মিমি চক্রবর্তী জীবনীঃ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী জীবন কাহিনী

মিমি চক্রবর্তী বায়োগ্রাফি

মিমি চক্রবর্তী বায়োগ্রাফি

সূত্র :-bangla.thereport24 . com

মিমি চক্রবর্তী বায়োগ্রাফি

পুরো নাম

মিমি চক্রবর্তী

পেশা

অভিনেত্রী এবং মডেল

বয়স

২৯ বছর

জন্ম তারিখ

১৯৮৯ সালে ১১

জন্মস্থান

 

জলপাইগুড়ি, ওয়েস্ট বেঙ্গল

জাতীয়

হিন্দু

 

শিক্ষা (স্কুল)

হোলি চাইল্ড স্কুল এবং সেন্ট জেমস স্কুল

 

শিক্ষা (কলেজ)

আশুতোষ কলেজ

 

শিক্ষাগত যোগ্যতা

স্নাতক

 

প্রথম সিনেমা)

বাপি বাড়ি যা (২০১২

প্রিয় অভিনেতা

শাহরুখ খান

 

উচ্চ, ওজন এবং শরীরের পরিমাপ

উচ্চতা

৫ ফুট ৬ ইঞ্চি

ওজন

৫৫ কেজি

চোখের রঙ

কালো বাদামী

চুলের রঙ

 

হালকা বাদামী

পরিবার সদস্য

 

বাবার নাম

 

অরুণ চক্রবর্তী

মায়ের নাম

তাপসী চক্রবর্তী

বাংলা ইন্ডাস্ট্রি জনপ্রিয় নায়িকাদের মধ্যে অন্যতম হলেন মিমি চক্রবর্তী । বাংলা জগতে প্রায় সবাই তাকে চেনে। যিনি বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে প্রথম ছোট পর্দায় পা রেখেছিল । তার জনপ্রিয় সিরিয়াল গানের অপারে থেকে শুরু ক্যারিয়ার জীবনে পথ চলা । কলকাতা মিডিয়া শিল্পে প্রতিভাধর এবং সুন্দর অভিনেত্রী মধ্যে একজন । ‘’বোঝে না সে বোঝে না’’ সিনেমায় তার অভিনয় ভক্তদের মুগ্ধ করেছিল । খুব অল্প সময়ের মধ্যেই সমালোচক ও শ্রোতাদের কাছ থেকে তার অসাধারণ অভিনয়ের জন্য তিনি প্রচুর প্রশংসা অর্জন করেছিলেন । কিন্তু তার জীবনের গল্প হয়তো অনেকেরই অজানা। তাই আজ এই আর্টিকেলে মিমি চক্রবর্তী জীবনী সম্পর্কে আপনাদের জানাব ।

মিমি চক্রবর্তী জীবনী – জন্ম পরিচয় এবং পরিবারঃ

সূত্র :- archive.bbarta24 . net

মিমি চক্রবর্তী জীবনী – জন্ম পরিচয় এবং পরিবারঃ

১৯৮৯ সালে, ১১ ফেব্রুয়ারি ওয়েস্ট বেঙ্গল জলপাইগুলি জেলায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন । তার বাবা ছিলেন অরুণ চক্রবর্তী এবং মা তাপসী চক্রবর্তী। অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর শৈশব কেটেছিল অরুণাচল প্রদেশের অধীন তিরপ জেলার । তারপর মিমি জলপাইগুড়ি শহরের পূর্বপুরুষের বাড়িতে ফিরে এসে তার পরিবারের সাথে বসবাস করতে লাগল ।

মিমি চক্রবর্তী জীবনী – শিক্ষাজীবনঃ

মিমি চক্রবর্তী জলপাইগুড়ি হোলি চাইল্ড স্কুল এবং সেন্ট জেমস স্কুল পড়াশুনো করতেন । পরবর্তীকালে মিমি চক্রবর্তী পড়াশুনোর সূত্রে কলকাতায় আসেন এবং কলকাতায় আসুতোষ কলেজ থেকে ইংরেজি স্নাতক স্তর সম্পন্ন করে ।

মিমি চক্রবর্তী জীবনী – ক্যারিয়ার জীবন

সূত্র :- jagrotabangla . com

মিমি চক্রবর্তী জীবনী ক্যারিয়ার জীবন

অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী তার ক্যারিয়ার জীবন শুরু করেছিলেন তার মডেলিং নিয়ে। প্রথমে তিনি ফেমিনা মিস ইন্ডিয়াতে অংশগ্রহণ করেছিলেন । তারপরে তিনি টিভি সিরিয়ালের গানের অপারে মুখ্য ভূমিকা পালন করেছিলেন । এরপর তিনি একটি ব্লকবাস্টার মুভি চ্যাম্পিয়ন একটি ছোট ভূমিকা পালন করেছিলেন ।

২০১২ সালে “বাপি বাড়ি যা” সিনেমা তাকে অভিনেত্রীর ভূমিকায় তাকে দেখা যায় । এই সিনেমাটির জন্য তাকে টেলিসম্মান এবং এবং বিগ বাংলা রাইজিং স্টার পুরস্কার দেওয়া হয় । ওই বছরই রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত “বোঝে না সে বোঝে না” সিনেমা সোহম চক্রবর্তী বিপরীতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে। টলিউডের ইতিহাসে এই সিনেমাটি ব্লকব্লাস্টার ছিল । এই সময় তার অভিনয় দর্শকের মন কেড়ে নেয়। এরপর একের পর এক সিনেমা করে। বাঙালী বাবু ইংলিশ ম্যান, জামাই ৪২০, শুধু তোমারই জন্য, প্রলয়, গল্প হলেও সত্যি,যোদ্ধা, কাঠমাণ্ডু, কেলোর কীর্তি, গ্যাংস্টার ইত্যাদি ।

এরপর ২০১৬ সালে মিমি চক্রবর্তী “কি করে তোকে বলবো” সিনেমায় অভিনয় করেছেন অঙ্কুশ হাজরার বিপরীতে । এই সিনেমায় তিনি একজন মহৎ চরিত্রে অভিনয় করেছেন । এই সিনেমাটির জন্য তাকে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার দেওয়া হয় । যার জন্য আবারও খ্যাতি অর্জন করে। এই ভাবেই তার সিনেমা জগতে তার মুভি ধারাবাহিকভাবে জনপ্রিয় হতে থাকে । মিমি চক্রবর্তী বাংলা সিনেমা জগতের জনপ্রিয় তারকাদের জিৎ, দেব, সোহম, সঙ্গে সিনেমা পর্দা ভাগ করে নেন । ২০১৮ সালে টোটাল দাদাগিরি সিনেমায় যশ দাশগুপ্ত বিপরীতে তাকে দেখা যায় ।

মিমি চক্রবর্তী জীবনী – ব্যক্তিজীবনঃ

২০১২ সালে মিমি চক্রবর্তী বাংলা পরিচালক রাজ চক্রবর্তী সঙ্গে সম্পর্কে আবদ্ধ হয় । কিন্তু ২০১৬ সালে সেই ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বিচ্ছেদ হয়ে যায়। মিমি তার পোষ্য কুকুর চিকুকে খুব ভালোবাসে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here