হার্ট ভালো রাখতে নিয়মিত হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম

হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম

নিয়মিত যোগব্যায়ামের মাধ্যমে আমাদের ফুসফুস শক্তিশালী হয়, শ্বাস প্রক্রিয়া ভালো থাকে যা আমাদের হৃদয়ের জন্য অত্যন্ত উপকারি। যোগব্যায়াম নিয়মিত করলে হাই ব্লাড প্রেসার থেকে কিছুটা রেহাই পাওয়া সম্ভব। আপনার হৃদয়কে শক্তিশালী করার সর্বোত্তম উপায় হল ব্যায়াম করা। আপনার যদি হৃদরোগের ইতিহাস থাকে তবে আপনার নিয়মিত ব্যায়ামের রুটিন বিকাশ করা উচিত।

হার্ট

source

হার্ট (Heart)

হার্ট আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আজকাল আমদের দেশে হার্টের রোগ মানুষ বেশি আক্রান্ত হছে। দিনের পর দিন এই রোগ প্রবল আকার ধারন করছে। যার ফলে মানুষ হার্ট অ্যাটাক রোগে প্রাণ হারাচ্ছে। এই রোগের একমাত্র কারণ খাবার এবং আরেকটি ব্যায়ামের অভাব। ব্যায়াম বিভিন্ন রোগের চমৎকার ঔষধ। আপনি যদি হৃদরোগের হাত থেকে দূরে থাকতে চান তাহলে নিয়মিত হার্টে ভালো রাখার ব্যায়াম অনুশীলন করুন।

আজকের এই নিবন্ধ থেকে জেনে নিন কোন ব্যায়ামগুলি করার মাধ্যমে আমরা আমাদের হৃদয় ভালো রাখতে পারব। আজকের এই নিবন্ধে হার্টভালো রাখার ব্যায়াম আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব যা আপনার হার্ট ভালো রাখতে সহায়তা করবে।

হার্টের জন্য ব্যায়াম করা কেন প্রয়োজন

source

আরও পড়ুনঃ ওজন বাড়ানোর ব্যায়াম যা ওজন বৃদ্ধি করবে দ্রুত

হার্টের জন্য ব্যায়াম করা কেন প্রয়োজন (Why Exercise is Important for Heart)

ব্যায়াম যেমন আপনার দেহের অন্যান্য পেশী শক্তিশালী করে, তেমনি এটি আপনার হার্টের পেশী আরও কার্যকর এবং আপনার সারা শরীর জুড়ে রক্ত ​​পাম্প করতে আরও ভাল সক্ষম হতে সাহায্য করে। আপনি যখন নিয়মিত ব্যায়াম করেন, তখন আপনার দেহের টিস্যুগুলি আপনার রক্ত ​​থেকে অক্সিজেন টানতে আরও ভাল কাজ করে। এটি আপনার হৃদয়কে চাপের মধ্যে আরও ভাল কাজ করার অনুমতি দেয় এবং উচ্চ-তীব্রতার ক্রিয়াকলাপগুলির সময় আপনাকে বাতাস থেকে বাঁচিয়ে রাখে।
এছাড়াও নিয়মিত ব্যায়ামের ফলেঃ

  • আপনার ওজন কম রাখে।
  • আপনার মেজাজ উন্নতি করে।
  • কিছু ধরণের ক্যান্সারের জন্য আপনার ঝুঁকি হ্রাস করে।
  • আপনার ভারসাম্য উন্নতি করে।
  • আপনাকে আরও শক্তি যোগায়।
  • আপনাকে আরও ভাল ঘুমাতে সাহায্য করে।

নিয়মিত হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম (Exercise for Heart)

একটি সুস্থ হার্ট পাওয়ার জন্য আমাদের প্রত্যেকের উচিত নিয়মিত কিছু আসন অনুশীলন করা। প্রাণায়াম আমাদের হার্টের জন্য খুব ভালো আসন। এখানে হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম করার জন্য কয়েকটি ব্যায়াম দেওয়া হল।

