মার্কিন নিষেধাজ্ঞার জেরে ব্রিটেনে অনিশ্চিত হুয়েই-এর ভবিষ্যত

ব্রিটেন ৫জি নেটওয়ার্ক 2

ব্রিটেন ৫জি নেটওয়ার্ক 1

করোনা ভাইরাসের জেরে বিশ্বের দরবারে একোবার কোণঠাসা বেজিং । মহামারির জেরে একের পর এক দেশ রেড ড্রাগণদের থেকে সম্পর্ক ছিন্ন করতে উঠে পড়ে লেগেছে ।  ট্রাম্প প্রশাসন ইতিমধ্যেই ZTE এবং Huawei –এর টেন্ডার দাখিলের ক্ষেত্রে জারি করেছে নিষেধাজ্ঞা । এবার চিনাপণ্যের বিরোধিতায় এগিয়ে এল ইউনাইটেড কিংডম

আরও পড়ুন : ঐতিহ্যশালী ৭৪৭ জাম্বো জেট প্রোগ্রাম বাতিলের পথে হাঁটছে বোয়িং

সেদেশের সরকারি রিপোর্টে বলা হয়েছে, সুরক্ষা জনিত কারণে চলতি বছরেই চিনা সংস্থা হুয়েই-এর সঙ্গে ৫জি নেটওয়ার্কে প্রযুক্তির ব্যবহার শেষ করতে তা প্রস্তুত রয়েছে।

ইউনাইটেড কিংডমের অন্তর্গত গভার্মেন্ট কমিউনিকেশন হেডকোয়ার্টার বা GCHQ ৫জি প্রযুক্তিতে চিনা পণ্য ব্যবহারের ক্ষেত্রে উদ্ভূত ঝুঁকির পুনর্বিবেচনা করার পর প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন একটি বড় নীতি পরিবর্তন করতে চলেছেন।

আরও পড়ুন : বহু প্রতীক্ষার পর সোমবার খুলছে প্যারিসের ল্যুভর মিউজিয়াম

চলতি সপ্তাহেই প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কাছে হুয়েইয়ের তরফে একটি সমীক্ষা প্রকাশ করা হবে, যেখানে উল্লেখ করা হবে মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় এই সংস্থার প্রযুক্তিকে জোর করে “অবিশ্বস্ত” প্রমাণ করার চেষ্টা করা হয়েছে ।

আরও পড়ুন : লকডাউন টিউশন সেন্টারকে করে তুলল স্থানীয় থেকে বিশ্বব্যাপী

ব্রিটেনের ৫ জি নেটওয়ার্কে হুয়েইয়ের সীমিত ভূমিকা রাখার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের জেরে সাম্প্রতিক সময়ে লন্ডন এবং ওয়াশিংটন ডিসির মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি করেছে । ব্রিটেনের ৫জি নেটওয়ার্ক সংস্থার জড়িত থাকার সুবাদে কনজারভেটিভ পার্টির বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তির মধ্যেও উদ্বেগ দেখা দিয়েছে ।

রবিবার মেইল ​​মরফত জাতীয় সাইবার সুরক্ষা কেন্দ্রকে পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। GCHQ-র তরফে সামগ্রিক পর্যালোচনার উপরেই ব্রিটেনের ৫জি নেটওয়ার্ক প্রকল্পে হুয়েইয়ের ভবিষ্যত নির্ভর করছে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here