পায়ের নখের যত্নঃপা এবং পায়ের নখের যত্ন যেভাবে নেবেন

পা যত্ন যেভাবে নেবেন

পায়ের নখের যত্ন আমাদের সৌন্দর্যের অংশ। আমরা ছেলেরাই বলুন আর মেয়েরাই ত্বকের যত্ন নিয়ে সচেতন কিন্তু পায়ের বা পায়ের নখের যত্ন নিতে অবহেলা করে থাকি। পায়ের যত্ন অবহেলা করলে সৌন্দর্য অসম্পূর্ণ থেকে যায়। দেহের প্রতিটি অংশের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। আর বিশেষ করে পায়ের নখের। পায়ের নখের অযত্ন বশত হতে পারে ইনফেকশন, নখকুনি। তাই ত্বকের যত্ন নেওয়ার পাশাপাশি আমাদের পা এবং নখের যত্নও নেওয়া খুবই জরুরী।

আমদের কর্মরত ব্যস্তময় জীবনে একটু টাইম বের করে তাহলেই পায়ের এবং নখের নিতে পারব নজরকাড়া যত্ন। কিন্তু তার জন্য যে আপনাদের কয়েকটি পদ্ধতি অনুকরণ করতে হবে। সেই পদ্ধতিগুলি আজ আমরা আপনাদের সঙ্গে ভাগ করে নেব। তাই চলুন দেখে নিন কীভাবে নেবেন পা এবং পায়ের নখের যত্ন।

পা যত্ন যেভাবে নেবেন

সূত্র :- cellublue . com

পা যত্ন যেভাবে নেবেন

1. পায়ের স্ক্রাবারঃ

আমাদের মুখ এবং হাতের সঙ্গে পায়েরও ট্যান পড়ে। তাই পায়ের কালচে দাগ সরিয়ে প্রাকৃতিক রং আনতে সপ্তাহে ২-৩ দিন স্ক্রাবার করা প্রয়োজন। স্ক্রাবার শুধু হাতে এবং মুখে প্রয়োজন তা কিন্তু নয় স্ক্রাবার পায়ে ব্যবহার করা যায়। প্রাকৃতিক উপায়ে স্ক্রাবার বানিয়ে নিন তাতে রেজাল্ট ভালো হয় এবং তার কোন সাইড এফেক্টও থাকে না।

লেবুর রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে স্ক্রাবার বানিয়ে নিন। এবার এই স্ক্রাবারটি পায়ের কালো অংশে ১০-১৫ মিনিট ঘষুন। পায়ের কালো ছোপ সরে যাবে পা হয়ে উঠবে কোমল ও মসৃণ।

2. পায়ের গোড়ালি ফাটা কমাতেঃ

অনেকের পায়ের গোড়ালি ফেটে যাওয়ার প্রবণতা রয়েছে। দেখতে তো ভালো লাগেই না বরং স্টাইলিশ জুতোর সঙ্গে মানায় না। গোড়ালি ফাটা সম্ভবত অতিরিক্ত জল ব্যবহার করা বা পায়ের সঠিক যত্ন না নেওয়া কারনে হয়ে থাকে। এর থেকে মুক্তি পেতে পেঁয়াজ পুড়িয়ে ব্লেন্ড করে নিন বা বেটে নিন। এবার পেঁয়াজের বাটা পায়ের গোড়ালির ফাটা অংশে লাগিয়ে রাখুন। নিয়মিত এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করুন আশা করি ভালো ফল পাবেন।

পা ভালো রাখতে উষ্ণ গরম জলঃ

3. পা ভালো রাখতে উষ্ণ গরম জলঃ

পা সুন্দর রাখতে চাইলে সপ্তাহে অন্তত ১-২ দিন উষ্ণ এবং গরম জলে শ্যাম্পু এবং লেবুর রস মিশিয়ে পা ভিজিয়ে রাখুন। এর ফলে পায়ে জমে থাকা ময়লা সাফ হবে পাশাপাশি পায়ের ব্যাকটেরিয়া দূর হয়ে পা দুটি নরম এবং সুন্দর করে তুলবে।

4. পায়ের যত্নে ময়শ্চারাইজারঃ

মুখ হাত যেমন শুষ্ক এবং রুক্ষ হয়ে পড়ে ঠিক আমাদের সুন্দর পা দুটিও শুষ্ক হয়ে পড়ে। তাই পা দুটি তরতাজা করতে মুখ এবং হাতের মতো দরকার ময়শ্চারাইজারের। বাইরে থেকে বাড়ি ফিরে অথবা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পায়ে ময়শ্চারাইজার লাগতে ভুলে যাবেন না। এতে পুরো দিন আপনার পা দুটি সতেজ থাকবে।

