চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়

চোখের নিচে কালো দাগ

চোখের নিচে কালো দাগ

সূত্র :- parenting-bucket.s3.amazonaws . com

চোখের নিচে কালো দাগ আপনার সৌন্দর্যতা নষ্ট করে দিতে পারে। প্রায় সকলের কোন না কোন সমস্যার কারণে চোখের ডার্ক সার্কেল পড়ে। এই কালো দাগ আমাদের সব সাজগোজে ব্যাঘাত ঘটায়। অনেকে তো এই দাগ নিয়ে মুশকিলে পড়ে যান। মাঝে মধ্যে নামি দামি আন্ডার আই ক্রিম ব্যবহার করেও কোন লাভ হয় না। তবে আপনি জানেন কি কিছু প্রাকৃতিক উপাদান আছে যা কোন রকম সাইড এফেক্ট ছাড়াই আপনার চোখের নিচে কালো দাগ চটজলদি দূর করতে পারে।

যেহেতু চোখের নীচ খুব স্পর্শকাতর স্থান। তাই খুব সাবধানে নিতে হয় তার যত্ন। এর জন্য প্রাকৃতিক উপাদান সেরা হবে। তবে কোন কোন প্রাকৃতিক উপাদানে আপনার চোখের নীচে কালো দাগ রিমুভ হবে তা জেনে নিতে পারেন আজকের এই নিবন্ধ থেকে। তবে কালো দাগ দূর করার টোটকা জানার আগে আমরা জেনে রাখি কেন চোখের নীচে কালি বা কালো দাগ পড়ে।

আরও পড়ুনঃ চুলের যত্নে ভিনিগার: চুলের যত্নে আপেল সাইডার ভিনিগার

চোখের নীচে কালো দাগ পড়ার কারণঃ

চোখের নীচে কালো দাগ পড়ার কারণঃ

সূত্র :- blog.beautybridge . com

চোখের নীচে কালো দাগ বিভিন্ন কারনের জন্য পড়ে থাকে। কখনো কখনো পুষ্টির অভাব হলে এই দাগ পড়ে থাকে। চোখের নীচে ডার্ক সার্কেল পড়ার কারণগুলি হল-

  • ঘুম না হলে।
  • বেশি রাতে জেগে থাকলে।
  • মানসিক চাপে।
  • ক্লান্তি।
  • হরমোনের পরিবর্তনে।
  • শরীরে পুষ্টির উপাদান কম থাকলে।

প্রাকৃতিক উপাদানে চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার উপায়ঃ

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য আলুঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য আলুঃ

আলু এনজাইম এবং ভিটামিন সি ধারন করে যা ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সহায়তা করে। পাশাপাশি চোখের নীচে কালো দাগ দূর করতে সহায়তা করে।

কাঁচা আলু কেটে পেস্ট করে রস বের করে নিন। আলুর রসটি তুলোর বলে করে ডার্ক সার্কেল অংশে লাগিয়ে রাখুন। ১০ মিনিট পর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নেবেন। দিনে ২-৩ বার কিছুদিন ব্যবহার করলে ধীরে ধীরে কালো দাগ দূর হবে।

সারকথাঃ

আলুর রস চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য একটি দুর্দান্ত ঘরোয়া উপাদান।

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করতে টমেটোঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করতে টমেটোঃ

সূত্র :- images.lifealth . com

টমেটো লাইকোপিন ধারন করে যা আমাদের স্কিনের জন্য তো ভালোই পাশাপাশি চোখের নীচে কালো দাগের জন্য উপকারি। এই দাগ দূর করতে এক চামচ টমেটো রস এবং এক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে ডার্ক সার্কেল অংশে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করে নিন।

২-৩ সপ্তাহ দিনে দুইবার এইভাবে আপ্লাই করলে উপকৃত হবেন। তবে আপনার যদি সেনসিটিভ ত্বক হয় তাহলে মিশ্রণটিতে এক টেবিল চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে নেবেন।

সারকথাঃ

লাইকোপিন উপাদান আমাদের ত্বকের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে।

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করতে গোলাপ জলঃ

সূত্র :- i1.wp . com

গোলাপ জলে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ত্বকের কোষগুলি শক্তিশালী করে এবং ত্বক রিফ্রেশ করতে সহায়তা করে। পাশাপাশি চোখের নীচে কালো দাগ দূর করে।

গোলাপ জল তুলোর বলে ভিজিয়ে চোখের নীচে লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করে নিন। নিয়মিত চার সপ্তাহ এইভাবে প্রয়োগ করলে ভালো ফল পাবেন।

আরও পড়ুনঃ প্রাকৃতিক উপাদানেই রয়েছে ত্বকের বলিরেখা দূর করার উপায়

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করতে বাদাম তেলঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করতে বাদাম তেলঃ

সূত্র :- naturallydaily . com

বাদামের তেল আমাদের ত্বকের জন্য যথেষ্ট উপকারি। পাশাপাশি চোখের নীচের কালো দাগ রিমুভ করে। আপনি বাদাম অয়েলের মধ্যে সুইট আমন্ড অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। কারণ আমন্ড অয়েল ভিটামিন ই এর ভালো উৎস যা খুব দ্রুত আমাদের চোখের কালো দাগ রিমুভ করতে সহায়তা করে।

