আর্থিক স্টক মার্কেট এ ন্যাশনাল স্টক ও বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের ভূমিকা

আর্থিক স্টক মার্কেট বা শেয়ার মার্কেট কি

আর্থিক স্টক মার্কেট এমন একটা জায়গা যেখানে পাবলিক সংস্থাগুলি, তাদের শেয়ারের ব্যবসা করে থাকে। আর প্রাথমিক বাজার হল যেখানে কোম্পানিগুলি তাদের পুঁজি বাড়াতে জনসাধারনের মধ্যে শেয়ার বন্টন করে থাকে।
প্রাইমারী বাজারে সিকিউরিটি বিক্রি হয়ে যাওয়ার পর তারা সেকেন্ডারি বাজারে ব্যবসা করে থাকে। বর্তমান বাজার দর অনুযায়ী যেখানে একজন বিনিয়োগকারী আর একজন বিনিয়োগকারী থেকে শেয়ার ক্রয় করে থাকে। প্রাইমারী ও সেকেন্ডারি বাজারগুলি সিকিউরিটি ও এক্সচেঞ্জ বোর্ড দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।
ভারতে প্রধান স্টক এক্সচেঞ্জ এর বোর্ডগুলি হল ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ আর বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ। এর তিনটে বিভাগ বোর্ড-স্টক এক্সচেঞ্জ, ব্রোকার, বিনিয়োগকারী।

আর্থিক স্টক মার্কেট বা শেয়ার মার্কেট কি

আর্থিক স্টক মার্কেট বা শেয়ার মার্কেট কি?

শেয়ার বা স্টক হল কোন ব্যবসার অংশীদারি। যার ক্রয় বিক্রয় শেয়ার মার্কেটের স্টক এক্সচেঞ্জ এর মাধ্যমে করা হয়। স্টক এক্সচেঞ্জ একটি বাজারের মতো যেখানে স্টক কেনা বেচা হয়ে থাকে।
আগেকার দিনে বিনিয়োগকারীরা বা ব্যবসাদাররা ভেতর থেকে শেয়ার ক্রয় বিক্রয় করত। এখন সেটা কম্পিউটারের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়। এই ইলেকট্রনিক সুবিধার ফলে বিনিয়োগকারীরা ও ট্রেডাররা বিশ্বের যে কোন স্থান থেকে কাজ করতে পারে।
নিফটি হল ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ এর সূচক আর সেনসেক্স হল বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ এর সূচক। ভারতের বেশীরভাগ শেয়ারের কাজ ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ বোর্ডের মাধ্যমে হয়ে থাকে।

আর্থিক স্টক মার্কেট এ বিনিয়োগের পদ্ধতিঃ

আর্থিক স্টক মার্কেট এ বিনিয়োগের পদ্ধতিঃ

একজন বিনিয়োগকারী সরাসরি স্টক মার্কেটে কেনা বেচা করতে পারে না। তাকে স্টক এক্সচেঞ্জের সদস্যের দ্বারাই স্টক ক্রয় বিক্রয় করতে হবে। প্রথমে ব্রোকার নির্বাচন করতে হয়। যদি নিজস্ব কোন ব্রোকার না থাকে , তাহলে আর্থিক স্টক মার্কেট এ ব্রোকারদের তালিকা থেকে নির্বাচন করতে হবে।

অল্প পারিশ্রমিকের বিনিময় ব্রোকার গ্রাহকদের পক্ষ হয়ে শেয়ার কেনা বেচা করে থাকে। গ্রাহক যদি ক্রেতা হন তাহলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ব্রোকারদের পাওনা পরিশোধ করতে হয়।

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জঃ

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জঃ

১৯৯২ সালে প্রতিষ্ঠিত ভারতের অন্যতম প্রধান স্টক এক্সচেঞ্জ হল ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ। এটা ভারতের প্রথম স্ক্রীন ভিত্তিক বৈদ্যুতিক ট্রেডিং সিস্টেম। যা সারা দেশে বিনিয়োগকারীদের ট্রেডিং সুবিধা সরবরাহ করে থাকে। এটি পৃথিবীর ১২ তম বৃহত্তম এক্সচেঞ্জ। এটি ইক্যুইটি, ইক্যুইটি ডেরিভেটিস, ঋণ এবং মুদ্রা বিভাগগুলিতে ট্রেডিং, ক্লিয়ারিং পরিষেবা সরবরাহ করে। নিফটি হল ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ এর সুচক যার মধ্যে ৫০ টি পুঁজিবাদী কোম্পানি তালিকাভুক্ত রয়েছে।

সম্পর্কিত নিবন্ধ চেক করুন :- 

বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জঃ

এটি ১৮৭৫ সালে প্রতিষ্ঠিত।বোম্বে স্টকও ভারতের একটি প্রধান স্টক এক্সচেঞ্জ। এটি পৃথিবীর ১০ম বৃহত্তম এক্সচেঞ্জ। সেনসেক্স হল বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ এর সূচক যার মধ্যে ৩০ টি পুঁজিবাদী কোম্পানি তালিকাভুক্ত রয়েছে। এটি হল প্রথম এক্সচেঞ্জ যা সরকার কর্তৃক সিকিউরিটিজ কনট্র্যাক্টস রেগুলেশন অ্যাক্টের অধীনে ৩১ আগস্ট, ১৯৫৭ সালে স্বীকৃত ছিল। ইক্যুইটি এবং ঋণ ছাড়াও, এক্সচেঞ্জ মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট এবং ডেরিভেটিভস ট্রেডিং করার অনুমতি দেয়।

কখন ভারতের ট্রেডিং শুরু হয়?

ভারতের নিয়োজিত কোম্পানিগুলির ট্রেডিং এর ধারনা ১৮৪০ দশকে শুরু হয়েছিল। ইউ.এস সিভিল যুদ্ধে ব্রিটিশ মিলগুলোতে তুলো সরবরাহের পরিমাণ কমেছিল, যখন মিলগুলির তুলনায় কোম্পানির ব্যবসায়ীরা বেশি লাভ করেছিল। ভারতের প্রথম স্টকটি ১৮৭৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৮৬ সালে সেনসেক্স চালু হয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here