কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা ৬ টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

কম্পিউটারের সুবিধাঃ

বর্তমান বিশ্বের বিস্ময় হল কম্পিউটার। এটি একটি স্বয়ংক্রিয় যন্ত্র। এই টেকনোলজি আমদের কাজের আরও সুবিধা করে তুলছে। বর্তমানে এই টেকনোলজির মাধ্যমে কর্মসংস্থান বেড়েছে। ঘর হোক বা বাইরে এর কদর সর্বত্রই। বর্তমানে কম্পিউটারের প্রভাব বিশাল। মানুষ এই যন্ত্রটি নানা কাজে ব্যবহার করে থাকে। এর মাধ্যমে দ্রব কেনা বেচা, অনলাইন স্টাডি, টিকিট বুক করা, অনলাইনে কেনাকাটা বা অফিসের সমস্ত রকম কাজ করে থাকে।
কম্পিউটার টেকনোলজি শিক্ষার উপরে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলেছে। শিক্ষার্থীরা অনলাইনে স্টাডিজ করতে পারে বা ঘরে বসে জ্ঞান অর্জন করতে পারে। কম্পিউটারের ব্যবহার সুবিধার পাশাপাশি কিছু অসুবিধাও বিরাজমান। এখানে রইল ৬ টি কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা –

কম্পিউটারের সুবিধাঃ

কম্পিউটারের সুবিধাঃ

কম্পিউটার দ্রুত বিশাল পরিমাণ তথ্য প্রস্তুত করতে পারে। মানবজাতির থেকেও বিভিন্ন কাজ সাফল্যের সঙ্গে সম্পূর্ণ করতে পারে। সুতরাং বলাই যায় কম্পিউটার আমাদের কাজের দক্ষতা বৃদ্ধি করে। নীচে কম্পিউটারের সুবিধা উল্লেখ করা হল-

• গবেষণার কাজেঃ
কম্পিউটারের মাধ্যমে আপনি যেকোনো ক্ষেত্র সার্চ করলে খুঁজে পাবেন। এই মাধ্যমে আপনি ক্যালকুলেশন, ডাটা সঞ্চয় করতে এবং যেকোনো ডাটা উপস্থাপন করতে পারবেন। বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় কম্পিউটার ব্যবহার করে।

• ইন্টারনেট এর সুবিধাঃ
কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা আলোচনার ক্ষেত্রে সুবিধার একটি বড় অংশ হল ইন্টারনেট। আধুনিক যুগে ইন্টারনেট একটি মূল্যবান কৌশল। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্বের প্রতিটি স্থানের সঙ্গে যোগসূত্রে আবদ্ধ হতে পারবেন।
ইন্টারনেটের দ্বারা বিদেশে বন্ধুবান্ধব, আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করতে পারবেন। এছাড়াও নেট সার্চ, সিনেমা ও গেমস খেলতে পারবেন। এটি সর্বশ্রেষ্ঠ কম্পিউটারের সুবিধা বলে বিবেচনা করা হয়।

• মাল্টিমিডিয়াঃ
কম্পিউটারের আরেকটি সুবিধা মাল্টিমিডিয়া ডিভাইস। এতে বিভিন্ন ধরণের অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে পারি যেমন- গান শোনা, গেমস খেলা ইত্যাদি।

• তথ্য জমা রাখাঃ
কম্পিউটারে প্রচুর পরিমাণ তথ্য জমা রাখতে পারবেন। বড় বড় কোম্পানিগুলি তাদের মার্কেটিং এর তথ্যগুলি কম্পিউটারে জমা করে রাখে। এমনকি গ্রাহকদের সংবেদনশীল তথ্য সুরক্ষিতভাবে রাখার জন্য কম্পিউটারাইজড করে রাখে।

