বাল্য বয়স থেকে বিয়ের আসর কেমন ছিল অনুষ্কা শর্মার জীবনী?

অনুষ্কা শর্মার সংক্ষিপ্ত বায়োগ্রাফি

অনুষ্কা শর্মার সংক্ষিপ্ত বায়োগ্রাফি

সূত্র:- timesofindia.indiatimes . com

অনুষ্কা শর্মার সংক্ষিপ্ত বায়োগ্রাফি

ডাকনামঃ অনু

পেশাঃ অভিনেত্রী, প্রোডিউসার

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ স্নাতক স্তর

জন্মস্থানঃ উত্তর প্রদেশের অয্যোধ্যায়

জন্ম তারিখঃ ১৯৮৮ সাল ১ মে

বয়সঃ ৩০ বছর

জাতীয়তাঃ ভারতীয়

ডেবিউঃ রাব নে বানা ডে জোড়ি

অনুষ্কা শর্মার উচ্চতা -ওজন এবং শরীরের পরিমাপঃ

সূত্র:- upload.wikimedia . org

অনুষ্কা শর্মার উচ্চতা -ওজন এবং শরীরের পরিমাপঃ

উচ্চতাঃ ৫ ফুট ৯ ইঞ্চ

ওজনঃ ৫৫ কেজি

চোখের রংঃ বাদামী

চুলের রংঃ কালো

অনুষ্কা শর্মার পরিবারের তথ্যঃ

সূত্র:- images.indianexpress . com

অনুষ্কা শর্মার পরিবারের তথ্যঃ

বাবাঃ অজয় কুমার শর্মা

মাঃ অসিমা শর্মা

ভাইঃ কার্নেশ শর্মা

স্বামীঃ বিরাট কোহলি

অনুষ্কা শর্মার ব্যক্তিগত তথ্যঃ

সূত্র:- media . vogue . in 

অনুষ্কা শর্মার ব্যক্তিগত তথ্যঃ

প্রিয় রংঃ সাদা, নীল, ধূসর, কালো

প্রিয় অভিনেতাঃ শাহরুখ খান

প্রিয় অভিনেত্রীঃ রানি মুখার্জি

শখঃ নাচ এবং বই পড়া

অনুষ্কা শর্মা একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী এবং প্রযোজক, যিনি প্রধানত হিন্দি চলচ্চিত্রে কাজ করেন। অনুষ্কা ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী। রব নে বানা দি জোড়ি (২০০৮) এ শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় শুরু করেছিলেন অনুষ্কা, যার জন্য তিনি সেরা অভিনেত্রী মনোনয়ন পাওয়ার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করেছিলেন। বর্তমানে তার আরও একটি পরিচয় রয়েছেন, তিনি ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি স্ত্রী। কিন্তু বাল্য বয়স থেকে বিয়ের আসর কেমন ছিল এই অভিনেত্রীর জীবন? তারই কথা আজ জানব আমরা এই নিবন্ধন থেকে। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক অনুষ্কা শর্মার জীবনী।

অনুষ্কা শর্মা জীবনী ( BIOGRAPHY )

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী ( BIOGRAPHY )

সূত্র:- i.ytimg . com 

অনুষ্কা শর্মা শৈশব জীবনঃ

১৯৮৮ সালে ১ লা মে উত্তর প্রদেশের অয্যোধ্যায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন। বাবা অজয় কুমার শর্মা এবং মা অসিমা শর্মা। অনুষ্কা বাবা ছিলেন একজন সেনা কর্মকর্তা এবং মা গৃহিণী। তার একজন বড় ভাই রয়েছেন কার্নেশ শর্মা। তিনি মার্চেন্ট নেভিতে কাজ করতেন এবং বর্তমানে চলচ্চিত্রের প্রযোজক।

তিনি তার প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন করেন আর্মি স্কুলে সমাপ্ত করেন এবং বেঙ্গালুরু মাউন্ট কারমেল কলেজ থেকে স্নাতক স্তর সম্পন্ন করেন। পরবর্তীকালে তিনি মডেলিং ক্যারিয়ার শুরু করার জন্য পড়াশুনো শেষ করে মুম্বাইয়ে চলে আসেন।

