হেয়ার স্পা এর উপকারিতাঃহেয়ার স্পা কি সত্যিই উপকার?

হেয়ার স্পা আসলে কি

বর্তমানে আধুনিক যুগে হেয়ার স্পা নামটির সঙ্গে তরুণ- তরুণীরা বিশেষ পরিচিত। নামটি শোনে নি এরকম মানুষ খুবই কমই আছে। দূষণময় পরিবেশে চুলের সমস্যায় ভুগতে হয় নিত্যদিন । দূষণের কারণে আমাদের চুলে ভিন্ন ধরণের সমস্যা দেখা যায়। তাই চুলের চাই পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন। চুলে প্রোটিনের অভাবই, অতিরিক্ত পরিমাণ চুল পড়ার একমাত্র কারণ। আর এই চুল পড়া কমাতে হেয়ার স্পা জুড়ি নেই। চুলের জন্য হেয়ার স্পা এর উপকারিতা বহু ।

হেয়ার স্পা নিয়ে মানুষের মনের কোনে অনেক কৌতূহল । হেয়ার স্পা কি চুলের জন্য সত্যিই উপকার? এটার জন্য চুলের কোন ক্ষতি হবে না তো। এই ধরনের প্রশ্ন প্রায়শই মানুষের মনে বাসা বাঁধে। তাই আজ এই নিবন্ধটি থেকে আমারা আজ জানব হেয়ার স্পা চুলের জন্য কতটা উপকার। তাহলে আসুন জেনে নিই হেয়ার স্পা এর উপকারিতা তবে তার আগে আপনাদের জানতে হবে হেয়ার স্পা আসলে কি?

হেয়ার স্পা আসলে কি

হেয়ার স্পা আসলে কি?

চুলের হেয়ার স্পা আসলে “পূর্ণজন্ম থেরাপি” হিসাবে বর্ণনা করা হয় । হেয়ার স্পা চুলের উপযুক্ত পুষ্টি । এটি চুলেকে স্বাস্থ্যকর রাখে পাশাপাশি চুলকে ক্ষতি হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। অনেকই চুল স্বাস্থ্যকর রাখতে এবং ক্ষতি হাত থেকে বাঁচতে চুলে এই চিকিৎসাটি করে থাকে।

হেয়ার স্পা সত্যিই কি উপকার ?

হেয়ার স্পা চুলের জন্য সত্যিই উপকারি। এটি চুলের প্রোটিন অভাব কমায়। তবে বিভিন্ন ধরনের হেয়ার স্পা রয়েছে। কিছু কেমিক্যাল উপকরণ দিয়ে আবার কিছু প্রাকৃতিক উপাদান। কেমিক্যাল উপকরণ হেয়ার স্পা চুলের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া থাকলেও থাকতে পারে, তবে প্রাকৃতিক হেয়ার স্পা কোন সাইড এফেক্ট নেই। তাই বাড়ি বসেও হেয়ার স্পা করে নিতে পারেন।

নীচে ঘরোয়া পদ্ধতি হেয়ার স্পা একটি পদ্ধতি জানাব কিন্তু তার আগে জেনে নিন হেয়ার স্পা এর উপকারিতা ।

হেয়ার স্পা এর উপকারিতা

হেয়ার স্পা এর উপকারিতা

1. খুশকি দূর করেঃ

চুলের একটি বড় সমস্যা হল খুশকি। অতিরিক্ত পরিমাণ খুশকি স্ক্যাল্প সাদা করে দেয় তেমন চুল পড়তে শুরু করে। খুশকি জন্য মুখে অনেক সময় র‍্যাশ উঠতে দেখা যায়। এর থেকে রেহাই পেতে মাসে অন্তত ১ বার হেয়ার স্পা করা প্রয়োজন। চুল থেকে খুশকি মুক্ত করতে হেয়ার স্পা কার্যকর। প্রতি মাসে ১ বার হেয়ার স্পা করুন কয়েকমাস বাদে ফলাফল নিজেই দেখতে পাবেন।

2. চুলের পড়া কমায়ঃ

অকালে চুল পড়া কমাতে চাইলে মাসে নিয়মিত স্পা করান। হেয়ার স্পা চুলের পুষ্টি যোগায় এবং চুলকে কন্ডিশনিং করে। নিয়মিত স্পা করলে স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায় এবং স্ক্যাল্পে নার্ভগুলি মজবুত হয়। যার ফলে চুলের গোড়া মজবুত হয় এবং চুল পড়া বন্ধ হয়।

