বিশ্বকর্মা পূজা 2020 বিস্তারিত আলোচনা | শুভেচ্ছা

বিশ্বকর্মা পূজা

বিশ্বকর্মা পূজা 2020: প্রতি বছর ১৭ ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পূজা উদযাপিত হয়। তবে এবার দেশের কিছু অংশে ১৬ ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পূজা পালন করা হছে। আবার রাজ্যে কাল ১৭ ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পূজা পালন করা হবে। সূর্যের গতিপ্রকৃতির উপর নির্ভর করে এই পূজা পালিত হয়। কথিত আছে যে ভগবান ব্রহ্মা তাঁর কাঁধে বিশ্বজগতের সৃষ্টির দায়িত্ব অর্পণ করেছিলেন। গোটা বিশ্ব রচনা হয়েছিল বিশ্বকর্মার হাত ধরে।

বিশ্বকর্মা পূজা

Source 

আজকের এই নিবন্ধে বিশ্বকর্মা পূজা নিয়ে আপনাদের সঙ্গে কিছু বিশেষ জিনিস শেয়ার করে নেব। আপনারা আজকের এই নিবন্ধে থেকে বিশ্বকর্মা উৎসবের গুরুত্ব এবং বিধি জানতে পারবেন এবং পাশাপাশি জেনে নিতে পারবেন কেন এই ১৭ ই সেপ্টেম্বরই বিশ্বকর্মা পূজা পালন হয়।

আরও পড়ুনঃ ঘুড়ি: বিভিন্ন ধরণের ঘুড়ির তালিকা জেনে নিন

বিশ্বকর্মা পূজার শুভেচ্ছা ম্যাসেজ

বিশ্বকর্মা পূজার শুভেচ্ছা ম্যাসেজ (Bishwakarma Puja Greetings Massage)

শুভেচ্ছা ১

এই বিশ্বকর্মা পূজা আপনার যা কিছু ইচ্ছা এবং যা আপনি স্বপ্ন দেখেছিলেন তা নিয়ে বয়ে আসুক। আপনার নেওয়া প্রতিটি পদক্ষেপ সাফল্য আপনার সাথে থাকতে পারে। শুভ বিশ্বকর্মা পূজা! 

শুভেচ্ছা ২

বিশ্বকর্মা পূজার শুভ উপলক্ষে সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা। প্রভু বিশ্বকর্মা আমাদের সকলকে শান্তি, সুখ, সমৃদ্ধি দান করুক।

শুভেচ্ছা ৩

ভগবান বিশ্বকর্মা আপনার জীবনের প্রতিটি দিন সুখ এবং পেশাদার জীবনকে সাফল্যের সাথে পূর্ণ করুক। শুভ বিশ্বকর্মা পূজা। 

শুভেচ্ছা ৪ 

শ্রেষ্ঠত্বের জন্য সমস্ত কারিগরকে ধন্যবাদ। আসুন বিশ্বকর্মা পূজায় একটি নতুন ও উন্নত বিশ্ব গঠনের অংশ হয়ে উঠি। বিশ্বকর্মা পূজার আন্তরিক শুভেচ্ছা! 

শুভেচ্ছা ৫

বিশ্বকর্মা পুজা উপলক্ষে আপনার ব্যবসায় উন্নতি এবং আপনার মঙ্গল কামনা করি। শুভ বিশ্বকর্মা পুজা। 

শুভেচ্ছা ৬

প্রভু বিশ্বকর্মা আপনাকে এবং আপনার পরিবারকে শান্তি ও সুখ আশীর্বাদ করুক। শুভ বিশ্বকর্মা পুজা! 

শুভেচ্ছা ৭

আপনি যেমন বিশ্বকর্মা দিবসকে মহিমান্বিত ও উচ্ছ্বাসের সাথে উদযাপন করছেন, শান্তি ও সমৃদ্ধি আপনার পথে আসতে পারে। আপনাকে জানাই বিশ্বকর্মা পুজার শুভেচ্ছা!

শুভেচ্ছা ৮

আশাকরি ভগবান বিশ্বকর্মা সর্বদা আপনার পাশে থাকুক এবং আপনার সাফল্যে উন্নতি করুক। শুভ বিশ্বকর্মা পুজা!

