নিপা ভাইরাস কি, লক্ষণ এবং প্রতিরোধের উপায়

নিপা ভাইরাস

নিপা ভাইরাস

সূত্র :- english.cdn.zeenews . com

আপনারা নিশ্চয়ই নিপা ভাইরাস নামটি শুনেছেন। আমরা অনেক ভাইরাস সম্পর্কে জানি। তবে নিপা ভাইরাস এমন একটি ভাইরাস যা হাজার হাজার মানুষের প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে। মানুষ এবং প্রাণী উভয়ই এই ভাইরাসের সংক্রামিত হতে পারে। এই ভাইরাস বাদুড়ের থেকে ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুনঃ ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণঃএই লক্ষণগুলি দেখলেই বুঝবেন ডেঙ্গু জ্বর

যদি কোন ব্যক্তি নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয় তার সংস্পর্শে অন্য কোন ব্যক্তির শরীরে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। এটি একটি ভাইরাস সংক্রামিত রোগ। এটি ভারতে খুব তীব্র আকার ধারন করেছে। এই ভাইরাসের থেকে আমাদের দূরে থাকতে হবে কিন্তু তা কেমনভাবে?

আজকের নিবন্ধে আমরা আপনাদের জানাব কি এই নিপা ভাইরাস, এই ভাইরাসের লক্ষণ এবং প্রতিরোধের উপায়।

আরও পড়ুনঃ টিউমার চিকিৎসা: ব্রেইন টিউমার কি, লক্ষণ এবং চিকিৎসা

নিপা ভাইরাস কি?

নিপা ভাইরাস কি

WHO এর অনুসারে নিপা ভাইরাস হল এমন একটি ভাইরাস যা প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া একটি রোগ। যা একজনের থেকে অন্যজনের হতে পারে। নিপা ভাইরাস ফল ভক্ষণকারী বাদুড়ের থেকে হয়। যখন এই ফলভক্ষণকারী বাদুর গাছের ফল খায়, তখন ওই ফলে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। আর যখন মানুষ সেই ফল খেয়ে থাকে তখন মানুষের শরীরে সেই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুনঃ জন্ডিস কেন হয়, জন্ডিসের লক্ষণ এবং চিকিৎসা

নিপা যেহেতু একটি ভাইরাসঘটিত রোগ তাই কোন ব্যক্তি যদি এই ভাইরাস রোগে একবার আক্রান্ত হয় তাহলে তার চারপাশের মানুষের মধ্যে এই ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে প্রাণ চলে যেতে পারে।

আরও পড়ুনঃ ডেঙ্গু জ্বর প্রতিরোধঃ ডেঙ্গু প্রতিরোধ করার উপায়

নিপা ভাইরাসের লক্ষণঃ

নিপা ভাইরাসের লক্ষণঃ

নিপা ভাইরাস হলে তার উপসর্গগুলি বোঝা মুশকিল হয়ে পড়ে। কারন এই ভাইরাসের লক্ষণগুলি শুরু শুরুতে সাধারন ভাইরাসের মতো হয়ে থাকে। সাধারণত এই ভাইরাস পাঁচ থেকে চোদ্দ দিনের মধ্যে এই ভাইরাসের লক্ষণ বুঝতে পারে আর সেই লক্ষণ গুলি হল –

  • তীব্র জ্বর।
  • মাথা ব্যথা।
  • ভুলে যাওয়া।
  • অলস।
  • শ্বাস নিতে অসুবিধা।
  • বমি বমি ভাব।
  • গলা ফুলে যাওয়া।

ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে চিকিৎসার দরকার। যদি সঠিক সময় চিকিৎসা না হয় তাহলে রোগী কোমায়ও যেতে পারে।

আরও পড়ুনঃ কিডনি রোগের প্রতিকার: কিডনি রোগের লক্ষণ এবং প্রতিকার

নিপা ভাইরাসের প্রতিরোধের উপায়ঃ

নিপা ভাইরাসের প্রতিরোধের উপায়ঃ

নিপা ভাইরাস হলে একমাত্র চিকিৎসা ছাড়া পথ নেই। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে চিকিৎসার প্রয়োজন। তবে এই ভাইরাস থেকে নিজেদের আমরা একটু সচেতন হওয়া প্রয়োজন।

  • শুধুমাত্র ওই ফল খাওয়া উচিত যেগুলি একদম পরিষ্কার। কারন বাদুড়ে খাওয়া ফল থেকেই এই ভাইরাস ছড়ায়। প্রয়োজন হলে শাকসবজি রান্নার আগে ফুটিয়ে নেওয়া উচিত।
  • হাসপাতালে যাওয়ার আগে মাস্ক পড়ে যান। এবং বাড়ি এসে হাত পা ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।
  • নিপা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির থেকে দূরে থাকুন।

নিপা ভাইরাস এমন একটি ভাইরাস যা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তাই গাছের ফল খাওয়ার সময় সচেতন থাকুন। এবং নিপা ভাইরাসের লক্ষণগুলি দেখলে অবশ্যই ডাক্তার কাছে যান।

আরও পড়ুনঃ ক্যান্সারের লক্ষণ: কয়েকটি লক্ষণ যা ক্যান্সার রোগের কারণ

সারকথাঃ

এই ভাইরাস কোন মানুষের হলে তার মৃতু পর্যন্ত ঘটতে পারে। তাই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে খুব তাড়াতাড়ি চিকিৎসার প্রয়োজন।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ 

প্রঃ নিপা ভাইরাস হলে চিকিৎসা ছাড়া কি কোন উপায় নেই?

উঃ না, নিপা ভাইরাস হলে চিকিৎসা করাতেই হবে।

প্রঃ নিপা ভাইরাস হলে কতদিনের মধ্যে চিকিৎসা করাতে হবে?

উঃ নিপা ভাইরাস রোগ ধরা পড়লে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে চিকিৎসা করানো প্রয়োজন।

প্রঃ নিপা ভাইরাসের উপসর্গগুলি কতদিনের মধ্যে উপলব্ধি করা যায়।

উঃ শুরুতে এই রোগের লক্ষণ বোঝা যায় না। ৪-১৪ দিনের মধ্যে বোঝা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here