স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প কার্ড পাওয়ার বিস্তারিত তথ্য

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প

Swasthyasathi Prakalpa In Bengali

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ” স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প ” চালু হয়েছিল অনেক আগেই। বহু মানুষ চিকিৎসায় এই প্রকল্পের আর্থিক সুবিধা লাভও করেছেন। তবে এবার বিধানসভা ভোটের আগে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প নিয়ে রাজ্য সরকারের বড় ঘোষণা। এই প্রকল্পের আওতায় এবার রাজ্যের সমস্ত পরিবার। স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের স্মার্ট কার্ড এবার সর্বজনীন।

 

কীভাবে রাজ্যের সকল মানুষ পাবেন এই কার্ড এবং এই কার্ডে কি কি সুবিধা পাবেন জেনে নিন আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে।

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প (Swasthyasathi prakalpa)

প্রত্যেক মানুষের কাছে আধুনিক স্বাস্থ্য পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য ২০১৬ সালে রাজ্যে সরকারের দ্বারা চালু করা হয়েছিল স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প। এই প্রকল্পের অধীনে একটি স্মার্ট কার্ডের ব্যবস্থা করা হয়েছিল যার মাধ্যমে রাজ্যের মানুষ বিনা খরচে চিকিৎসার সুযোগ পেতেন।

স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের স্মার্ট কার্ড

তবে এবার ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের আগেই  রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বড় ঘোষণা এই প্রকল্পকে ঘিরে। নবান্নে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের স্মার্ট কার্ড প্রকাশ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, এখন থেকে বিনা খরচে পাবেন সরকারি স্বাস্থ্য বিমার সুযোগ রাজ্যের সব মানুষ।

স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের স্মার্ট কার্ড (1)

বাংলার প্রত্যেক পরিবারের প্রতি মানুষকে এই স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের আওতায় আনা হবে। প্রত্যেক বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হবে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের কাজ।

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের

পয়লা  ডিসেম্বর থেকে চালু হয়ে যাবে এই পরিষেবা, বৈঠকে জানিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী। যারা এতদিন এই প্রকল্পের আওতায় ছিলেন না, তারাও এখন এই প্রকল্পের নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন এবং আবেদনকারীর হাতে হাতে পৌঁছে যাবে এই স্মার্ট কার্ড।

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সুবিধা

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সুবিধা (Benefits Of Swasthyasathi Prakalpa)

  1. রাজ্যে সরকারের সরকারি স্বাস্থ্য সাথী বীমা প্রকল্পে এবার প্রতিটি পরিবার এই সুযোগ পাবেন। পশ্চিমবঙ্গের যেকোনো নাগরিক অন্য কোনো সরকারি স্বাস্থ্য প্রকল্পে নাম নেই এরকম সকল ব্যক্তির এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন।
  2. গৃহকর্ত্রীর নামে দেওয়া হবে ৫ লক্ষ টাকার বিমা কার্ড এবং সেই কার্ডের আওতায় থাকবেন পরিবারের বাকি সদস্যরা। পরিবার পিছু মিলবে ৫ লক্ষ টাকার ক্যাশলেস চিকিৎসার সুবিধা।
  3. রাজ্যের সমস্ত সরকারি হাসপাতাল, কিছু বেসরকারি হাসপাতাল, ভেলোর ও দিল্লির এইমসেও বিনা খরচে চিকিৎসা করানো যাবে।
  4. দুয়ারে দুয়ারে সরকার নামে যে প্রকল্প ঘোষণা করা হয়েছিল, তারাই দ্রুততার সঙ্গে এই প্রকল্পের কার্ড পৌঁছে দেবে প্রতি ঘরে।

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের জন্য আবেদন

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের জন্য আবেদন (Apply For Swasthyasathi Prakalpa)

বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানান আগামি কয়েকদিনের মধ্যে বিভিন্ন ব্লকে ক্যাম্প বসানো হবে সরকারের তরফ থেকে। যারা এখনও পর্যন্ত এই প্রকল্পে অধীনে নেই, তারা এই ক্যাম্পে গিয়ে আবেদন করতে পারেন। আবার সরকারি তরফ থেকে বলা হয় স্বাস্থ্যকর্মীরা বাড়িতে যাবেন এবং প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করে নিয়ে যাবেন। তার ভিত্তিতেই কার্ড তৈরি হবে। নতুন কার্ড ব্লকে পৌঁছে যাবে। এছাড়াও যারা এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে ইছুক তারা –

  • জেলার ব্লকস্তরে ক্ষেত্রে BDO Office যোগাযোগ করতে পারবেন।
  • শহরের ক্ষেত্রে Municipality অথবা টোল- ফ্রি নম্বর ১৮০০-৩৪৫-৫৩৮৪ (24 hrs)এ যোগাযোগ করতে পারেন।
  • স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের মোবাইল এপ্লিকেশন পেতে Click করুন Click here 

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের বিস্তারিত জানতে Click করুন স্বাস্থ্য সাথী ওয়েবসাইট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here