1. বৃক্ষাসনঃ

বৃক্ষাসনঃ

source

বৃক্ষাসনে একজন ব্যক্তির অবস্থান গাছের মতো থাকে। এটি খুব সহজ একটি আসন। এই ব্যয়ামটি আপনার পায়ের মাংসপেশী মজবুত করে পাশাপাশি আপনার হার্টে মজবুত রাখতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুনঃ নিয়মিত হাঁটু ব্যথার ব্যায়াম করুন এবং সুস্থ থাকুন

বৃক্ষাসন করার নিয়মঃ

  • একটি ম্যাটে সোজা হয়ে দাঁড়ান।
  • এবার হাত দুটি প্রথমে বুকের কাছে নিয়ে আসুন এবং হাতের তালু দুটি নমস্কার ভঙ্গিতে রাখুন। (যেমন ছবিতে রয়েছে)
  • এবার ধীরে ধীরে নমস্কার ভঙ্গিতে হাত দুটি মাথার উপরের দিকে রাখুন।
  • এবার ডান পা মাটি থেকে উঠিয়ে বা পায়ের উরুর উপর রাখুন। আপনার ডান পায়ের পাতা যেন বাঁ পায়ের উরুর সঙ্গে লেগে থাকে।
  • সোজাভাবে তাকিয়ে থাকুন কিছুক্ষণ। এইভাবে ২০ সেকেন্ড ব্যায়ামটি করুন। তবে একটু বিশ্রাম নিয়ে অনুরুপ ভাবে বাঁ পায় তালু ডান পায়ের উরুতে রাখবেন।

বৃক্ষাসন করার নিয়মঃ

১৫ -২০ সেকেন্ড

আরও পড়ুনঃ জেনে নিন ঘরে বসে ওজন কমানোর ব্যায়াম

2. তাড়াসনঃ

তাড়াসনঃ

source

এই ব্যয়ামটি আমাদের পুরো বডি ফিট রাখে পাশাপাশি আমাদের হার্টের ভালো রাখতে কার্যকর। নিয়মিত হার্ট ভালো রাখার এই ব্যায়ামটি করলে হৃদয় সুস্থও থাকবে

আরও পড়ুনঃ যোগ ব্যায়ামের সুবিধাঃ নিয়মিত যোগাসনের সুবিধা কি কি

তাড়াসন করার নিয়মঃ

  • প্রথমে একটি যোগব্যায়ামের ম্যাটের উপর সোজাভাবে দাঁড়ান।
  • আপনার পা দুটির মাঝখানে এক ফুট দূরত্ব রেখে দাঁড়ান।
  • বডি স্থির রাখুন এবং শরীরের ওজন উভয় সমানভাবে দুই পায়ের উপর রাখুন।
  • বাহু মাথার উপরে তুলুন এবং হাত দুটি খাঁড়া রাখুন।
  • এবার হাতের তালু ঘুরিয়ে নিন এবং ধীরে ধীরে হাত দুটি নীচে নামিয়ে সোজাভাবে রাখুন ঠিক যেমন ছবিতে রয়েছে। এইভাবে ২০-৩০ সেকেন্ড থাকুন।

তাড়াসন করার সময়ঃ

নিয়মিত ২০-৩০ সেকেন্ড

3. উত্কটাসনঃ

উত্কটাসনঃ

উত্কটাসন চেয়ার পোজ নামেো পরিচিত। এই হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম নিয়মিত অনুশীলন করলে দুর্বল হৃদয় শক্তিশালী হয়। এছাড়াও এই ব্যায়ামটি নিয়মিত অনুশীলন করলে হাঁটুর বেদনা কম হয়

