আলী আকবর খান শৈশব, শিক্ষা এবং কর্মজীবন

আলী আকবর খান

আলী আকবর খান
সূত্রঃ- www.instagram.com/p/By1YwcVA745/

নামঃ ওস্তাদ আলী আকবর খান

পেশাঃ সুরকার

জন্মঃ ১৪ এপ্রিল, ১৯২২ খ্রিস্টাব্দ

জন্মস্থানঃ বাংলাদেশ, শিবপুর

পিতাঃ ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ

মাতাঃ মদিনা বেগম

মৃতুঃ ১৮ জুন, ২০০৯ সাল

ওস্তাদ আলী আকবর খান ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীত জগতে একজন সর্বাধিক খ্যাতনামা সঙ্গীতজ্ঞ। তিনি সঙ্গীতশিল্পীদের পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এবং তার পিতার তত্ত্বাবধানে ও পরিচালনায় প্রশিক্ষণ লাভ করেছিলেন। তিনি অনেক ছোটবেলা থেকে বাদ্যযন্ত্র বাজানো শেখা শুরু করেন।

আলী আকবর খান সারা বিশ্ব জুড়ে ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের সারাংশ ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য তাঁর জীবন উৎসর্গ করতে চেয়েছিলেন, এ কারণেই তিনি কলকাতার পাশাপাশি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং সুইজারল্যান্ডে আলী আকবর কলেজের সংগীত প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

আরও পড়ুনঃ কাজী নজরুল ইসলাম শৈশব, শিক্ষা, কর্ম, বৈবাহিক জীবন

ওস্তাদ আলি আকবর খানের শৈশব ও প্রাথমিক জীবন (Ustad Ali Akbar Khan’s Childhood & Early Life):

ওস্তাদ আলি আকবর খানের শৈশব ও প্রাথমিক জীবন (Ustad Ali Akbar Khan’s Childhood & Early Life)
সূত্রঃ- www.instagram.com/p/BwUrqJ7BIuF/

আলী আকবর খান ১৯২২ খ্রিস্টাব্দের ১৪ এপ্রিল বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার শিবপুরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তার পিতা সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ এবং মা মদিনা বেগম। তার বাবা একজন প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী এবং শিক্ষক ছিলেন এবং মাত্র তিন বছর বয়স থেকে নিজেই ছেলেকে প্রশিক্ষণ দেন।

আলী আকবর খান চাচা ফকির আফতাবউদ্দিনের কাছে থেকে তবলা শেখেন। তার বাবা এবং চাচা বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্রগুলি এবং সুরকার পুরোপুরিভাবে তাকে বুঝিয়ে সঙ্গীতের জন্য গভীর জ্ঞান অর্জন করিয়েছিলেন। চাচার পাশাপাশি তার বাবা ১৯৭২ সালে মারা যাওয়ার আগে পর্যন্ত তাকে প্রশিক্ষণ দিয়েগেছেন।

আরও পড়ুনঃ আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায় শৈশব, শিক্ষা, কর্মজীবন

ওস্তাদ আলী আকবর খানের কর্মজীবন (Ustad Ali Akbar Khan’s Career):


সূত্রঃ– www.instagram.com/p/ByivCn5hZQ8/

বেশ কয়েক বছর সঙ্গীত শেখার পরে আলী আকবর খান ১৯৩৬ সালে ১৩ বছর বয়সে এলাহাবাদে একটি সংগীত সম্মেলনে প্রথম পাবলিক পারফর্মেন্স করে। এরপর ওস্তাদ আলী আকবর খান মহারাষ্ট্রের বোম্বে অল ইন্ডিয়া রেডিও-র সঙ্গে প্রথম কাজ শুরু করেন এবং এইখানে তাকে তবলায় সঙ্গ দেয় ঊস্তাদ আল্লা রাখা। তার কয়েকবছর পর তিনি AIR- এ মাসিক পারফর্মেন্স করেন।

