জেনে নিন বছরের সেরা স্মার্ট ঘড়ি কোনগুলি

স্মার্ট ঘড়ি

স্মার্ট ঘড়ি

সূত্র :- images.wagjag . com

একটা সময় ছিল যখন মানুষ ঘড়ি পড়ত তাদের প্রয়োজনে সময় দেখার জন্য। তবে যুগের পরিবর্তনের সঙ্গে আমাদের লাইফস্টাইল পরিবর্তন হয়েছে। মোবাইলের যুগ আসার পর মানুষ আর সময় দেখার জন্য ঘড়ি পরতেন না বরং হাতে ঘড়ি রাখতেন ফ্যাশন বজায় রাখার জন্য । যাইহোক যুগের পরিবর্তনের সঙ্গে ঘড়িতেও পরিবর্তনের ছোঁয়া এসেছে । আজকালকার ঘড়ি আর সময়েই সীমাবদ্ধ নয় বরং মোবাইলের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সাধারণ ঘড়ি হয়ে উঠছে স্মার্ট। এখনকার স্মার্ট ঘড়ি দেখলে তাক লেগে যায় । কলিং, এসএমএস, ভিডিও কলিং, গেমস থেকে শুরু করে ইন্টারনেটেরও সুবিধা রয়েছে। তাই পরিবর্তনের যুগের কথা মাথায় রেখে আজকের নিবন্ধে বছরের সেরা স্মার্ট ঘড়ি তালিকাগুলি আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নেব, যা আগের তুলনায় অনেক বেশি উন্নত এবং বেশি ফিচারস।

এখানে রইল বছরের সেরা স্মার্ট ঘড়ির তালিকাঃ

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ (apple watch series 4 ):

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ ৪ (apple watch series 4 )

সূত্র :- cdn.tmobile . com

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ ৪ প্রিয় স্মার্ট ঘড়িটি আপনি এখনই কিনে নিতে পারেন। অ্যাপেল এই প্রথমবার ডিজাইনটি আপডেট করল, যার জন্য ঘড়িটি আরও দারুণ দেখতে লাগছে । এই স্মার্ট ঘড়িটি আরও স্ক্রিনের সঙ্গে নতুন করে আপডেট হয়েছে । যাতে ৪০ মিমি অথবা ৪৪ মিমি ডায়াল মাপের পাওয়া সম্ভব। এই স্মার্ট ঘড়ি আগের তুলনায় অনেক পরিবর্তন হয়েছে । যেমন- স্পিকারটি আগের তুলনায় জোরে, ডিজাইন এখনও লাইটওয়েট। নতুন প্রজন্মের সঙ্গে সমস্ত অ্যাপল ওয়াচ স্ট্র্যাপগুলি ব্যবহার করতে পারেন। ঘড়িটিতে হার্ট রেট ট্র্যাকারের মধ্যে একটি ইসিজি বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যার মাধ্যমে আপনি হৃদয় পরীক্ষা করে দেখতে পারবেন অ্যাট্রিয়াল ফাইব্রিলেশন ঝুঁকি রয়েছে কিনা।

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ ( Apple Watch Series 4 )

ওএস (OS)

ওয়াচ ওএস ৫ (watchOS 5)

অপারেটিং সিস্টেম (Operating System)

আইওএস (iOS)

 

ডিসপ্লে (Display)

১.৭৮ ইঞ্চ ওএলইডি (1.78″ OLED)

প্রসেসর (Processor)

অ্যাপেল এস৪ (Apple S4)

ব্যাটারি (Battery )

১/২ দিন

স্টোরেজ (storage)

১৬ গিগাবাইট (16GB)

কানেক্টিভিটি (Connectivity)

ওয়াই -ফাই, ব্লুটুথ, এনএফসি, এলটিই

চারজিং পদ্ধতি (Charging method)

ওয়ারলেস (Wireless)

ব্যান্ড সাইজ (Band sizes)

ঘড়ির আকারের উপর নির্ভর করে

স্যামসাং গ্যালাক্সি ঘড়ি ( Samsung Galaxy Watch ):

স্যামসাং গ্যালাক্সি ঘড়ি ( Samsung Galaxy Watch )

