বায়োএনটেক (BioNTech)। ভারতে কোভিড ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ইতিবাচক ফলাফল

কোভিড ভ্যাকসিন

কোভিড ভ্যাকসিন

source

বায়োএনটেক করোনভাইরাস ভ্যাকসিনের পরীক্ষার ফলস্বরূপ ইতিবাচক ফলাফল দেখা গেছে। আমেরিকান ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট ফাইজার (Pfizer) এবং জার্মান বায়োটেক ফার্ম বায়োএনটেক (BioNTech) দ্বারা পরীক্ষা করা কোভিড ভ্যাকসিন রোগীদের মধ্যে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা জাগিয়ে তুলেছে। এই ভ্যাকসিন রোগীদের মধ্যে অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে এবং এটি নিরাপদ ও সহনীয় হিসেবে পাওয়া গেছে। তবে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে সামান্য জ্বর দেখা দিয়েছে ।

বায়োএনটেক মাত্রার পরিমাণঃ

বুধবার এই গবেষণাটি প্রিপ্রিন্ট সার্ভার মেডরেক্সে (preprint server medRxiv) প্রকাশিত হয়েছে তবে এখনো জার্নালে প্রকাশিত হয়নি। গবেষণায় ৪৫ জন কোভিড রোগীকে ভ্যাকসিন বা প্লাসবো এর তিনটি মাত্রার একটি (one of three doses) মাত্রা খাওয়ানোর জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল। তার মধ্যে ১২ জনকে ১০ মাইক্রোগ্রামের ডোজ দেওয়া হয়েছে, আরও ১২ জনকে ১০ মাইক্রোগ্রামের ডোজ দেওয়া হয়েছে, এবং আরও ১২ জনকে ১০০ মাইক্রোগ্রামের ডোজ দেওয়া হয়েছে। বাকি ৯ জনকে প্লাসবো (Placebo) প্রয়োগ করা হয়েছে।

আরো পড়ুন। কোভিড ত্রানে ৪০০ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে আদিত্য বিড়লা গ্রুপ

বায়োএনটেক মাত্রার ফলাফলঃ

১০০ মাইক্রোগ্রাম ডোজ দেওয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে অর্ধেক রোগীদের প্রথম ডোজের ফলে জ্বর আসে তাই দ্বিতীয় স্তরের ডোজটি দেওয়া হয়নি।

অন্যান্য ডোজগুলির তিন সপ্তাহ পরে দ্বিতীয় ডোজ প্রয়োগ করার পরে, ১০-মাইক্রোগ্রাম গ্রুপের অংশগ্রহণকারীদের ৮.৩% রোগীর এবং ৩০ মাইক্রোগ্রাম গ্রুপের ৭৫% অংশ রোগীর দেহে জ্বর এসেছে। ৫০% এর বেশি রোগীর মধ্যে জ্বর এবং ঘুমের ব্যাঘাত সহ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। তবে এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলি কোনটাই প্রাঙ্ঘাতি বা হাসপাতালে ভর্তির মত নয়।

আরো পড়ুন। গরমে র‍্যাশ থেকে মুক্তির উপায়

আক্রান্তের শরীরে এই ভ্যাকসিন অ্যান্টিবডির রুপে কাজ করে জীবাণুকে ধ্বংস করে। এই ভ্যাকসিন সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর দেহে অ্যান্টিবডির পরিমান ১.৮ থেকে ২.৮ গুন বাড়িয়ে দিতে সক্ষম।

আরো পড়ুন। ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ

বর্তমান গবেষণায় গর্ভবতী মহিলাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি এবং অংশগ্রহণকারীদের জাতিগত বৈচিত্র সম্পর্কে অন্য কোনও তথ্য লক্ষ্য করা যায়নি। যদিও গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে যে ভবিষ্যতের গবেষণায় আরও বিচিত্র গ্রুপকে অন্তর্ভুক্ত করা দরকার।

দ্বিতীয় ডোজ, একটি বুস্টার শট, ইমিউনিটির জন্য প্রয়োজন ছিল। যারা একটি ১০০-মাইক্রোগ্রাম ডোজ পেয়েছিলেন তাদের মধ্যে অ্যান্টিবডি মাত্রা কম ছিল,যারা কম ডোজ দুটি শট পেয়েছিলেন তাদের তুলনায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here