১৯৩৯ সালে উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদে সংগীত সম্মেলন রবি শঙ্করে ডেবিউ পারফর্মেন্স ছিল। সেখানে আলী আকবর খান রবি শঙ্করকে সমর্থন করেছিলেন তার সঙ্গে সারদ বাজানোর জন্য। এটাই ছিল তাদের প্রথম যুগলবন্দী ডেবিউ।

তার পিতার সুপারিশে ১৯৪৩ সালে যোধপুরের মহারাজা হনবন্ত সিংয়ের দরবারে তিনি সঙ্গীত শিল্পী হিসাবে নিযুক্ত হন এবং সেখানে আলী আকবর খান সঙ্গীতশিল্পীদের সঙ্গীত শেখানোর পাশাপাশি পরিবেশনা দিয়েছিলেন। মহারাজা হনবন্ত সিং তাকে “ওস্তাদ” উপাধি দেন।

১৯৪৪ সালে রবি শঙ্কর এবং ওস্তাদ আলী আকবর খান দুজনেই মাইহার ছেড়ে যান তাদের পেশাদার সঙ্গীতের কর্মজীবন শুরু করতে। রবি শঙ্কর বোম্বাইতে চলে যান এবং সেখানে স্থায়ী হন। তবে আলী আকবর খান লখনউয়ের কনিষ্ঠতম সংগীত পরিচালক হন। তিনি একক পরিবেশনা দিতেন এবং রেডিওর নকশার জন্য পরিচালনা করতেন।

১৯৪৫ সালে এইচএমভি স্টুডিওতে ৭৮ আর. পি. এম. এর ডিস্কের সিরিজ রেকর্ড করা শুরু করেছিলেন। এর মধ্যে একটি রেকর্ডের জন্য তিনি ‘চন্দ্রনন্দন’ নামক রাগ রচনা তৈরি করেছিলেন। এই রেকর্ডটি ভারতে একটি মহাকাব্য ছিল এবং এটি বিশাল সাফল্য অর্জন করেছিল।

আলী আকবর খান
সূত্রঃ- www.instagram.com/p/B18Ro4eBSfZ/

১৯৫৬ সালে আলী আকবর খান কলকাতায় “আলী আকবর কলেজ অফ মিউজিক” প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এই মিউজিক কলেজ প্রতিষ্ঠা করার পিছনে তার একমাত্র উদ্দেশ্যে ছিল ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শেখানো এবং সকলেরে মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া। তিনি চেয়েছিলেন নতুন যুগ শুরু হওয়ার সময় শাস্ত্রীয় সঙ্গীত যাতে বিলুপ্ত না হয়ে যায়।

তিনি ১৯৬৭ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার বার্কলিতে একই নামের আরেকটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং পরে এটি ক্যালিফোর্নিয়ার সান রাফায়েলে স্থানান্তরিত হয়। ১৯৬৯ সালে আলী আকবর খান বস্টনে পিবডি ম্যাসন কনসার্ট সিরিজে সঙ্গীত পরিবেশন করেন এবং তবলা বাজিয়েছিলেন রবি শঙ্কর। ১৯৮৫ সালে তিনি সুইজারল্যান্ডের বাসেল শহরে আরেকটি আলী আকবর কলেজ অফ মিউজিক প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

ধীরে ধীরে তার জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে এবং তিনি অনেকগুলি চলচ্চিত্রে সঙ্গীত পরিবেশন করেছিলেন যেমন- চেতন আনন্দের ‘আন্ধিয়াঁ, সত্যজিৎ রায়ের ‘দেবী, তপন সিনহার ‘ক্ষুধিত পাষাণ’, মার্চেন্ট আইভরির ‘দ্য হাউসহোল্ডার’ ইত্যাদি।

১৯৭১ সালে ম্যাডিসন স্কোয়ারে গার্ডেনে দ্য কনসার্ট ফর বাংলাদেশ অনুষ্ঠিত হয়। এই কনসার্টে অন্যতম ছিলেন ওস্তাদ আলী আকবর খান এবং তার পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন রবি শঙ্কর, আল্লা রাখা এবং কমলা চক্রবর্তী সহ – জর্জ হ্যারিসন, বব ডিলান, এরিক ক্ল্যাপটন, রিঙ্গো স্টারের মত খ্যাতনামা শিল্পীরাও।