3. ভঙ্গুর এবং নিস্তেজ চুল রোধ করতে হেয়ার স্পাঃ

স্বাস্থ্যকর চুল অর্জন করার সেরা উপায় হল হেয়ার স্পা। হেয়ার স্পা করানোর সময় তাপ দেওয়া হয়। স্টিম চিকিৎসাটি নিস্তেজ চুলকে তরতাজা করবে এবং ভঙ্গুর চুল নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে।

4. চুলের পুষ্টি যোগায়ঃ

হেয়ার স্পা যেমন একদিকে চুল কান্ডিশনারের কাজ করে অন্যদিকে চুলের পুষ্টি যোগাতে সহায়তা করে। চুলগুলি স্বাস্থ্যকর রাখার জন্য যে পুষ্টিগুলির দরকার হয়, হেয়ার স্পা চিকিৎসার মাধ্যমে তা পাওয়া সম্ভব।

5. স্ক্যাল্পের স্বাস্থ্য বজায় রাখেঃ

স্ক্যাল্পের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে গেলে পুষ্টির প্রয়োজন । স্বাস্থ্য চুল উৎপাদনের জন্য পুষ্টি যোগান দেয় এবং স্ক্যাল্পের স্বাস্থ্য বজায় রাখে।

সুপারিশ নিবন্ধন :- 

6. কেমিক্যাল প্রোডাক্টের হাত থেকে চুলকে বাঁচায়ঃ

চুলের স্টাইলের জন্য আমরা হেয়ার কালার করে থাকি এই কালার প্রোডাক্টগুলি কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয় যা চুল ক্ষতি করে। এই ক্ষতির হাত থেকে বাচার একমাত্র উপায় হেয়ার স্পা । এছাড়াও দূষণ থেকে চুলকে বাঁচানোর জন্য হেয়ার স্পা এর মতো ভালো বিকল্প আর কিছু হতে পারে না।

7. চুলে ভলিউম বাড়াতে এবং সোজা রাখতে হেয়ার স্পাঃ

আজকাল প্রায়ই অধিকাংশ মেয়েরাই চুল সোজা রাখতে চায়। চুল সোজা রাখতে প্রতি মাসে ১ বার করে হেয়ার স্পা করান। কারণ নিয়মিত হেয়ার স্পা করানোর ফলে চুল সোজা থাকে এবং চুলের ভলিউমও বাড়ে।

বাড়িতে বসে হেয়ার স্পা করার নিয়ম

বাড়িতে বসে হেয়ার স্পা করার নিয়ম

উপকরণঃ

• শ্যাম্পু

• হেয়ার প্যাক তৈরি করার জন্য কলা, ডিম, মধু, দুধ এবং অয়েল

• উষ্ণ গরম জল

• তোয়ালে

হেয়ার স্পা করবেন যেভাবে
  • পদ্ধতি ১ – প্রথমে চুলে ভালো করে শ্যাম্পু করে নিন।
  • পদ্ধতি ২ – তোয়ালে দিয়ে চুল মুছে শুকিয়ে নিন।
  • পদ্ধতি ৩ – হেয়ার প্যাক তৈরি করার জন্য উপকরণ গুলি একসঙ্গে মিশিয়ে প্যাকটি বানিয়ে মাথায় লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • পদ্ধতি ৪ – উষ্ণ গরম জলে তোয়ালে ভিজিয়ে নিন। এবার তোয়ালে থেকে ভালো করে জল চিপরে নিন। ওই তোয়ালেটি চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত সমস্ত চুল পেঁচিয়ে নিন। পার্লারে স্টিম করার মতো ১৫-২০ মিনিট পেঁচিয়ে রাখুন।
  • পদ্ধতি ৫ – ১৫-২০ মিনিট বাদে ঠাণ্ডা জলে চুল ভালো করে ধুয়ে কান্ডিশন লাগিয়ে নিন।

হেয়ার স্পা এর উপকারিতা এবং করার পদ্ধতি তো জেনে গেলেন। এবার নিশ্চয়ই হেয়ার স্পা করতে আর দ্বিধা বোধ করবেন না। কিন্তু আমি বলব পার্লারে না গিয়ে বাড়িতে বসে হেয়ার স্পা করে নিন। এতে বেশি ভালো রেজাল্ট পাবেন।

সারকথাঃ
চুল সিল্কি এবং বাউন্সি করতে হেয়ার স্পা অতুলনীয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here