উত্কটাসন করার নিয়মঃ

  • প্রথমে সোজা হয়ে দাঁড়ান।
  • এবার হাত দুটি খাঁড়া ভাবে উপরে মাথার দুপাশে উপরে রাখুন যেমন ছবিতে রয়েছে।
  • এবার মেরুদণ্ড সোজা রেখে চেয়ারে বসার মতো পোজ করুন। খেয়ার রাখবেন বুক যেন ঝুঁকে না যায়। মেরুদণ্ড সোজা রেখে পা দুটি ভাঁজ করে চেয়ার বসার মতো পোজে ৩০ থেকে ৬০ সেকেন্ড থাকুন।

উত্কটাসন করার সময়ঃ

নিয়মিয় ২০-৩০ সেকেন্ড

আরও পড়ুনঃ অ্যাভোকাডো : স্বাস্থ্যের জন্য অ্যাভোকাডোর উপকারিতা

4. বীরভদ্রাসনঃ

বীরভদ্রাসনঃ

source

বীরভদ্রাসন একটি মুদ্রা যোদ্ধা রুপে বলা হয়ে থাকে। এই আসন শরীরের জন্য একটি ভালো ব্যায়াম পাশাপাশি হার্টের জন্যও

বীরভদ্রাসন করার পদ্ধতিঃ

  • প্রথমে ব্যায়াম করার ম্যাটে সোজা হয়ে দাঁড়ান। দুটি পায়ের মাঝে ৪ ইঞ্চ ফাঁক রেখে।
  • ডানদিকের হাঁটু ৯০ ডিগ্রি কোন করে ডানদিকে ভাঁজ করুন। একইভাবে বামদিকের পা বামদিকে নিয়ে যান।
  • মেরুদণ্ড সোজা রেখে হাত দুটি উপরের দিকে তুলে দিন ঠিক যেমন দেখতে পারছেন। এইভাবে নিয়মিত ৩০ থেকে ৬০ সেকেন্ড এই ব্যায়াম অনুশীলন করুন।

বীরভদ্রাসন করার সময়ঃ

নিয়মিত ২০-৩০ সেকেন্ড।

আরও পড়ুনঃ দৌড়ানোর পর খাবারঃ দৌড়ানোর পর খাদ্য তালিকা কি কি রাখা উচিত?

এই হার্ট ভালো রাখার ব্যায়াম নিয়মিত অনুশীলন করুন হার্ট তো ভালো রাখতে সহায়তা করবে পাশাপাশি আপনার বডি ফিট থাকবে।

Key Point: ব্যায়াম অনুশীলনের পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ করতে হবে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. আপনার হৃদয়ের জন্য সেরা ব্যায়াম কোনটি?
A. সাধারণ ব্যায়ামগুলো যেমন – হাঁটা, দৌড়নো, সাঁতার কাটা, সাইকেল চালানো।

Q. হার্টের জন্য ব্যায়ামগুলো কতক্ষণ করা উচিত?
A. দিনে কমপক্ষে ৩০ মিনিট, সপ্তাহে কমপক্ষে পাঁচ দিন।

Q. জল খাওয়া কি হার্ট অ্যাটাক থেকে রোধ করতে পারে?
A. কার্ডিয়াক বিশেষজ্ঞের মতে, দিনের একটি নির্দিষ্ট সময়ে জল পান রাতে হার্ট অ্যাটাক থেকে রোধ করতে পারে। বিছানার আগে জল খেয়ে ঘুমোলে ভোরের প্রথম দিকে হৃদরোগের আক্রমণ প্রতিরোধ করতে আপনার রক্ত সারা শরীর জুড়ে রাখে।

Q. আপনি অনুশীলন না করলে আপনার হৃদয়ের কী হয়?
A. আপনি যখন অনুশীলন বন্ধ করেন, তখন অনেকগুলি শারীরবৃত্তীয় পরিবর্তন ঘটে। আপনি কার্ডিওভাসকুলারের যে উন্নতি লাভ করেছেন তা হারাতে শুরু করবে, যেমন আপনার হৃদয়ের আরও দক্ষতার সাথে রক্ত পাম্প করার ক্ষমতা, অক্সিজেন প্রক্রিয়া করার জন্য আপনার পেশীগুলির বর্ধিত ক্ষমতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here