জেনে নিন শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য কি

শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য

শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য

১৯৯৪ সালের আইন অনুযায়ী কোম্পানি তার শেয়ারকে সম্পূর্ণভাবে স্টকে রূপান্তরিত করতে পারে। শেয়ার হল কোম্পানির ক্ষুদ্র অংশ। অন্যদিকে স্টক হল সদস্যের সংগ্রহ শেয়ার যা সম্পূর্ণরূপে পরিশোধিত। যখন শেয়ার স্টকে রূপান্তরিত হয়ে যায় তখন শেয়ারহোল্ডাররা স্টক হোল্ডারে পরিণত হয়ে যায়। শেয়ারের মূল্যে সমান হলেও স্টকের মূল্যে ভিন্ন হয়। শেয়ার স্টকে রূপান্তরিত হলেও শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য বিরাজমান। তাই কেউ যদি শেয়ার বিনিয়োগ করতে চায় তাহলে শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে। আসুন এই আর্টিকেল থেকে শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য জেনে নিই।

শেয়ার কি?

শেয়ার কি

সূত্র:- tradingtipsindia . com

শেয়ার হল কোম্পানির শেয়ার মূলধনের ক্ষুদ্রতম বিভাগ যা শেয়ারহোল্ডারদের মালিকনার অনুপাতকে প্রতিনিধিত্ব করে। শেয়ারগুলি শেয়ার এবং শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে সংযুক্ত। কোম্পানির মূলধন বাড়ানোর জন্য শেয়ারগুলি স্টক মার্কেটে বিক্রির জন্য রূপান্তরিত করা হয়।

শেয়ারগুলি প্রধানত দুটি বিভাগে বিভক্ত করা হয়।

  1. ইক্যুইটি শেয়ার
  2. প্রেফারেন্স শেয়ার

ইক্যুইটি শেয়ার এমন এক ধরেনের কোম্পানির সাধারণ শেয়ার যা ভোটিংয়ের অধিকার বহন করা হয়। একটি কোম্পানি তিনটি উপায়ে শেয়ার ইস্যু করতে পারে। পার, প্রিমিয়াম, ডিসকাউন্ট।

স্টক কি?

স্টক কি

সূত্র:- moneyjournals . com

একটি পাবলিক কোম্পানি তাদের শেয়ারগুলি জনসাধারণের কাছে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে ইস্যু করে থাকে। পাবলিক কোম্পানি তাদের শেয়ার জনসাধারণের কাছে বিক্রি করে দিলে, সেই শেয়ারগুলি নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জে তারা ( জনসাধারণ) নিজেদের মধ্যে স্টক ট্রেড করতে পারে।

যখন আপনি কোনও কোম্পানির শেয়ার ক্রয় করছেন আপনি সেই কোম্পানির সহ- মালিকনার অধিকার লাভ করেন। তাই কোম্পানির মুনফার অধিকারের উপর আপনার অধিকার থাকে।

শেয়ার স্টকের মধ্যে পার্থক্য কি ?

শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য কি

সূত্র:- keydifferences . com

  1. সংজ্ঞাঃ

কোম্পানির মূলধন ছোট ছোট অংশে ভাগ করা হয় যা শেয়ার নামে অভিহিত করা হয়।

সদস্যের সংগ্রহের শেয়ার যা সম্পূর্ণরূপে পরিশোধিত সেটা হল স্টক।

সুপারিশ নিবন্ধন :- 

  1. চিহ্নিতকরণঃ

শেয়ার এক ইউনিট স্টকে চিহ্নিত করে যা বিনিয়োগকারীদের দ্বারা কেনা বা বিক্রি করা যেতে পারে।

স্টক একটি কর্পোরেশন মালিকনা প্রতিনিধিত্ব চিহ্নিত করে।

সারকথাঃ

অর্থনৈতিক এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলির উপর নির্ভর করে শেয়ারের দাম কমতে ও বাড়তে পারে।

  1. পরিশোধঃ

শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য হল শেয়ারের মূল্যে সম্পূর্ণ বা আংশিক ভাবে পরিশোধিত হতে পারে।

স্টক শুধুমাত্র সম্পূর্ণরূপে পরিশোধিত হয়।

  1. প্রকারভেদঃ

কোম্পানি সাধারণ শেয়ার বা প্রেফারেন্স শেয়ার উভয়েই শেয়ার বিক্রি করতে পারে। সাধারণ স্টক বিনিয়োগ পরিচালক কোম্পানির বোর্ডের সময় ভোট দেওয়ার অধিকারের মত সুবিধাগুলি সহ বিনিয়োগকারীদের সরবরাহ করে এবং আপনি সাধারণত নিজের ভাগের প্রতি এক ভাগ ভোট দিতে পাবেন। প্রেফারেন্স শেয়ারহোল্ডাররা লভ্যাংশ পাওয়ার প্রথম লাইন, যা একটি ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে শেয়ারহোল্ডারদের কাছে কোনও সংস্থার দ্বারা বিতরণ করা উপার্জন, তবে সাধারণত ভোটিংয়ের অধিকার থাকে না।

  1. ক্রয় এবং বিক্রয়ঃ

স্টক এক্সচেঞ্জ শেয়ার ক্রয় এবং বিক্রয় করা হয় এবং স্টক মার্কেটে উল্লেখ করা হয়। সাধারণ স্টক এক্সচেঞ্জগুলি হল নিউ ইয়র্ক স্টক এক্সেচেঞ্জ এবং আমেরিকান স্টক এক্সেচেঞ্জ। কোম্পানি এক্সচেঞ্জ বিক্রি করার জন্য তাদের স্টকগুলি তালিকাভুক্ত করে। যেখানে স্টক ব্রোকারদের মাধ্যমে শেয়ার ক্রয় এবং বিক্রয় করে থাকে। ইন্টারনেটের আবির্ভাবের সাথে, বিনিয়োগকারীরা এখন অনলাইনে স্টক লেনদেন করতে পারবেন।

  1. শেয়ার এবং স্টকের সংখ্যাঃ

শেয়ারের সংখ্যা সবসময় নির্ধারিত করা থাকে। তাই কোম্পানি ইচ্ছামতো শেয়ারের সংখ্যা কমাতে বা বাড়াতে পারে না।

স্টকের সংখ্যা নির্ধারিত থাকে না। তাই শেয়ারের সংখ্যা কম বা বেশি হতে পারে।

  1. দাম পরিবর্তনঃ

শেয়ার ইস্যু করার সময় দাম নির্ধারিত করা হয়ে থাকে। তাই এর দাম পরিবর্তন হয় না।

কিন্তু যখন স্টক ইস্যু করা হয় তার দাম শেয়ারের পরিশোধিত দামে নির্ধারিত করা হয়। এর জন্য স্টকের দামের পরিবর্তন হতে পারে।

  1. নির্দিষ্ট সংখ্যাঃ

শেয়ারের নির্দিষ্ট সংখ্যা রয়েছে কিন্তু স্টকের কোন নির্দিষ্ট সংখ্যা নেই।

শেয়ার ও স্টকের মধ্যে পার্থক্য নিবন্ধে শেয়ার এবং স্টকের ভিন্নতা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন। আশাকরি, এবার আপনি শেয়ার মার্কেটে নিশ্চিন্ত ভাবে ট্রেড করতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here