২ টি সুস্বাদু বিকালের নাস্তা রেসিপি

বিকালের নাস্তা

বিকালের নাস্তাসূত্রঃ- Instagram

মহিলাদের জন্য একটু চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়ায় বিকেলের নাস্তা বানানোর সময়। সকাল এবং রাতের খাবার তো বানানো হয়ে যায় সহজেই। কিন্তু তারা বুঝে উঠতে পারে না বিকালের নাস্তা কি করবে বা কি করবে না। বিকালের নাস্তা একটু ঝামেলাও বটে। বাড়িতে আত্মীয়স্বজন এলে ভাবতে হয় কোন খাবার দিলে তারা খুশি হবে এবং খেতে সুস্বাদু হবে। তাই আজকের নিবন্ধে আমরা মহিলাদের একটু সহায়তা করার জন্য ২ টি নাস্তার রেসিপি জানাব যা খুব সহজেই তারা বানিয়ে নিতে পারবেন এবং যা খেতেও হবে সুস্বাদু।

আজকের এই নিবন্ধে রইল ২ টি সুস্বাদু এবং মুখরোচক বিকালের নাস্তা রেসিপি।

আরও পড়ুনঃ বাড়ি বসেই বানিয়ে নিন রেস্তোরাঁর মোগলাই পরোটা

বিকেলে নাস্তার সহজ রেসিপিঃ

  1. বিকালের নাস্তা আলুর সিঙাড়াঃ

বিকালের নাস্তা আলুর সিঙাড়াঃ
সূত্রঃ- Instagram

সিঙাড়া আমরা সবাই খেতে ভালোবাসি। ভারতে একটি জনপ্রিয় নাস্তা। বিকালে চায়ের সাথে এই খাবারটি বেশ জমে ওঠে বিকালের নাস্তায়।

আরও পড়ুনঃ চিজ পাস্তার রেসিপি : বাড়ি বসেই বানিয়ে নিন চিজ পাস্তা

আলুর সিঙাড়া বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

  • ৫০০ গ্রাম আলু। (ছোট ছোট টুকরো করে কাটা)
  • ৫০০ গ্রাম ময়দা।
  • ভাজার জন্য পরিমাণমতো তেল বা ঘি।
  • এক টেবিল চামচ লাল লংকার গুঁড়ো।
  • এক টেবিল চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো।
  • এক টেবিল চামচ জিরার গুঁড়ো।
  • এক টেবিল চামচ আদা বাটা।
  • এক টেবিল চামচ রসুন বাটা।
  • এক টেবিল চামচ কালো জিরা।
  • এক টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো।
  • পেঁয়াজ কুচি (মাঝারি পেঁয়াজ ২ টো)।

আরও পড়ুনঃ রইল সহজ সুস্বাদু ভুনা খিচুড়ি রেসিপি

আলুর সিঙাড়া বানানোর প্রণালীঃ

  • প্রথমে ময়দা মাখার জন্য একটি পাত্রে ময়দা, সামান্য কালোজিরা, তিন টেবিল চামচ তেল এবং সামান্য লবণ মিশিয়ে ভালোভাবে ময়দা মিশিয়ে নিন। এবার ধীরে ধীরে জল দিয়ে ময়দা মেখে নিন।
  • এবার একটি পাত্রে তেল গরম করে তার মধ্যে হাপ কাপ পেঁয়াজ দিয়ে একটু ভেজে নিন। পেঁয়াজ ভাজা হালকা বাদামী রঙের হয়ে এলে আদা এবং রসুন বাটা দিয়ে হালকা নাড়াচাড়া দিন। এবং সামান্য জল দিয়ে নাড়াচাড়া দিন।
  • এবার হলুদ গুঁড়ো, লাল লংকার গুঁড়ো, জিরার গুঁড়ো, গোলমরিচ গুঁড়ো এবং সামান্য লবণ ও জল দিয়ে মশলাগুলো ভালোভাবে কষিয়ে নিন।
  • মশলা কষানো হয়ে এলে কেটে রাখা আলু মিশিয়ে আবার একটু কষিয়ে নিন। এবার এক কাপ জল দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন ৫ মিনিট।
  • ৫ মিনিট পর ঢাকনা সরিয়ে একটু নাড়াচাড়া দিয়ে জল শুকিয়ে নিন।
  • আলুর পুরের জল শুকিয়ে গেলে আবার হাপ কাপ পেঁয়াজ, ধনেপাতা, এবং কাঁচা লংকা কুচিয়ে ছড়িয়ে হালকা নাড়াচাড়া দিয়ে নামিয়ে নিলে রেডি আপনার সিঙাড়া পুর। (পেঁয়াজ একটু কাঁচা থাকবে)
  • এবার দো করে রাখা ময়দা সামান্য তেল লাগিয়ে বেলে নিন রুটির আকারে। বেলা হয়ে গেলে রুটি দুইভাগ করে নিন আলুর সিঙাড়া বানানোর জন্য। একটি লেচি নিয়ে সামনের দুই সাইড একটু জল লাগিয়ে মুড়ে নিন পুর ভরার জন্য। এবার মাঝখানে পুর ভরে ত্রিকোণ আকারে (সিঙাড়া আকৃতি) ভাঁজ করে নিন।
  • এবার একটি বড় কড়াইয়ে তেল গরম করে নিন। তেল বেশি দিতে হবে কারণ সিঙাড়া ডুবো তেলে ভাজতে হবে। তেল হালকা গরম করবেন ফুটন্ত যেন হবে না। এবার তেলে অল্প আঁচে সিঙাড়া দিয়ে ভেজে তুলে নিন এবং চাটনির সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন।