অনুষ্কা শর্মা জীবনী – ক্যারিয়ার জীবনঃ

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী – ক্যারিয়ার জীবনঃ

সূত্র:- resize.indiatvnews . com

আনুষ্কা শর্মা একজন মডেল হিসাবেই তার কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। তার কোনদিনই চলচ্চিত্র জগতে অভিনয় করার জন্য বড় আশা ছিল না। প্রথম তিনি এলিট মডেলিং ম্যানেজমেন্টে স্বাক্ষর করেছিলেন। সেখানে স্টাইল কনসালট্যান্ট প্রসাদ বিদাপা তৈরি করেন। ওই সময়ই তিনি অভিনয় শেখার জন্য অভিনয় ক্লাসে যোগদান করেন। প্রথম তিনি ল্যাকমে ফ্যাশন রানওয়ে জন্য ডেবিউ করেন এবং পরবর্তীকালে ২০০৭ স্প্রিং মডেল হিসাবে নির্বাচিত হন। তারপর তিনি সিল্ক এন্ড শাইন, হুইসপার, ফিয়েট পিয়েলা এবং নাথিলা জুয়েলারী প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপনের কাজ করেন।

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী

বলাই বাহুল্য, ২০০৮ সালটি ছিল তার ক্যারিয়ার জীবনের প্রথম ধাপ। কারণ ওই বছর তিনি চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করার সুযোগ অর্জন করেছিলেন। আদিত্য চোপড়া রোম্যান্টিক চলচ্চিত্র ” রাব নে বানা ডে জোড়ি” তে তাকে বিখ্যাত বলিউড বাদশা শাহরুখ খানে বিপরীতে পর্দা ভাগ করে নিতে দেখা যায়। ছবিটি ব্লকবাস্টার হিট হয়েছিল। অভিনেত্রী আনুষ্কা শর্মার অভিনয় মুগ্ধ করেছিলেন অনেক ভক্তদের মন এবং অনেক প্রশংসা অর্জন করেছিলেন। তথ্য সূত্রে শোনা যায় কিং খান বলেছিলেন ছবিটি তার জন্য হিট হয় নি বরং হিট হয়েছিল অনুষ্কার শর্মার অভিনয়ের জন্য। ছবিতে তার অভিনয়ের জন্য ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস থেকে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার দেওয়া হয়।

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী

এর পরে ২০১০ সালে তাকে শাহীদ কাপুরের বিপরীতে “বদমাশ কোম্পানি” সিনেমায় দেখা যায়। সিনেমাটি মিশ্র ফলাফল পেয়েছিল বক্স অফিসে। একই সালে অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মার পরবর্তী মুভি ” ব্যান্ড বাজা বারাত”। তাকে রণবীর সিংয়ের বিপরীতে মুখ্য ভূমিকা অভিনয় করতে দেখা যায় এবং আবারও তিনি অভিনয়ের জন্য প্রশংসিত হন। দ্বিতীয় বারের মতো ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডসে সেরা অভিনেত্রীর মনোনয়ন পান।

২০১১ সালে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে “পাটিয়ালা হাউস” সিনেমায় তাকে দেখা যায়। তার কর্মক্ষমতা সমালোচকদের কাছে প্রশংসা অর্জন করেছিল। একই সালে তার মুক্তি প্রাপ্ত আরও একটি ছবি ” লেডিস ভার্সেস রিকি ভাল”। আবারও একবার তাকে অভিনেতা রণবীর সিংয়ের বিপরীতে তাকে দেখা যায়। ছবিটি বক্স অফিসে মাঝারি সাফল্য অর্জন করে।

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী

২০১২ সালে যশ চোপড়ার পরিচালিত “জাব তক হ্যায় জান” সিনেমায় শাহরুখ খান এবং ক্যাটরিনা কাইফের বিপরীতে তাকে অভিনয় করতে দেখা যায়। সিনেমাটি বক্স অফিসে ভালো সাফল্য অর্জন করে। এই সিনেমাটির জন্য তিনি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছিলেন।

বিশাল ভারদজের রাজনৈতিক সিনেমা “মাত্রু কি বিজলি কা মান্ডোলা” মুখ্য ভুমিকায় তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। এছাড়াও ছবিটিতে পঙ্কজ কাপুর, ইমরান খান এবং শাবনা আজমিকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। সিনেমাটি বক্স অফিসে মিশ্র ফল পায়।

২০১৪ সালে “পিকে” সিনেমায় আমির খানের বিপরীতে তাকে দেখা যায়। এই সিনেমায় তাকে সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায়। সিনেমাটি ভারত ও বিশ্বব্যাপী ব্যাপক ভাবে সাফল্য অর্জন করেছিল। ইতিমধ্যেই অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা বিখ্যাত জনপ্রিয় অভিনেত্রী হয়ে উঠেছিলেন।

