রণবীর কাপুর বায়োগ্রাফি : রণবীর কাপুরের জীবনের গল্প

ranbir kapoor

ranbir kapoor

সূত্রঃ- www.bollywoodhungama . com

রণবীর কাপুর সংক্ষিপ্ত বায়োগ্রাফিঃ

পুরো নামঃ রণবীর রাজ কাপুর
পেশাঃ অভিনেতা,  প্রোডিউসার
শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ থিয়েটার অ্যান্ড ফিল্ম ইনস্টিটিউট অভিনয়
জন্মস্থানঃ মুম্বাইয়ে মহারাষ্ট্রে
জন্ম তারিখঃ ২৮ শে সেপ্টেম্বর
বয়সঃ ৩৬ বছর
জাতীয়তাঃ  ভারতীয়
ডেবিউঃ সাওয়ারিয়া

ranbir 1

সূত্রঃ- i.pinimg . com

রণবীর কাপুরের উচ্চতা -ওজন এবং শরীরের পরিমাপঃ

উচ্চতাঃ ৬ ফুট
ওজনঃ ৭৮ কেজি

চোখের রংঃ  ডার্ক গ্রাউন
চুলের রংঃ কালো

ranbirr 2

সূত্রঃ- blogs.friedeye . com

রণবীর কাপুরের পরিবারের তথ্যঃ

বাবাঃ ঋষি কাপুর

মাঃ অভিনেত্রী নিতু সিং

বোনঃ ঋদ্ধিমা কাপুর, করিশমা কাপুর, করিনা কাপুর

ranbir 3

সূত্রঃ- www.freepressjournal . in

রণবীর কাপুরের ব্যক্তিগত তথ্যঃ 

প্রিয় রংঃ লাল, সাদা, কালো

প্রিয় অভিনেতাঃ ঋষি কাপুর, অক্ষয় কুমার

প্রিয় অভিনেত্রীঃ মাধুরী দীক্ষিত, কাজল

শখঃ ভ্রমণ, ফুটবল, সিনেমা

ranbir 4

সূত্রঃ- timesofindia.indiatimes . com

রণবীর কাপুর বায়োগ্রাফি (BIOGRAPHY)

রণবীর কাপুর একজন ভারতীয় অভিনেতা। তিনি বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ করেছিলেন প্রথম সিনেমা সাওয়ারিয়ার হাত ধরে। রণবীর কাপুরের ক্যারিয়ার জীবন খুব সহজ ছিল না। তার জীবন কাটছে ভালো ও মন্দের মধ্যে দিয়ে। কিন্তু কেমনভাবে রণবীর কাপুর চলচ্চিত্র জগতে এলেন বা তার ছোট থেকে বড় হওয়ার গল্পই বা কেমন? আজ রণবীর কাপুরের গল্পই জানাব আপনাদের। আসুন দেখে নেওয়া যাক রণবীর কাপুর বায়োগ্রাফি।

সুপারিশ নিবন্ধন :-

রণবীর কাপুর বায়োগ্রাফি – শৈশব জীবনঃ

89658eb79c47776a4f744ca89f4496340982a30b_ranbir-kapoor

সূত্রঃ- iifa.cdn.prismic . io

রণবীর কাপুর ১৯৮২ সালে ২৮ শে সেপ্টেম্বর মুম্বাইয়ে মহারাষ্ট্রে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা জনপ্রিয় অভিনেতা ঋষি কাপুর এবং মা অভিনেত্রী নিতু সিং। রণবীর কাপুর চলচ্চিত্র জগতের অগ্রদূত পৃথ্বীরাজ কাপুরের এবং পরিচালক রাজ কাপুরের নাতি। তার বোন ঋদ্ধিমা কাপুর। রণবীর কাপুরের ঠাকুরদার ভাই ছিলেন বিখ্যাত অভিনেতা শশী কাপুর। তার তুতো ভাইবোন করিশমা কাপুর, করিনা কাপুর এবং নিখিল নন্দা।

রণবীর কাপুর মুম্বইয়ের মাহিমের বোম্বাই স্কটিশ স্কুলে পড়াশুনো শেখেন। শৈশব থেকে তার পড়াশুনোর প্রতি ঝোঁক ছিল না। স্কুলে পঠনপাঠনের সময় তার ফুটবল খেলার প্রতি ঝোঁক বেশি ছিল। প্রথম দিকে রণবীর কাপুরের সঙ্গে ঋষি কাপুরের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক ছিল না।

ranbir 7

সূত্রঃ- www.newwomanindia . com

দশম শ্রেণীর পরীক্ষায় সফল হওয়ার পর তিনি তার বাবার পরিচালিত আ আব লোট চালে সহকারী চলচ্চিত্র পরিচালক হিসাবে কাজ করে। সেই সময় থেকে তার বাবার সঙ্গে সম্পর্ক ভালো হতে শুরু করে।