আরও পড়ুনঃ বাঙালির রসগোল্লা বানানোর রেসিপি

  1. বিকালের নাস্তা ফুলকপি মটরের কাবাবঃ

বিকালের নাস্তা ফুলকপি মটরের কাবাবঃ

বিকালের নাস্তা নিবন্ধে দ্বিতীয় রেসিপি হল ফুলকপি মটরের কাবাব। এটি একটি খুব মজাদার খাবার এবং সন্ধ্যাবেলা বাচ্চাদের টিফিনের জন্যও দারুন।

ফুলকপি মটরের কাবাব বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

  • একটি ডিম
  • একটি ফুলকপি (ঝিরিঝিরি করে কাটা)।
  • পরিমাণ মতো তেল (ভাজার জন্য)।
  • এক কাপ মটরশুঁটি। (সেদ্ধ করে রাখা)
  • আলু (এক কাপ সেদ্ধ করে পেস্ট করা)।
  • হাফ কাপ পেঁয়াজ (ছোট ছোট কুচি করে কাটা)।
  • এক টেবিল চামচ আদা বাটা।
  • এক টেবিল চামচ রসুন বাটা।
  • এক টেবিল চামচ কাঁচা লংকা কুচি।
  • এক টেবিল চামচ লাল লংকার গুঁড়ো।
  • এক টেবিল চামচ ধনে গুঁড়ো।
  • এক টেবিল চামচ জিরা গুঁড়ো।
  • এক টেবিল চামচ গরম মশলার গুঁড়ো।
  • দেড় টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি।
  • প্রয়োজন মতো বিস্কুটের গুঁড়ো।
  • স্বাদমতো লবণ।

আরও পড়ুনঃ ধাবার স্টাইলে চিকেন রেসিপি বানিয়ে নিন বাড়ি বসেই

ফুলকপি মটরের কাবাব বানানোর প্রণালীঃ

  • প্রথমে একটি প্যানে জল গরম করুন।
  • এবার উষ্ণ গরম জলে কেটে রাখা ফুলকপি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন।
  • একটি পাত্রে সেদ্ধ করা ফুলকপি, সেদ্ধ করা মটর শুঁটির পেস্ট, সেদ্ধ করে পেস্ট করে রাখা আলু, পেয়াজ,আদা ও রসুন বাটা, কাঁচা লংকা এবং লাল লংকার গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো এবং স্বাদমতো লবণ দিয়ে মিশ্রণটি ভালোভাবে মেখে নিন।
  • এবার মেখে অন্য একটি পাত্রে ডিম ফ্যাটিয়ে নিন।
  • মেখে রাখা ফুলকপির মিশ্রণে দুই টেবিল চামচ ফ্যাটানো ডিম এবং সামান্য বিস্কুটের গুঁড়ো, ধনেপাতা দিয়ে আরও একবার ভালোভাবে মেখে নিন যাতে মিশ্রণটি টাইট হয়।
  • কাবাব ভাজার জন্য আপনাকে একটি প্যানে তেল গরম করে নিতে হবে।
  • এবার কাবাবগুলি দুই সাইড বিস্কুটের গুঁড়ো মাখিয়ে ফ্যাটানো ডিমের মধ্যে চুবিয়ে তেলে ছেড়ে দিন।
  • কাবাব গুলি দুই সাইড লালচে করে ভেজে তুলে নিন টিস্যু পেপারে। এবং গরম গরম পরিবেশন করুন বিকালের নাস্তা ফুলকপি মটরের কাবাব।

আরও পড়ুনঃ রইল ২ টি ভিন্ন ধরণের কাবাব বানানোর রেসিপি

তাহলে আশা করব আপনাদের আজকের এই বিকালের নাস্তা দুটি রেসিপি ভালো লাগবে। বাড়িতে ট্রাই কর দেখুন খেতে মুখরোচক এবং সুস্বাদু হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here