ঘুমানোর আগে কয়েক ফোঁটা আমন্ড অয়েল চোখের নীচে আক্রান্ত অংশে লাগিয়ে মাসাজ করুন এবং সকালে উঠে পরিষ্কার ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নেবেন। কিছুদিন ব্যবহার করার পর আপনার চোখের নীচে কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

সারকথাঃ

বাদাম অয়েল আমাদের ত্বক মসৃন এবং নরম করে তোলে।

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য গ্রিন টি ব্যাগঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য গ্রিন টি ব্যাগঃ

সূত্রঃ- Instagram

গ্রিন টি ট্যানিন ধারন করে যা অ্যাস্ট্রিনজেন্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যা ডার্ক সার্কেল হ্রাস করতে সহায়তা করে। জলে গ্রিন টি ব্যাগ চুবিয়ে ফ্রিজে রাখুন কিছুক্ষণের জন্য। এই ঠাণ্ডা গ্রিন টি ব্যাগটি আপনার চোখের উপর ১৫ মিনিট রেখে দিন। ১৫ মিনিট বাদে মুখ পরিষ্কার করে নেবেন। নিয়মিত ব্যবহার করলে উপকৃত হবেন।

সারকথাঃ

চোখে গ্রিন টি ব্যাগ ব্যবহার করলে চোখের নীচের অংশে রিফ্রেশ অনুভব হয়।

আরও পড়ুনঃ শসার রসের উপকারিতাঃ শসার রসের জাদুকারী গুনাগুণ

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য পুদিনা পাতাঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য পুদিনা পাতাঃ

সূত্র :- encrypted-tbn0.gstatic . com

পুদিনা পাতা চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য একটি চমৎকার প্রাকৃতিক উপাদান। পুদিনা পাতা পেস্ট করে চোখের চারপাশে লাগিয়ে নিন। এই পেস্টটি কিছু সময়ের জন্য রেখে দিন এবং তারপর জল দিয়ে চোখ ধুয়ে ফেলুন। এটি চোখের নীচে কালো দাগ থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করবে।

আরও পড়ুনঃ জেনে নিন ঘরোয়া পদ্ধতিতে রূপচর্চা অসাধারণ টিপস

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য মধুঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য মধুঃ

সূত্র :- blog.doemal . com

মধু অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং পুষ্টিকর উপাদানের একটি পাওয়ার হাউস। পাশাপাশি এটি ত্বকের কালো দাগ দূর করতে চটজলদি কাজ করে। যেমন চোখের নীচের কালো দাগ দূর করতে এটি ম্যাজিকের মতো কাজ করে।

বাদামের তেল এবং মধু একসঙ্গে মিশিয়ে রাতে ঘুমানোর আগে চোখের চারপাশে লাগিয়ে নিন। পরের দিন সকালে উঠে ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করে নিন। কিছুদিন এইভাবে ব্যবহার করলে খুব দ্রুত কাজ দেবে।

সারকথাঃ

মধু ত্বক নরম করে রাখে দীর্ঘসময় ধরে।

আরও পড়ুনঃ রূপচর্চায় লেবু ব্যবহারে দেখে নিন কত উপকার

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য অ্যালোভেরা রসঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য অ্যালোভেরা রসঃ

সূত্র :- healthcomplain . com

অ্যালোভেরা জেল ত্বক মসৃণ এবং হাইড্রেট করে। পাশাপাশি ডার্ক সার্কেল দূর করতে সহায়তা করে। অ্যালোভেরা জেল চোখের নীচে লাগিয়ে কিছুক্ষণ মাসাজ করুন। ১০-১৫ মিনিট রেখে পরিষ্কার করে নিন। দিনে দুইবার ব্যবহার করলে উপকৃত হবেন।

সারকথাঃ

অ্যালোভেরা জেল অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা চোখের নীচে কালো দাগ দূর করে।

  • চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য শসাঃ

চোখের নীচে কালো দাগ দূর করার জন্য শসাঃ

সূত্র :- stylesatlife . com

শসা আমদের চোখের নীচে ডার্ক সার্কেল রিমুভ করতে কতটা উপকার তা হয়তো নতুন করে বলার কিছু নেই। শসা ভিন্ন ধরণের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ধারন করে যা চোখের নীচের কালো দাগ দূর করতে সহায়তা করে।

শসার দুটি স্লাইস কেটে ৩০ মিনিটের জন্য ফ্রিজে রেখে দিন। এবার এই ঠাণ্ডা শসার স্লাইস দুটি চোখের পাতার উপর ১০ মিনিট রেখে দিন। ঠাণ্ডা জলে চোখ ধুয়ে নেবেন, দিনে ২ বার নিয়মিত করলে এক সপ্তাহের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ ত্বক এবং চুলের জন্য আমন্ড অয়েলের উপকারিতা

চোখের নীচে কালো দাগ রিমুভ করতে উপরের এই টোটকাগুলি ট্রাই করে দেখুন উপকৃত হবেন। পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান করুন। আশা করি আজকের এই নিবন্ধটি আপনাদের ভালো লাগবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here