তিনি এইচ.আর বিশ্ববিদ্যালয় অফ কমার্স অ্যান্ড ইকোনামিক্স নিয়ে তার পড়াশুনো সম্পন্ন করেছে। তারপর তিনি নিউ ইয়র্কের লি স্ট্যাসবার্গ থিয়েটার অ্যান্ড ফিল্ম ইনস্টিটিউট অভিনয় শিক্ষা নেন।

রণবীর কাপুর বায়োগ্রাফি – ক্যারিয়ার জীবনঃ

kapoor 1

সূত্রঃ- www.india . com

ভারতে ফিরে এসে ব্ল্যাক সহপরিচালক হিসাবে কাজ করেন, এটি একটি ভারতীয় নাটক যা বিশাল সাফল্য পেয়েছিল। ২০০৭ সালে প্রথম রণবীর কাপুরকে হিন্দি সিনেমায় মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যায়। ভানসালীর রোমান্টিক ট্রাজেডি  সাওয়ারিয়া মুভিতে তাকে নায়কের ভূমিকায় দেখতে পাওয়া যায়। যদিও সিনেমাটি বক্স অফিসে সাফল্য পেতে ব্যর্থ ছিল। কিন্তু রণবীর তার অভিনয়ের জন্য প্রচুর প্রশংসা পায় এবং তাকে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস থেকে সেরা পুরুষ অভিনেতার পুরস্কার দেওয়া হয়।

পরের বছর তার মুক্তি প্রাপ্ত ছবি সিদ্ধার্থ আনন্দের পরিচালিত  বাচনা এ হাসিনো তে তাকে দেখা যায় দীপিকা পাডুকোনের বিপরীতে। এই ছবিতে বক্স অফিসে ভালো সাড়া পেয়েছিল।

kapoor 2

সূত্রঃ- i.pinimg . com

২০০৯ সালে তার মুক্তি প্রাপ্ত সিনেমা অয়ন মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ওয়েক আপ সিড। তার বিপরীতে পর্দা ভাগ করে নিতে দেখা যায় কঙ্কনা সেনশর্মাকে। সিনেমার বিষয়বস্তু ছিল একটি বখাটে ধনী পরিবারের ছেলে যার ব্যক্তিত্ব পাল্টে যাবে নায়িকা আয়েশার জীবনে প্রবেশ করার পর। এই সিনেমাটি বক্স অফিসে হিট ছিল। এই সিনেমাটি জন্য অভিনেতা রণবীর কাপুর ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডসে মনোনীত হয়েছিলেন।

একই বছর তার আরেকটি সিনেমা মুক্তি পায় আজব প্রেম কি গজব কহানি। সিনেমায় ক্যাটরিনা কাইফকে, রণবীর কাপুরের সঙ্গে জুটিতে দেখা যায়। সিনেমাটি সেই বছরে সর্বশ্রেষ্ঠ সিনেমার মধ্যে চতুর্থ স্থান দখল করে নেয়। রণবীরের অভিনয় দর্শকের মন জয় করে নেয় এবং প্রচুর প্রশংসাও অর্জন করে তিনি। সিনেমাটির জন্য ফিল্মফেয়ারে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার অর্জন করে।

এরপর ২০০৯ সালে রকেট সিং সেলসম্যান অফ দ্যা ইয়ার ছবিতে অভিনয় করেন এবং প্রচুর প্রশংসা অর্জন করেন। ছবিটি ভালোই সাড়া পায় বক্স অফিসে। এর পরে রণবীর কাপুরকে ২০১০ সালে রাজনীতি, আনজানা আনজানি (সহ-অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার), চিল্লার পার্টি (২০১১) এবং ২০১১ সালে মুক্তি প্রাপ্ত সিনেমা ইমতিয়াজ আলির পরিচালিত রকস্টার এ দেখা যায়। রকস্টার মুভিটি ভালো সাফল্য অর্জন করে। এই সিনেমাটিতে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পান। রণবীর কাপুরের অভিনয়, গুড লুকস, স্মার্টনেস জন্য মহিলা ভক্তদের কাছে স্বপ্নের নায়ক হয়ে ওঠে।