ওস্তাদ আলী আকবর খান ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের প্রচারের জন্য তিনি জীবনের একটি ভালো অংশ উৎসর্গ করেছিলেন এবং তিনি শুধু কলকাতায় সংগীত প্রতিষ্ঠা করেছিলেন তা নয় বরং পশ্চিমেও গিয়েছিলেন। ভারতে শাস্ত্রীয় বিশ্বজুড়ে এইভাবে স্বীকৃতি পেয়েছিল তারই প্রয়াসে।

আন্ধিয়াঁ’ চলচ্চিত্র প্রধান গানটি ছিল লতা মঙ্গেশকর গলায় গাওয়া। যার টাইটেল রচনা করেছিলেন ওস্তাদ আলী আকবর খান। খানকে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য তিনি গানটি গাওয়ার জন্য কোনও পারিশ্রমিক গ্রহণ করেন নি।

আরও পড়ুনঃ রাজা রামমোহন রায় শৈশব, পারিবার, কর্মজীবন

ওস্তাদ আলি আকবর খানের ব্যক্তিগত জীবন (Ustad Ali Akbar Khan’s Personal Life):

ওস্তাদ আলি আকবর খানের ব্যক্তিগত জীবন (Ustad Ali Akbar Khan’s Personal Life)

সূত্রঃ– www.instagram.com/p/B0tf7sthzvg/

আলী আকবর খান তিনবার বিবাহ করেছিলেন এবং তার মোট সাতটি ছেলে এবং চার কন্যা সন্তান আছে।

আরও পড়ুনঃ বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় শৈশব, কর্মজীবন, সাহিত্যে জীবন

পুরস্কার ও সম্মান (Awards and honors):

পুরস্কার ও সম্মান (Awards and honors)
সূত্রঃ- www.instagram.com/p/Bx4JsX4FyEE/

ভারতীয় ক্লাসিক্যাল সঙ্গীতের ক্ষেত্রে অসাধারণ কাজের জন্য পদ্মবিভূষণ, ম্যাক আর্থার ফেলোশিপ, জাতীয় ঐতিহ্য ফেলোশিপের মতো অনেক প্রশংসা পেয়েছিলেন এবং দুটি গ্র্যামি মনোনয়নও পেয়েছিলন।

আরও পড়ুনঃ যামিনী রায় শৈশব, পরিবার, কর্মজীবন

মহাপ্রয়াণঃ

মহাপ্রয়াণঃ
সূত্রঃ- www.instagram.com/p/BvqOcNwFgmY/

মৃত্যুর প্রায় চার দশক আগে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হয়েছিলেন। ২০০৯ সালে ১৮ জুন ক্যালিফোর্নিয়ায় সান আনসেলমোতে মৃত্যুবরণ করেন।

আরও পড়ুনঃ জগদীশ চন্দ্র বসু শৈশব, শিক্ষা, কর্মজীবনের কাহিনী

সারকথাঃ

আলী আকবর খানের মাধ্যমে ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীত বিশ্বের সর্বত্রে ছড়িয়ে পড়ে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন উত্তরঃ

প্রঃ আলী আকবর খান কবে জন্মগ্রহণ করেন?

উঃ আলী আকবর খান ১৯২২ খ্রিস্টাব্দের ১৪ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন।

প্রঃ আলী আকবর খান কোথায় জন্মগ্রহণ করেন?

উঃ আলী আকবর খান বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার শিবপুরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

প্রঃ আলী আকবর খানের বাবার নাম কি?

উঃ আলী আকবর খানের বাবা ছিলেন সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ।

প্রঃ আলী আকবর খানের মায়ের নাম কি?

উঃ আলী আকবর খানের মায়ের নাম মদিনা বেগম।

প্রঃ আলী আকবর খান কবে মারা যান?

উঃ আলী আকবর খান ২০০৯ সালে ১৮ জুন মারা যান।

প্রঃ আলী আকবর খান কোথায় মারা যান?

উঃ ক্যালিফোর্নিয়ায় সান আনসেলমোতে মারা যান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here