সারকথাঃ
প্রাচীনকাল থেকে পা সুন্দর রাখতে বোরোলীন ব্যবহার হয়ে আসছে। পা ভালো রাখতে বোরোলীনের কোনও তুলনা নেই।

পা ভালো রাখতে অলিভ অয়েলঃ

সূত্র :- healthline . com

5. পা ভালো রাখতে অলিভ অয়েলঃ

পায়ের যত্নে অলিভ ওয়েল খুব কার্যকর। এছাড়াও অলিভ ওয়েল এই সঙ্গে আরও কিছু উপাদান মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিতে পারেন যা পা সুন্দর রাখতে অসাধারণ কাজ করে। অলিভ ওয়েলের সঙ্গে একটি ছোট কাপের হাফ কাপ টক দই এবং ১ বা হাফ চামচ চিনি নিয়ে একটি প্যাক বানান। এই প্যাকটি পায়ে লাগিয়ে মাসাজ করুন। এবং ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি সপ্তাহে অন্তত ১-২ দিন ব্যবহার করে দেখলে ফল বুঝতে পারবেন।

পায়ের নখের যত্ন যেভাবে নেবেন

সূত্র :- boldsky . com

পায়ের নখের যত্ন যেভাবে নেবেন

1. নিয়মমিত পায়ের নখ কাটবেনঃ

পায়ের নখ খুব তাড়াতাড়ি বড় হয়ে যায়। বড় নখ রাখা মানেই জীবাণু। তাই সপ্তাহে অন্তত ২-৩ দিন নখ ছোট করা খুব জরুরী। নখ সবসময় নেইল কাটার দিয়ে কাটুন। কাটার আগে নেইল কাটার জলে পরিষ্কার করে নিন। এতে ইনফেকশন কম হবে।

গুরুত্বপূর্ণ নোটসঃ

পায়ের নখ যতো ছোট রাখবেন ভালো কারণ ময়লা জমে ফাঙ্গাসের আক্রমণের প্রবণতা থাকে। তাই নখ বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কেটে ফেলুন।

সুপারিশ নিবন্ধন :- 

উষ্ণ গরম জলে নখ ভিজিয়ে রাখবেনঃ

সূত্র :- mionhealth . com

2. উষ্ণ গরম জলে নখ ভিজিয়ে রাখবেনঃ

পায়ের নখের যত্ন নেওয়া একটি খুব ভালো টোটকা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব। নখ কাটার আগে উষ্ণ গরম জল করে ৫ মিনিট নখ ভিজেয়ে রাখবেন এবং গরম জলে এক চিমটে লবণ ফেলে নিন। নখ ভিজিয়ে রাখার পর নখ মুছে কাটুন। এতে নখ ভালো থাকে।

3. নখে নেইল পলিস বেশি দিন রাখবেন নাঃ

অনেকেই নখে নেইল পলিস দীর্ঘদিন রেখে দেন এতে নখের ক্ষতি হয়। নখে হলদে ভাব এসে যায়। এর জন্য নেইল পলিস পড়ে কিছুদিন রেখে তুলে ফেলুন।

পায়ের নখের যত্নে ময়শ্চারাইজারঃ

সূত্র :- beautyhealthtips . in 

4. পায়ের নখের যত্নে ময়শ্চারাইজারঃ

নখে নেইল পলিশ তোলার সময় আমরা রিমুভার ব্যবহার করে থাকি। রিমুভার দিয়ে তোলার সময় নখের আর্দ্রতা হারিয়ে যায়। তাই নেইল পলিশ তোলার পর নখে ময়শ্চারাইজার বা লোশন লাগাতে ভুলবেন না।

5. নিয়মিত পায়ের নখের ময়লা পরিষ্কার করবেনঃ

স্নান করার সময় নিয়মিত পায়ের নখের ময়লা পরিষ্কার করবেন। এতে নখে ময়লা জমতে পারবে না পাশাপাশি ইনফেকশন হাত থেকে রেহাই পাবেন।
আশা করব, এই পদ্ধতি গুলি নিয়ম করলে আপানর পা দুটি কোমল এবং সুন্দর হয়ে উঠবে। তাই সুন্দর পা পেতে আজ থেকেই ট্রাই করে দেখুন।

সারকথাঃ

নখ ভালো রাখতে ক্যালসিয়ামের প্রয়োজন। নিয়মিত দুধ খেলে শরীরে ক্যালসিয়ামের অভাব হয় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here