সূত্র :- img.purch . com

২০১৭ সালে গিয়ার S3 সিরিজ এবং গিয়ার স্পোর্ট থেকে অনুসরণ করে স্যামসাং গ্যালাক্সি স্মার্ট ঘড়ি আরও অনেক উন্নত করেছে। স্যামসাং গ্যালাক্সি ঘড়ি একটি সেরা স্মার্ট ঘড়ি । যা আপনার ফোন থাকা সত্ত্বেও আপনি ক্রয় পারেন । কারন এটা শুধুমাত্র সেরা ওএস স্মার্ট ঘড়ি নয় বরং এটি স্যামসাং এর টিজেন সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয় । টিজেন সফটওয়্যার গুগলে ওয়েয়ার ওএস এর চেয়ে ভালো । টিজেন একটি রোটেটিং বেজেলের উপর নির্ভর করে যা আপনাকে খুব সহজেই এবং দ্রুত মেনুগুলি জিপ করতে সহায়তা করে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ঘড়ি ডিজাইনে এসেছে স্টাইলিশ লুকস । ৪৬ মিমি ভার্সন সিলভার রঙের পেয়ে যাবেন এবং ৪২ মিমি ভার্সনটি পেয়ে যাবেন কালো রঙের । এর মধ্যে ওয়ার্কআউট স্বীকৃতি, ফিটনেস ট্র্যাকিং, অনবোর্ড জিপিএস সহ প্রচুর ফিটনেস ফিচারস রয়েছে। ১.২ ইঞ্চ অথবা ১.৩ ইঞ্চ স্ক্রিন রয়েছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ঘড়ি ( Samsung Galaxy Watch )

ওএস (OS)

টিজেন ওএস (Tizen OS)

অপারেটিং সিস্টেম (Operating System)

অ্যান্ড্রয়েড (Android)

ডিসপ্লে (Display)

১.২ ইঞ্চ বা ১.৩ ইঞ্চ (1.2/1.3)

প্রসেসর (Processor)

ডুয়েল কোর

ব্যাটারি (Battery )

৪৬ মিমি ভার্সনের চারদিন এবং ৪২ মিমি ভার্সনের চারদিনের কম (4 days on 46mm / less on 42mm)

স্টোরেজ (storage)

৪ গিগাবাইট (4 GB)

কানেক্টিভিটি (Connectivity)

ওয়াই -ফাই, ব্লুটুথ

চারজিং পদ্ধতি (Charging method)

ওয়ারলেস (Wireless)

ব্যান্ড সাইজ (Band sizes)

২২ মিমি অথবা ২০ মিমি (22mm or 20mm)

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ ( Apple Watch Series 3 ):

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ ৩ ( Apple Watch Series 3 )

সূত্র :- i.ytimg . com

অ্যাপেল ওয়াচ সিরিজ ৩ সেরা স্মার্ট ঘড়ি বলা যেতে পারে । এর ফিচারসও কিন্তু দুর্দান্ত। তবে অ্যাপেল ওয়াচ সিরিজ ৪ লঞ্চ হওয়ার পর কোন কোন জায়গায় এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে আবার কোন কোন জায়গায় এই ঘড়িটির চাহিদা কমে গেছে।

অ্যাপল ওয়াচ ৩, অ্যাপল ওয়াচ ২ ফ্রেমের মতোই তবে অবশ্যই কিছু নতুনত্ব রয়েছে। তবে এর পার্থক্য হল সম্প্রতি এই ঘড়ির দাম একটু কমে গেছে এবং ঘড়িটি লুকস বেশ আকর্ষণীয় । এই ঘড়িতে ম্যাসেজ এবং ফোন করা যাবে। ব্যবহার করার জন্য কোন সিম বদলানোর প্রয়োজন হবে না । আইফোন না থাকলেও আপনি আপনি অ্যাপেল ওয়াচ ব্যবহার করতে পারবেন । ঘড়িটি ওয়াটার প্রুফ বৈশিষ্ট্য রয়েছে। সহজভাবে চালানোর জন্য জিপিএস অনবোর্ড রয়েছে যেখানে আপনি ওয়াচ ওএস ৫ আপগ্রেড করতে পারবেন।

অ্যাপেল ঘড়ি সিরিজ ৩ ( Apple Watch Series 3 )

ওএস (OS)

ওয়াচ ওএস ৪ ( watchOS 4)

অপারেটিং সিস্টেম (Operating System)

আইওএস ( iOS)

ডিসপ্লে (Display)

১.৫৩ ইঞ্চ (1.53″ OLED)

প্রসেসর (Processor)

এস ২ ডুয়েল কোর ( S2 dual-core)

ব্যাটারি (Battery )

১৮ ঘণ্টা ( 18 hours)

স্টোরেজ (storage)

৮ গিগাবাইট / ১৬ গিগাবাইট (8GB / 16GB)
কানেক্টিভিটি (Connectivity)

ওয়াই -ফাই, ব্লুটুথ

চারজিং পদ্ধতি (Charging method)

ওয়ারলেস (Wireless)
ব্যান্ড সাইজ (Band sizes)

ঘড়ির আকারে উপর নির্ভর করে ভিন্ন সাইজের

সুপারিশ নিবন্ধন :-

টিকওয়াচ প্রো ( TicWatch Pro ):

টিকওয়াচ প্রো ( TicWatch Pro )