শুভেচ্ছা ৯

সবাইকে বিশ্বকর্মা পূজায় আন্তরিক শুভেচ্ছা। আসুন আমরা ভগবান বিশ্বকর্মার কাছে প্রার্থনা করে এই দিবসটি উদযাপন করি এবং আগামীকাল সফলতার জন্য তাঁর আশীর্বাদ গ্রহণ করি।

শুভেচ্ছা ১০ 

আশা করি বিশ্বকর্মা জয়ন্তীর শুভ উপলক্ষটি আপনার জীবনে সুখ, সাফল্য এবং সমৃদ্ধির নতুন সূচনা হোক। পুরো বছরটি খুব খুশিতে উপভোগ করুন। শুভ বিশ্বকর্মা পুজা! 

বিশ্বকর্মা পূজা উৎসব

Source

বিশ্বকর্মা পূজা উৎসব (Bishwakarma Puja Festival)

বিশ্বকর্মা পূজা বিভিন্ন জায়গায় পালন করা হয়। কারবারে শ্রীবৃদ্ধির জন্য ভগবান বিশ্বকর্মাকে এই দিনে পূজিত হন। তবে এটি সাধারণত যান্ত্রিক সম্পর্কিত প্রতিষ্ঠানে উদযাপিত হয়। যেমন কলকারখানা। এই দিনে অফিস বা কারখানায় তাদের কর্মচারীরা কারখানা এবং অফিস পরিষ্কার করে এবং বিশ্বকর্মা পূজা করার জন্য সাজিয়ে থাকেন।  এমনকি বাড়িতে, লোকেরা তাদের বৈদ্যুতিন ডিভাইস, ঘর এবং যানবাহন পূজা করে।

এই দিনে কারখানা, অফিস এবং বাড়িতে যাদের গাড়ি অথবা মেশিন রয়েছে এবং অন্যান্য নির্মাণ স্থানে বিশ্বকর্মা পূজা করা হয়। কথায় আছে যে প্রাচীন কালে গোটা বিশ্বে অস্ত্র,  ও প্রাসাদগুলি বিশ্বকর্মা তৈরি করেছিলেন।  এ কারণে ভগবান বিশ্বকর্মাও সৃষ্টি ও সৃষ্টির দেবতা হিসাবে বিবেচিত হন।

বিশ্বকর্মা পূজার সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ আকর্ষণ হল ঘুড়ি আট থেকে আশি সবাই এই ঘুড়ির লড়াইয়ে মেতে ওঠে।। আকাশ ভরে নানা রঙের ঘুড়ি উড়তে দেখা যায়। যেন মেঘের আড়ালে ঘুড়ি ভাসচ্ছে। বাড়ির ছাদে ছাদে, রাস্তা এবং অলিতে গলিতে ভোকাট্টার সুর ভেসে আসে। প্রাচীনকাল থেকে বিশ্বকর্মা পূজার দিন ঘুড়ি ওড়ানোর রেওয়াজ চলে আসছে।

আরও পড়ুনঃ বিবাহ বার্ষিকী ম্যাসেজ , শুভেচ্ছা, এসএমএস

বিশ্বকর্মা পুজোর গুরুত্ব

Source

বিশ্বকর্মা পুজোর গুরুত্ব (Importance of Bishwakarma Pujo)

ভগবান বিশ্বকর্মার জন্মদিন বিশ্বকর্মা পূজা, বিশ্বকর্মা দিবস বা বিশ্বকর্মা জয়ন্তী নামে পরিচিত। হিন্দু ধর্মে এই উৎসবটি তাৎপর্য রয়েছে। বিশ্বাস করা হয় যে ভগবান বিশ্বকর্মা সত্যযুগের শ্রী যুগের লঙ্কা এবং কলিযুগের হস্তিনাপুর সৃষ্টি করেছিলেন।

ভগবান বিশ্বকর্মা দেবতাদের স্থপতি, স্থাপত্যের দেবতা, প্রথম প্রকৌশলী, দেবতাদের প্রকৌশলী এবং যন্ত্রের দেবতা নামে অভিহিত হন। সুতরাং যারা শিল্পী, কারিগর এবং ব্যবসায়ী তাদের জন্য এই উপাসনাটি আরও গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বাস করা হয় যে বিশ্বকর্মা দেবীর উপাসনা করলে কারবারে শ্রীবৃদ্ধি হয়। আরও বলা হয়ে থাকে এই পূজা করলে যন্ত্রপাতি খারাপ হয় না এবং দিনরাত ব্যবসায় চতুর্থাংশ বৃদ্ধি ঘটে।

