ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার এবং অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার

প্রতিটি ব্যক্তির জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হল ব্যাংক অ্যাকাউন্ট। মানুষ তার রোজগারের টাকা ভবিষ্যৎ কথা ভেবে ব্যাংকে জমায় । আপনার যদি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট না থাকে অথবা আপনি যদি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করতে ইচ্ছুক থাকেন তাহলে আশা করি এই আর্টিকেলটি আপনার সাহায্য করবে। ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট করার আগে আপনার জানা উচিত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার এবং অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম।

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ভিন্ন ধরণের হয়। এবং অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য কিছু নিয়ম রয়েছে। আপনি যখন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে যাবেন, আপনাকে বিভিন্ন ধরণের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের অপশন দেবে। আপনি কোন ধরণের অ্যাকাউন্ট করবেন সেটা নির্ভর করবে আপনার সঞ্চয়ের উপর। আপনি যদি ভবিষ্যতের জন্য জমাতে চান তাহলে ফিক্সড ডিপোজিট (Fixed deposit) করতে পারেন। তাহলে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার আগে জেনে নিন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার, কোন ধরণের অ্যাকাউন্টের কেমন ধরণের সুবিধা পাওয়া যাবে এবং কেমন ভাবেই বা ব্যাংকের খাতা খোলা যায়।

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার

সূত্র:- invoice . ng

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার?

বিভিন্ন ধরণের ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট হয় কিন্তু সাধারণত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কত প্রকার বলতে গেলে চার প্রকার বলা যায়।

1. চলতি অ্যাকাউন্ট ( Current Account )
2. সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট ( Savings Account )
3. পুনর্নবীকরণ ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট ( Recurring Deposit Account )
4. ফিক্সড ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট ( Fixed deposit Account )

চলতি অ্যাকাউন্ট ( Current Account )

চলতি অ্যাকাউন্ট ( Current Account )

সূত্র:- muhasebenews . com

চলতি অ্যাকাউন্ট ( Current Account ) যে কোন ব্যক্তি নিজের নামে খুলতে পারে তবে সাধারণত ব্যবসায়ী ব্যক্তি, পাবলিক এন্টারপ্রাইজ, কোম্পানি, ফার্ম এবং প্রতিষ্ঠানের জন্য এই ধরণের অ্যাকাউন্টগুলি উপযুক্ত। এই ধরণের অ্যাকাউন্টগুলি বিনিয়োগ অথবা সঞ্চয়ের উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয় না। এই ধরণের আমানতগুলি ( ডিপোজিট ) সাধারণত তরল ডিপোজিট এবং দিনে এর লেনদেনের সংখ্যার কোন নির্দিষ্ট সীমা থাকে না।

এই ধরণের অ্যাকাউন্টের অর্থের উপর কোন সুদ দেওয়া হয় না। ব্যাংকগুলি এই ধরণের অ্যাকাউন্ট এর উপর পরিষেবা চার্জ ধার্য করে থাকে। চলতি অ্যাকাউন্টগুলিতে কোন নির্দিষ্ট মেয়াদ নেই।

কারেন্ট অ্যাকাউন্ট বা চলতি অ্যাকাউন্ট করার জন্য আপনি নগদ কার্ড, ডেবিট কার্ড, গ্যারান্টি কার্ড এবং চেক বুক দেবে এবং পাশাপাশি ওভারড্রাফটের সুবিধা প্রদান করবে।

সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট ( Savings Account )

সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট ( Savings Account )

সূত্র:- moneyinc . com

সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট ভবিষ্যতে সঞ্চয়ের উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়। কোন ব্যক্তি একক বা জয়েন্ট (যৌথ) সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট (SAVING ACCOUNT) খুলতে পারবে। বেশিরভাগ বেতনভোগী ব্যক্তি, পেনশনকারী এবং শিক্ষার্থীরা সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে। এই ধরণের অ্যাকাউন্ট খোলার সুবিধা হল ব্যাংক এই অ্যাকাউন্টের উপর সঞ্চয়ের জন্য সুদ প্রদান করে। সুদের হার দৈনিক, সপ্তাহিক অথবা মাসিক বা বার্ষিক ভিত্তিতে হতে পারে। সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা তাদের প্রয়োজনমতো জমা রাখা অর্থ তুলে নিতে পারে।
ভবিষ্যতের ছুটি, বিবাহের অর্থায়ন, গাড়ি কেনার ইত্যাদি পূরণের জন্য কোনও স্বল্প-মেয়াদী আর্থিক লক্ষ্যমাত্রাগুলির জন্য এই ধরনের অ্যাকাউন্ট আদর্শ।