সূত্র :- androidpolice . com

আমাদের পছন্দের ওয়েয়ার ওএস ওয়াচটি হল টিকওয়াচ প্রো (TicWatch Pro) স্মার্ট ঘড়ি , যা আইফোন বা আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল দিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন । কোম্পানি ডুয়েল স্ক্রিন ফিচারসের সঙ্গে এই স্মার্ট ঘড়ি বাজারে নিয়ে এসেছে । এই ঘড়িতে দুটো ডিসপ্লে রয়েছে যার একটি লেয়ার অন্যটির উপরে রয়েছে। উপরে একটি স্বচ্ছ LCD প্রদর্শন রয়েছে, যা ব্যাটারি কম থাকাকালীন আপনার হার্ট রেট এবং অন্যান্য ফিচারস প্রদর্শন করতে পারে।

নীচে এটি একটি উজ্জ্বল এবং গাঢ় পূর্ণ-রঙের ওএলইডি স্ক্রিন রয়েছে যা আপনাকে ওয়েয়ার ওএস এর সমস্ত রকম সুবিধা প্রদান করবে। যার অর্থ হল ব্যাটারি কম চলাকালীন আপনাকে অন্যান্য ফিচারসগুলির সুবিধা দেবে । এছাড়াও জিপিএস রয়েছে, গুগল পে এর জন্য এনএফসি, গান শোনার জন্য ব্লুটুথ রয়েছে।

টিকওয়াচ প্রো ( TicWatch Pro )

ওএস (OS)

ওয়েয়ার ওএস ( Wear OS)

অপারেটিং সিস্টেম (Operating System)

অ্যান্ড্রয়েড ((Android)

ডিসপ্লে (Display)

১.৪ ইঞ্চ ৪০০*৪০০ (1.4″ 400 x 400)

প্রসেসর (Processor)

কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ওয়েয়ার ২১০০

ব্যাটারি (Battery )

৪৮ ঘণ্টা (48 hours)
স্টোরেজ (storage)

৪ গিগাবাইট (4GB)

 

কানেক্টিভিটি (Connectivity)

ওয়াই -ফাই, ব্লুটুথ ৪.১ এনএফসি

চারজিং পদ্ধতি (Charging method)

ম্যাগনেটিক সংযুক্ত পিন (Magnetic connecting pin)

আইপি রেটিং ( IP rating)

আইপি৬৮ (IP68)

সেরা ওয়েয়ার ওএস স্মার্ট ঘড়ি ফসিল স্পোর্ট (OS smartwatch Fossil Sport):

সেরা ওয়েয়ার ওএস স্মার্ট ঘড়ি ফসিল স্পোর্ট (OS smartwatch Fossil Sport)

সূত্র :- amp.businessinsider . com

ফসিল স্পোর্ট হল ফসিলসের প্রথম স্মার্ট ঘড়ি, যা নতুন স্ন্যাপড্রাগন ওয়েয়ারের সঙ্গে হাজির। যা বেশি ব্যাটারি মেয়াদ এবং অন্যান্য ভালো পারফরমেন্স রয়েছে। এটি গুগলে নতুন ভার্সন ওয়েয়ার ওএস এর মাধ্যমে চালিত হবে । এই স্মার্ট ঘড়িটি সাশ্রয়ী মূল্যের এবং ভিন্ন ফিচারস সঙ্গে উপস্থিত। ফসিল স্পোর্ট ঘড়িটি দুটি ভিন্ন মাপের ৪১ মিমি এবং ৪৩ মিমি । কোম্পানি ছয়টি ভিন্ন রঙের এই ঘড়িটি বাজারে নিয়ে এসেছে । মেনু এবং অ্যাপ্লিকেশানগুলির মাধ্যমে স্ক্রোল করা খুব সহজ মনে হবে। ১.২ ইঞ্চ ডিসপ্লে রয়েছে। ২৪ ঘণ্টার কাছাকাছি ব্যাটারি থাকবে।

বর্তমানে অপারেটিং সিস্টেমটি “‘স্পোর্টস মোড’ সুবিধা গ্রহণ করে না, যা লঙ টাইম ব্যাটারি মেয়াদের সঙ্গে জিপিএস এবং হার্ট রেট সেন্সরে সক্ষম।

ওএস স্মার্ট ঘড়ি ফসিল স্পোর্ট ( OS smartwatch Fossil Sport )

ওএস (OS)

ওয়েয়ার ওএস ( Wear OS)

অপারেটিং সিস্টেম (Operating System)

অ্যান্ড্রয়েড (Android)

ডিসপ্লে (Display)

৩৯০*৩৯০ ওএলইডি (390 x 390 OLED)

প্রসেসর (Processor)

কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ওয়েয়ার ৩১০০

ব্যাটারি (Battery )

২৪ ঘণ্টা (24 hours)

স্টোরেজ (storage)

৪ গিগাবাইট (4 GB)

কানেক্টিভিটি (Connectivity)

ওয়াই -ফাই, ব্লুটুথ, এনএফসি

চারজিং পদ্ধতি (Charging method)

ওয়ারলেস (Wireless)

ব্যান্ড সাইজ (Band sizes)

৪১ মিমি এবং ৪৩ মিমি (41mm/ 43 mm)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here