আরও পড়ুনঃ দোল পূর্ণিমা : দোল পূর্ণিমা বাংলার বসন্ত উৎসব

বিশ্বকর্মা পূজা বিধি

Source

বিশ্বকর্মা পূজা বিধি (Bishwakarma worship rules) 

প্রথমত, সকালে আপনার দোকানের গাড়ি মোটর বা মেশিনগুলি ধুয়ে পরিষ্কার করুন, ঘর পরিষ্কার করুন এবং পূজার সমস্ত উপকরণ একদিন আগেই প্রস্তুত রাখুন। পাশাপাশি যন্ত্রপাতিগুলি পূজার স্থানে রাখতে হয়। এরপর স্নান করে পূজার জায়গায় বসুন এবং হাতে ফুল এবং চাল নিয়ে পূজার মন্ত্র পড়ে ফুল ছিটিয়ে দিন। পূজার ফুল, ফল, ধুপ আগে থেকে জোগাড় করে রাখতে হয়।

আরও পড়ুনঃ শুভ রাত্রি শুভেচ্ছা বার্তা, ম্যাসেজ, এসএমএস

প্রত্যেক বছর ১৭ ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পূজা পালনের কারণ

Source

প্রত্যেক বছর ১৭ ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পূজা পালনের কারণ (The reason for celebrating Bishwakarma Puja on 16th September every year)

প্রত্যেক বছর প্রায় সব পুজাই তিথি নক্ষত্র অনুযায়ী আলাদা আলাদা তারিখে পালন করা হয়। কিন্তু বিশ্বকর্মা পূজা তার ব্যতিক্রম। প্রত্যেক বছর বিশ্বকর্মা পূজা ১৭ ই সেপ্টেম্বর পালিত হয়। অন্যান্য দেবদেবীদের পূজা নির্ভর করে চাঁদের গতিপ্রকৃতির উপর। তবে বিশ্বকর্মা পূজা নির্ভর হয় সূর্যের গতিপ্রকৃতির উপর।

ভাদ্র মাসের শেষ তারিখে এই পূজার দিনটি নির্ধারিত করা হয়েছে। এই মাসের আগে পঞ্জিকায় পাঁচটি মাস রয়েছে। এই মাসগুলি দিন সংখ্যা একই থাকে। সেই হিসাব অনুযায়ী বাংলা পঞ্জিকায় এই পূজা যে তারিখে পড়ে তা ইংরেজি ক্যালেন্ডারে ১৭ ই সেপ্টেম্বর ই পড়ে। তাই এই পূজার দিনটি প্রায় প্রত্যেক বছর ১৭ ই সেপ্টেম্বরই ক্যালেন্ডারে পড়ে।

Key point: আমাদের প্রতেকের জীবনে শিল্প অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই মানবজীবনে বিশ্বকর্মা পূজার সর্বদা গুরুত্ব রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ শুভ বিজয়া দশমী শুভেচ্ছা, এসএমএস , ম্যাসেজ, স্ট্যাটাস

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

Q. বিশ্বকর্মা পূজা কোন তিথিতে পড়ে? 

A. ভাদ্র মাসের শেষ তারিখে এই পূজার দিনটি নির্ধারিত করা হয়। তবে বিশ্বকর্মা পূজা নির্ভর হয় সূর্যের গতিপ্রকৃতির উপর।

Q. বিশ্বকর্মা পূজা কোন তারিখে পড়ে? 

A. বিশ্বকর্মা পূজা সাধারণত প্রত্যেক বছর ১৭ ই সেপ্টেম্বর পড়ে।

Q. বিশ্বকর্মা পূজা শ্রেষ্ঠ আকর্ষণ কি? 

A. বিশ্বকর্মা পূজা শ্রেষ্ঠ আকর্ষণ ঘুড়ি।

3 COMMENTS

  1. Hi there colleagues, good piece of writing and nice urging commented here, I am actually enjoying by these.

  2. I really like looking through an article that can make
    men and women think. Also, thanks for allowing for
    me to comment!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here