সঞ্চয় অ্যাকাউন্টে সুদের আয়ের হার ৪ শতাংশ অথবা ৬ শতাংশ পাওয়া যায়। এই ধরণের অ্যাকাউন্টে ডিপোজিটের পরিমাণ এবং সংখ্যার কোন সীমাবদ্ধতা নেই। কিছু কিছু ব্যাংক অ্যাকাউন্টি কার্যকর রাখতে ন্যূনতম অর্থের পরিমাণ বজায় রাখতে সুপারিশ করে।এই অ্যাকাউন্টগুলি সাধারণত চেক প্রদানের সুবিধা বহন করে।

পুনর্নবীকরণ ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট (Recurring Deposit Account)

পুনর্নবীকরণ ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট ( Recurring Deposit Account )

সূত্র:- fastread . in

পুনর্নবীকরণ ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট ( Recurring deposit account ) সাধারণত নির্দিষ্ট সময়সীমা জন্য কিছু পরিমাণ অর্থ সঞ্চয় এবং উচ্চ সুদের হার অর্জনের জন্য খোলা হয়। এই ধরণের অ্যাকাউন্ট একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ, যা নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ নির্দিষ্ট সময়ের জন্য প্রতি মাসে জমা দেওয়া হয় এবং নির্দিষ্ট সময়ের শেষে সুদসহ মোট পরিমাণ অর্থ প্রদান করা হয়।

এই ডিপোজিটের মেয়াদ অন্তত ছয় মাস এবং সর্বাধিক দশ বছর। সুদের হারগুলি সময়কাল এবং ব্যাংকগুলির উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন পরিকল্পনাগুলির জন্য পরিবর্তিত হয়।

ফিক্সড ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট (Fixed deposit Account)

ফিক্সড ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট ( Fixed deposit Account )

সূত্র:- consumer-voice . org

ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্টে (এফডি অ্যাকাউন্ট নামেও পরিচিত), নির্দিষ্ট সময়ের জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ ব্যাংকে জমা হয়। এই মেয়াদে জমা দেওয়া অর্থ মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে প্রত্যাহার করা যাবে না।

তবে, প্রয়োজনের ক্ষেত্রে, আমানতকারী পেনাল্টি পরিশোধ করে অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্দিষ্ট আমানত বন্ধ করার জন্য অনুরোধ করতে পারেন। শাস্তি পরিমাণ ব্যাংকের সাথে পরিবর্তিত হয়।

একটি উচ্চ সুদের হার নির্দিষ্ট আমানতের উপর পরিশোধ করা হয়। নির্দিষ্ট আমানতের জন্য প্রদেয় সুদের হার পরিমাণ, সময়সীমার এবং ব্যাংক থেকে ব্যাংক পর্যন্ত পরিবর্তিত হয়।

সারকথাঃ

বেশিরভাগ অ্যাকাউন্ট ভিন্ন উপায়ে অ্যাক্সেস করা যেতে পারে। ব্রাঞ্চের মাধ্যমে, ইন্টারনেটের মাধ্যমে অথবা টেলিফোনের মাধ্যমে । আবার কিছু অ্যাকাউনট পোস্ট অফিসের মাধ্যমে অথবা স্মার্টফোন অ্যাপের মাধ্যমে অ্যাক্সেস করা যেতে পারে ।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

প্রঃ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করতে কি কি প্রয়োজন?

উঃ ছবি, পাসপোর্ট, আধার কার্ড, প্যান কার্ড ।

প্রঃ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে কত টাকার দরকার হয়?

উঃ কোন ব্যাংকে একহাজার টাকা আবার কোন ব্যাংকে পাঁচশো টাকা ।

প্রঃ ব্যাংক অ্যাকাউণ্ট করতে কি ভোটার কার্ড প্রয়োজন?

উঃ ব্যাংক অ্যাকাউণ্ট করতে ভোটার না হলে আধার কার্ড প্রয়োজন । তবে প্যান কার্ড মাস্ট।

প্রঃ কোন প্রকার অ্যাকাউণ্ট করাটা ভালো?

উঃ সেটা আপনার উপর নির্ভর করছে। আপনি কি একক অ্যাকাউণ্ট করবেন না জয়েন্ট।

2 COMMENTS

  1. সঞ্চয় একাউন্টে বিদেশ থেকে টাকা পাঠানো যায় কিনা জানতে চাই

  2. আচ্ছা সঞ্চয় ব্যাংকে একজন চাইলে কি দুটো একাউন্ট খুলতে পারে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here