Ranbir-Kapoor-2

সূত্রঃ- dailyroabox . com

২০১২ সালে সর্বোচ্চ উপার্জনকারী সিনেমা ছিল “বারফি”। তাকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং ইলিয়ানা ডি ক্রুজ সঙ্গে পর্দায় দেখা যায়। এই মুভিতে রণবীরের অভিনয়ে সকলে মুগ্ধ হয়ে যায়। এই চলচ্চিত্রটি শ্রেষ্ঠ বিদেশী ভাষা চলচ্চিত্রের জন্য একাডেমি অ্যাওয়ার্ডের জন্য ভারতের আনুষ্ঠানিক প্রবেশদ্বার হয়ে ওঠে। ফিল্মফেয়ার, স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডস এবং আইফা অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠানগুলি থেকে তাকে সেরা অভিনেতার অ্যাওয়ার্ডস দেওয়া হয়।

এরপর ২০১৩ সালে রণবীর কাপুরের আরও একটি সফল সিনেমা “ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি”, আরও একবার তার বিপরীতে ছিল অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন। এই সিনেমাটিতে কালকি কোয়েচলিন এবং অভিনেতা আদিত্য রায় কাপুরকে দেখা যায়। এটি একটি রোম্যান্টিক কমেডি সিনেমা ছিল। বাণিজ্যিকভাবে সেরা সিনেমার মধ্যে অন্যতম সিনেমা ছিল এটি। ফিল্মটি সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড মনোনয়ন লাভ করে।

kapoor 5

সূত্রঃ- rukminim1.flixcart . com

এক বছর পর তার ক্যারিয়ার জীবন একটু থমকে যায়। কারণ পরবর্তী সিনেমাগুলি একের পর এক ফ্লপ হয়। বেশরম (২০১৩), রয় (২০১৫), বোম্বে ভেলভেট (২০১৫), তামাশা (২০১৫) বক্স অফিসে ভালো সাফল্য অর্জন করতে ব্যর্থ হয়েছিল।

২০১৬ সালে করণ জোহারের ” এ দিল হ্যায় মুশকিল” সিনেমার হাত ধরে আবার তার ক্যারিয়ারের উন্নতি শুরু হয়। এই সিনেমায় তার বিপরীতে ছিলেন অনুষ্কা শর্মা এবং ঐশ্বরিয়া রায়। এই সিনেমাটি আবারও বক্স অফিসের সেরা সিনেমার মধ্যে অন্যতম ছিল। সিনেমাটির জন্য রণবীর কাপুর ফিল্মফেয়ারে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার মনোনয়ন পায়।

২০১৭ সালে রণবীরের মুক্তি প্রাপ্ত সিনেমা অনুরাগ বসুর পরিচালিত “জাজ্ঞা জাসুস”, বিপরীতে ছিলেন অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ। সিনেমাটি বক্স অফিসে মিশ্র সাফল্য অর্জন করে এবং ৬৩ তম ফিল্মফেয়ারে সেরা অভিনেতা পুরস্কার জন্য মনোনীত হয়।

২০১৮ সালে সঞ্জয় দত্তের বায়োপিকে রণবীর কাপুরকে দেখা যায়। সিনেমাটি বিষয়বস্তু ছিল অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের জীবনী নিয়ে। এই অভিনয়ের জন্য রণবীর কাপুর প্রচুর প্রশংসা অর্জন করেছেন এবং সিনেমাটি ভারতীয় চলচ্চিত্রে সর্বোচ্চ উপার্জনকারী মধ্যে অন্যতম।

রণবীর কাপুর বায়োগ্রাফি – ব্যক্তিগত জীবন 

kapoor

সূত্রঃ- www.samaa . tv

২০০৮ থেকে ২০০৯ সাল অবধি রণবীর কাপুরের সঙ্গে দীপিকা পাডুকোনের সম্পর্ক ছিল। তবে তা বিচ্ছেদ হয়ে যায়। শোনা যায় তার একমাত্র কারণ ছিল ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা। ২০০৯ সালে অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনের সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়ার পর ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে তার সম্পর্ক শুরু হয় এবং তাদের ছয় বছর সম্পর্ক ছিল। বর্তমানে রণবীর কাপুর অভিনেত্রী আলিয়া ভাটের সঙ্গে সম্পর্কে আবদ্ধ আছেন।

এই ছিল রণবীর কাপুরের বায়োগ্রাফি। আরও ভালো ভালো তথ্য পেতে আমাদের অন্যান্য পেজগুলি অনুসরণ করুন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here