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী

তার চলচ্চিত্রে সাফল্য অর্জনের পর নিজের প্রোডাকশন কোম্পানি ক্লিন স্টেট ফিল্ম চালু করেন এবং সেই প্রতিষ্ঠানের প্রথম সিনেমা এনএইচ ১০। ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই সিনেমাটি তিনি মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সিনেমা তার নজরকাড়া অভিনয় ছিল। তার অভিনয় তাকে সেরা অভিনেত্রী পুরস্কার দিয়েছে।

২০১৫ সালে অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মার মুক্তি প্রাপ্ত ছবি অনুরাগ কাশ্যপের ” বোম্বে ভেলভেট”। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সিনেমাটি বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়েছিল। একই সালে জয়া আখতারের “দিল ধড়কনে দো” সিনেমায় অভিনয় করেন। এর জন্য তিনি পার্শ্ব অভিনেত্রী ফিল্মফেয়ার পুরস্কার লাভ করেন।

২০১৬ সালে যশ রাজ ফিল্মের রোম্যান্টিক স্পোর্টস সিনেমা “সুলতান” এ সালমান খানের বিপরীতে অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মাকে দেখা যায় পর্দা ভাগ করে নিতে। এই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য তাকে ছয় সপ্তাহে হরিয়ানবী কথা বলতে শেখার জন্য প্রশিক্ষিত হতে হয়েছিল। সিনেমাটি বক্স অফিসে ভালো সাড়া পেয়েছিল এবং অনুষ্কা শর্মার অভিনয় সমলোচকদের কাছে প্রশংসিত ছিল।

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী

২০১৬ সালে করণ জোহারের ব্লকবাস্টার রোম্যান্টিক সিনেমা “এ দিল হে মুশকিল”। ছবিতে অনুষ্কা শর্মাকে রণবীর কাপুর এবং ঐশ্বরিয়া রায়ের পাশাপাশি প্রেমকাহিনীতে অভিনয় করতে দেখা যায়। ছবিটি বক্স অফিসে বিশাল সাফল্য অর্জন করে এবং তার অভিনয় দর্শক মুগ্ধ হয়েছিল। এই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর মনোনয়ন পান। এবং সেই বছরের সেরা সফল বলিউড অভিনেত্রীর হিসাবে অভিনন্দন লাভ করে।

২০১৭ সালে তার মুক্তি প্রাপ্ত দুটি ছবি ” ফিলৌরি” এবং শাহরুখ খানের বিপরীতে ইমতিয়াজ আলির”জাব হ্যারি মেট সেজাল”। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত উভয় সিনেমা বক্স অফিসে প্রভাব ফেলতে ব্যর্থ হয়েছিল।

২০১৮ সালে অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মাকে “পরী” সিনেমায় একটি ভয়াবহ চরিত্রে দেখা যায়। ছবিটি তেমন সাড়া না পেলেও তার অভিনয় জন্য সমালোচকরা প্রশংসা করেন এবং সেই বছরই “শুই ধাগা”( বরুণ ধাওয়ানের বিপরীতে), “সঙ্গয় দত্ত বায়োপিক” ( রণবীর কাপুরের বিপরীতে), এবং “জিরো” ( শাহরুখ খানের বিপরীতে) অভিনয় করতে দেখা যায়।

অনুষ্কা শর্মা জীবনী – ব্যক্তিগত জীবনঃ

অনুষ্কা শর্মার  জীবনী - ব্যক্তিগত জীবনঃ

সূত্র:- flop2hit . com

২০১৩ সাল থেকে অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা ক্রিকেটার বিরাট কোহলি সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন। মাঝে তাদের সম্পর্কে চির ধরে এবং বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তবে, পরবর্তী কালে তাদের সম্পর্ক বাগদানে পরিণত হয়। ২০১৭ সালে ১১ ই ডিসেম্বর তাদের বিবাহ হয়।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

প্রঃ অনুষ্কা শর্মার বয়স কত?

উঃ ৩০ বছর।

প্রঃ অনুষ্কা শর্মার প্রিয় রঙ কি?

উঃ অনুষ্কা শর্মার প্রিয় রঙ নীল, কালো, সাদা এবং ধূসর।

প্রঃ অনুষ্কা শর্মার বিয়ে তারিখ কত?

উঃ ২০১৭ সালে ১১ ই ডিসেম্বর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here