দাম্পত্য জীবনে সুখী হতে হলে এই তিন শ্রেণির মানুষকে বিয়ে করা উচিত না

দাম্পত্য জীবনে সুখী

biye

বিয়ের পর দাম্পত্য জীবনে সুখী হতে সবাই চায়। কিন্তু ভাগ্য তো সবার সমান হয় না। কেউ খুব সুখী হয় আবারও কারো ভাগ্য খারাপ হয়। যদিও এটি আমাদের ভাগ্যের উপর নির্ভর করে। তবে দাম্পত্য জীবনে সুখীর জন্য যেটি আমাদের হাতে রয়েছে সেটি হল জীবনে চলার পথে সঠিক মানুষ নির্বাচন করা। দাম্পত্য জীবনে সুখী হতে হলে তিন ধরনের মানুষকে বিয়ে না করাই ভালো। সেই তিন ধরনের মানুষ কারা? জেনে নিন আজকের আর্টিকেল থেকে।

প্রথম 

অতিমাত্রার ক্যারিয়ারিস্ট ছেলেমেয়ে বিয়ে না করা ভালো। কারণ তাদের কাছে পরিবার, সন্তান, সম্পর্ক কোনও ইস্যুই না বরং তাদের কাছে ক্যারিয়ার অর্থাৎ ডিগ্রি অর্জনই সব। এই ধরনের পাত্র বা পাত্রীকে বিয়ে করলে ভবিষ্যতে আপনি অসুখী হতে পারেন। এই মানুষগুলি পারিবারিক জীবনে ভয়ংকর হয়ে ওঠে। এদের কাছে নিজেদের ডিগ্রি অর্জন ছাড়া অন্য কিছুর দাম নেই। এরকম স্বামী- স্ত্রী ভয়ংকর হয়।

দ্বিতীয় 

বিয়ে করার সময় যেই দ্বিতীয় শ্রেণীর ছেলে বা মেয়ে এড়িয়ে যাওয়া উচিত তা হল ফ্রি মিক্সার। ফ্রি মিক্সারদের একদমই বিয়ে করার কথা ভাবেন না। কারণ এরা বহু পুরুষ/ নারীদের সাথে মিশে তাদের সবার গুন একজন নারী বা পুরুষের মধ্যে খুঁজে পেতে চায়, যখন পায় না তখন তা নিয়ে ঝামেলা করে  দাম্পত্য জীবনে ঝামেলা সৃষ্টি করে।

অনেক সময় স্বভাবের কারণে এরা একজনের সঙ্গে সন্তুষ্ট থাকতে পারে না। আবার অনেক সময় এদের কর্মক্ষেত্রে অনেক ছেলে বা মেয়ে বন্ধু দেখা যায়। যার ফলে স্বামী- স্ত্রীর সাথে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। আর সুযোগ নিতে পারে কর্মস্থলের এই বন্ধুবান্ধব। যার ফলে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে উঠতে পারে। এই ফ্রি মিক্সার ছেলে মেয়েদের মন কখন কি চায় তারা নিজেরাও জানে না।

তৃতীয়

অতীতে অন্য কারো “কাছে আসার সাহসী গল্প” এর নায়ক-নায়িকা ছিল এমন কাউকে এড়িয়ে চলবেন। আপনি যখন এরকম কাউকে বিয়ে করবেন দাম্পত্য জীবনে আপনার তিনটে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে যেমন- এক, আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনী তার আগের প্রেমিক/প্রেমিকাকে ভুলে গিয়ে আপনার সঙ্গে সংসার করবে তবে সারাজীবন আপনি ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত হতে পারেন। দুই,  আগের প্রেমিক/প্রেমিকাকে সারাজীবন মনে রেখে আপনার সাথে অভিনয় করে রোবটের মতো সংসার করে যাবে। তিন, খুঁটিনাটি নিয়ে আপনার সাথে ঝামেলা সৃষ্টি করবে।

তাই বিয়ে করার আগে পাত্র বা পাত্রী বাছাই করার আগে ভালোভাবে দেখেশুনে আলাপ করে বুঝে নিন সে কেমন। তারপরই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here