পেঁপে গাছের পাতাঃ পেঁপে গাছের পাতার রসের উপকারিতা

পেঁপে গাছের পাতা

পেঁপে গাছের পাতা

আমরা প্রায় সবাই জানি কাঁচা হোক বা পাকা পেঁপে আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুব ভালো উপাদান। লিভার ভালো রাখতে ডাক্তার পেঁপে খাওয়ার পরামর্শ দেয়। পেঁপে খাওয়া তো উপকার বটেই কিন্তু জানেন কি এই পেঁপে গাছের পাতা কতটা উপকার? অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়ই? ম্যালেরিয়া এবং ডেঙ্গু রোগের জন্য পেঁপে গাছের পাতা বা পাতার রস অত্যন্ত উপকারি। তাছাড়া পেঁপের পাতাগুলি অন্যান্য ঔষধ সম্পদে ভরপুর।

পেঁপে পেটের নানা ধরণের সমস্যার মোকাবিলা করার জন্য চমৎকার। হজম শক্তি বৃদ্ধি করার পাশাপাশি দেহের বিভিন্ন ধরণের রোগের চিকিৎসার জন্য পেঁপে গাছের পাতার রসের কোন বিকল্প হয় না। তাই আজকের এই নিবন্ধে পেঁপে নয় বরং পেঁপে গাছের পাতার রসের উপকারিতা জেনে নিই। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক পেঁপে গাছের পাতা বা তার রসের ভিন্ন গুণাগুণ।

পেঁপে গাছের পাতার গুণাগুণঃ

পেঁপে গাছের পাতার গুণাগুণঃ

একটি ছোট পরিমাণ পেঁপে পুষ্টিগুণ রয়েছে –
• ক্যালরিঃ ৫৯
• ফাইবারঃ ৩ গ্রাম
• প্রোটিনঃ ১ গ্রাম
• কার্বোহাইড্রেটঃ ১৫ গ্রাম
• ভিটামিন সিঃ ১৫৭ শতাংশ (RDI)
• ভিটামিন এঃ ৩৩ শতাংশ (RDI)
• পটাশিয়ামঃ ১১ শতাংশ (RDI)

এছাড়াও পেঁপেতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে যা ক্যারোটিনয়েড নামে পরিচিত।

সারকথাঃ
পেঁপে এমন একটি ফল যা ভিটামিন সি এবং ভিটামিন এ ভালো উৎস। পাশাপাশি ফাইবার এবং স্বাস্থ্যকর উপাদানে যৌগে গঠিত।

পেঁপে গাছের পাতার রসের উপকারিতাঃ

অ্যান্টি ক্যান্সার বৈশিষ্ট্যঃ

অ্যান্টি ক্যান্সার বৈশিষ্ট্যঃ

পেঁপের রসে ক্যান্সার বিরোধী গুন রয়েছে, যা ইমিউনিটি বাড়াতে সহায়তা করে এবং স্তন ক্যান্সার, লিভার ক্যান্সার এবং ফুসফুস ক্যান্সারের মতো রোগের প্রতিরোধের সহায়তা করে। পেঁপে গাছের পাতা জলের মধ্যে ফুটিয়ে খেলে জ্বর এবং হৃদয় সংক্রান্ত রোগের জন্য আরামদায়ক।

সারকথাঃ
গবেষণায় দেখা যায়, পেঁপে মধ্যে উপস্থিত অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমানোর এবং ক্যান্সারের বৃদ্ধি রোধ করার ক্ষমতা আছে।

সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেঃ

সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেঃ

পেঁপের পাতায় ভিটামিন সি এবং ভিটামিন এ রয়েছে যা স্কিনের জন্য উপকারী। পেঁপে গাছের পাতা মুখের ব্রণ দূর করতে সক্ষম। মুখের ব্রণ দূর করতে পেঁপের পাতা শুকিয়ে পেস্ট করে নিন এবং পেস্টের মধ্যে সামান্য জল মিশিয়ে মুখে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করে নিন। এর ফলে মুখের ব্রণ কম হওয়ার পাশাপাশি ত্বক পরিষ্কার হয় এবং ব্রাইট হয়।

ঠাণ্ডা এবং জ্বরের হাত থেকে রেহাই পেতেঃ

ঠাণ্ডা এবং জ্বরের হাত থেকে রেহাই পেতেঃ

পেঁপের শুকনো পাতার রস খেলে পাচক সম্পর্কিত সমস্যার হাত থেকে রেহাই মেলে। যার ফলে সাদা রক্তের কোষ বাড়ে। পাশাপাশি ম্যালেরিয়া রোগের জন্য এই পাতার রস খুব কার্যকর। এছাড়াও জ্বর এবং সর্দি মতো সমস্যার মোকাবিলা করার জন্য শক্তি প্রদান করে।

হৃদরোগের উন্নতি করতে পারেঃ

হৃদরোগের উন্নতি করতে পারেঃ

গবেষণায় দেখা গেছে, পেঁপে উপস্থিত লাইকোপিন এবং ভিটামিন সি হার্টের অসুখের উন্নতি সাধন করতে পারে। এছাড়া অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হার্ট প্রতিরক্ষা করে এবং ভালো কোলেস্টেরল মাত্রা বাড়িয়ে তোলে এবং হৃদরোগের উন্নতি ঘটায়। তাই হার্ট ভালো রাখতে চাইলে পেঁপে অথবা পেঁপে পাতার রস পান করুন।

সারকথাঃ
পেঁপে উচ্চ ভিটামিন সি এবং লাইকোপিন উপাদান হার্টের উন্নতি ঘটায় পাশাপাশি হার্টের রোগের ঝুঁকি কম করে।

লিভার ভালো রাখেঃ

লিভার ভালো রাখেঃ

গবেষণায় দেখা যায়, পেঁপে পাতার রসে কয়েকটি এমন উপাদান রয়েছে যা লিভারে থাকা টক্সিক উপাদানগুলি শরীর থেকে বের করে দেয়। যার জন্য লিভার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে এবং লিভার খারাপ হওয়ার সম্ভবনা কম থাকে।

ডেঙ্গু এবং ম্যালেরিয়া রোগের প্রতিরোধ করেঃ

ডেঙ্গু এবং ম্যালেরিয়া রোগের প্রতিরোধ করেঃ

অনেক স্টাডিজে দেখা যায়, পেঁপে পাতার রস খেলে প্লেটলেট কাউন্ট কমে যাওয়া সম্ভবনা থাকে না। যার ফলে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বেড়ে ওঠে। নিয়মিত পেঁপে পাতার রস খেলে ইউমিন সিস্টেম মজবুত হয় যার ফলে ডেঙ্গু এবং ম্যালেরিয়া মতো ভাইরাস হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। অথবা ডেঙ্গু জ্বর হলে তার প্রতিকার করার জন্য নিয়মিত এই পাতার রস পান করুন। খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠতে পারবেন।

সারকথাঃ

পেঁপে পাতার রস ডেঙ্গু জ্বরের জন্য ভালো ঔষধ।

এই ছিল আজকের নিবন্ধের বিস্তারিত আলোচনা পেঁপে গাছের পাতা এবং তার রসের উপকারিতা। আশা করব আপনাদের আজকের নিবন্ধটি ভালো লাগবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here