অনলাইন বাণিজ্যঃ

• অনলাইন বাণিজ্যঃ
বিশ্বের ৬০ শতাংশ মানুষ অনলাইন বাণিজ্যের জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকে। তারা কম্পিউটার ও ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন তাদের পণ্য কেনা বেচার জন্য।
অনলাইনে ব্যবসা করা এখন অনেক সোজা পাশাপাশি সময় সঞ্চয় হয়। অনেক ওয়েবসাইট তাদের গ্রাহকদের জন্য ডিসকাউণ্ট দিয়ে থাকেন। যার ফলে অনলাইন কেনাকাটার প্রতি মানুষের ঝোঁক এখন বেশি।

সম্পর্কিত নিবন্ধ চেক করুন :- 

• শিক্ষাগত ক্ষেত্রেঃ
কম্পিউটার ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনোয় ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা নিয়ে এসেছে। বিশ্বে ৫০ শতাংশ মানুষ এখন ওয়েবসাইট থেকে শিক্ষাগত জ্ঞান অর্জন করে। বর্তমানে অনলাইনে শিক্ষাগত কোর্স সম্পূর্ণ করা যায়।

কম্পিউটারের অসুবিধা

কম্পিউটারের অসুবিধা

কম্পিউটার ব্যবহারে সমাজে কিছু সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা আলচনায় কম্পিউটার অসুবিধা নিম্নরূপ-

• স্বাস্থ্যের ক্ষতিঃ
দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহার করলে চোখের উপর নেতিবাচক পড়ভাব পড়ে। চোখের পেশিতে চাপ পড়ে ফলে চোখের ক্ষতি হয়। তাছাড়াও দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহারের ফলে ঘাড় ও মস্তিষ্কের ক্ষতি হতে পারে। তাই যারা দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহার করেন তাদের ৩০ মিনিট অন্তর বিশ্রাম নেওয়া প্রয়োজন।

• পরিবেশের উপর নেতিবাচক প্রভাবঃ
কম্পিউটার উৎপাদন প্রক্রিয়া এবং কম্পিউটার বর্জ্য পরিবেশ দূষণ করা হয়। কম্পিউটারের নষ্ট পার্টগুলি থেকে বিষাক্ত উপাদান পরিবেশে ছড়াতে পারে।

শক্তি ও সময় অপচয়ঃ
অনেক মানুষ গেম খেলতে ও দীর্ঘসময় চ্যাট করার জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকে। এতে সময় ও শক্তি অপচয় হয়। তরুন প্রজন্ম এখন দিনের বেশিরভাগ সময়টা সোশ্যাল মিডিয়ায় ( যেমন- ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদি ) ব্যস্ত থাকে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য খারাপ। পাশাপাশি সামাজিক জীবনে প্রতিকূল প্রভাব পড়ছে।

ক্রাইমঃ

• ক্রাইমঃ
অনেক মানুষ আছে যারা নেতিবাচক কাজকর্মের জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকে। তারা জনগণের ক্রেডিট কার্ডের নাম্বারগুলি হ্যাক করে নেয়। আবার অনেক সময় বড়ো প্রতিষ্ঠানগুলির তথ্য চুরি করে।

• ব্যয়বহুলঃ
কম্পিউটার একটি ব্যয়বহুল যন্ত্র। তাই ছোট প্রতিষ্ঠানে ক্ষেত্রে অনেক সময় এটি ব্যবহার করা সম্ভব হয়ে ওঠে না।

• বেকারত্বঃ
আতিত প্রজন্মে কম্পিউটার ব্যবহার করা হত না। তাই তাদের কর্মসংস্থানে কম্পিউটারের জ্ঞান না থাকার জন্য বড় সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। ফলে বেকারত্ব বৃদ্ধি পায়।

কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা পয়েন্টগুলি আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

সারকথাঃ
বর্তমান যুগ কম্পিউটারের যুগ হয়ে পড়েছে। কারণ, কম্পিউটার ছাড়া মানুষ অচল। হয়তো এমন একদিন আসবে যেদিন মানুষই কম্পিউটার দ্বারা পরিচালিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here