কম শুনতে বা চোখে কম দেখতে পাবে।

প্রায় শতকরা ৭০ ভাগ বাচ্চদের বাবা মায়েরা কম বয়সী সন্তানদের হাতে গ্যাজেট তুলে দেন। এটা যে বাচ্চাদের পক্ষে ক্ষতিকর সেটার দিকে অনেক সময় নজরই দেন না। এর ফলে তারা মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকে। মোবাইল, কম্পিউটার, ল্যাপটপে অভ্যস্ত হয়ে পড়ায় বাচ্চাদের লেখাপড়ায় উন্নতি ধীর গতিতে হয়।

বাচ্চাদের জন্য গ্যাজেট

সূত্র :- techiedad . me

বাচ্চাদের জন্য গ্যাজেট

ক্ষতিকর গ্যাজেটের পরিবর্তে আমরা  খেলনা গ্যাজটের মাধ্যমে তাদের স্বাস্থ্যের ক্ষতি হওয়ার হাত থেকে দূরে রাখতে পারি।

সম্পর্কিত নিবন্ধ চেক করুন :-

  • ইলেকট্রনিক স্মার্ট ওয়াচঃ

স্মার্ট ফোনের বদলে বাচ্চাদের ইলেকট্রনিক স্মার্ট ওয়াচ কিনে দিতে পারেন। এতে স্মার্ট ফোনের মতোই সব সুবিধা রয়েছে। যেমন- বাচ্চারা ফটো তুলতে পারবে, ভিডিও রেকর্ড করতে পারবে, গেমসও  খেলতে পারবে। এতে আপনার বাচ্চা আনন্দ উপভোগ করবে। স্মার্ট ফোনের তুলনায় এটি কম ক্ষতিকারক এবং কম খরচ।

ভিডিও গেমসঃ

সূত্র :- ctvnews . ca

  • ভিডিও গেমসঃ

বাচ্চাদের জন্য গ্যাজেট হিসাবে ভিডিও গেমস রাখা যেতেই পারে। যেহেতু এই যুগের বাচ্চারা  বেশিই স্মার্ট। গেমস খেলাটা তাদের খুব পছন্দের।

সারকথাঃ

কোন কিছুই বেশিক্ষণ ব্যবহার করাটা খারাপ। তাদের চোখের পক্ষে ক্ষতিকারক। তাই খেয়াল রাখতে হবে এটা নিয়ে যেন বেশিক্ষণ সময় না কাটায়।

স্মার্ট রোবট কিটঃ

সূত্র :- robotkitsforadults.com

  • স্মার্ট রোবট কিটঃ

রোবট কিট সংযুক্ত একটি স্ক্রু ড্রাইভারের সঙ্গে গঠিত হয়। এটিতে রয়েছে প্রিসেট মোড। এটি সঙ্গে বাচ্চারা আনন্দ উপভোগ করবে।

  • ইলেকট্রনিক খেলনাঃ

একটু খোঁজ করলেই  দেখতে পাবেন বাজারে বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক খেলনা পাওয়া যায়। বাচ্চাদের  ইলেকট্রনিক খেলনা বেশ পছন্দের। সেটি পেয়ে তারা বেশ আনন্দ উপভোগ করে।

বাচ্চাদের ইলেকট্রনিক গ্যাজেটের হাত থেকে দূরে রাখার উপায়ঃ
  1. বাচ্চাদের সময় দিন। তাদের সঙ্গে খেলাধুলো করুন, গল্প করুন, ঘুরতে নিয়ে যান। যাতে তারা সবসময় গ্যাজেটের সঙ্গে সময় না কাটাতে পারে।
  2. খেয়াল রাখুন বাচ্চারা টিভিতে কি দেখছে। টিভি প্রোগ্রাম আপনারই বেছে দিন তাদের।
  3. স্মার্ট ফোন, ল্যাপটপ বাচ্চাদের থেকে দূরে সরিয়ে রাখুন। কোন নিরাপদ জায়গায় রেখে দিন যাতে তাদের নজরে যেতে না পারে।
  4. তাদের পড়াশুনোয়, খেলাধুলোয় মাতিয়ে রাখার চেষ্টা করুন সবসময় যাতে অন্য দিকে নজর না যায়।
  5. খেয়াল রাখবেন তারা যাতে মোবাইল বেশি ব্যবহার না করে। গল্পের বই পড়ার অভ্যাস করান। কতক্ষণ ভিডিও গেমস খেলবে তার সময় নির্ধারণ করে দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here