5 টি কারণে প্রত্যেকের স্বাস্থ্য বীমা করা প্রয়োজন

“স্বাস্থ্যই সম্পদ” আর এটি সুরক্ষিত রাখার অন্যতম সেরা উপায় স্বাস্থ্য বীমা পলিসি। স্বাস্থ্য বীমা মানুষের স্বাস্থ্যের অনিশ্চয়তা ও ঝুঁকি হ্রাস করে। তাহলে কি স্বাস্থ্য বীমা বাধ্যতামূলক? আপনি যদি স্বাস্থ্য বীমা প্রয়োজন কিনা তা নিয়ে বিভ্রান্ত হন তাহলে নীচের ৫টি কারণ আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবে।

স্বাস্থ্য বীমা

স্বাস্থ্য বীমার সুবিধাঃ

স্বাস্থ্য বীমা এমন একটি পলিসি  যা একটি বীমাকৃত ব্যক্তির চিকিৎসা ও সার্জারি সংক্রান্ত খরচ বহন করে। এটি অসুস্থতা বা আঘাতজনিত কারণে বিমাকারীর ব্যয় বহন করে এবং বীমাকৃত ব্যক্তির স্বাস্থ্যের যত্নের ভার প্রদান করে।

স্বাস্থ্য বীমা করা কি প্রয়োজন? 

১. চিকিৎসার ব্যয় বৃদ্ধি (Increased treatment costs) 

চিকিৎসার ব্যয় বৃদ্ধি

যত দিন যাচ্ছে চিকিৎসার খরচ বাড়ছে। সুতরাং, চিকিৎসার জন্য, মানুষ তাদের সঞ্চয়ী শেষ করে, যা তাদের ভবিষ্যতের পরিকল্পনাগুলির উপর ব্যাঘাত ঘটে। প্রকৃতপক্ষে, মেডিকেয়ার মুদ্রাস্ফীতি খাদ্য ও পোশাকের মুদ্রাস্ফীতির থেকে বেশি। খাদ্য ও পোশাকে মুদ্রাস্ফীতি যদি একগুণ বাড়ে, মেডিকেয়ার খরচগুলি তার দিগুণ বৃদ্ধি পাবে। তাই চিকিৎসার খরচের ঝুঁকি হ্রাস করতে অবশ্যই প্রতেকের বীমা করা প্রয়োজন।

২. আয়কর সুবিধা (Tax benefit)

আয়কর সুবিধা

আপনি যদি আপনার আয়কর বোঝা কমাতে চান, তাহলে অবশ্যই স্বাস্থ্য বীমা করান। আয়কর 80D ধারায়, স্বাস্থ্য বীমা প্রিমিয়ামগুলির জন্য দেওয়া অর্থ কর ছাড়েরও যোগ্য। এক বছরে আপনার স্বাস্থ্য বীমা প্রিমিয়ামের জন্য 25,000 টাকা পর্যন্ত ছাড়ের দাবি করতে পারেন। যদি আপনি আপনার প্রবীণ পিতামাতাদের জন্য একটি স্বাস্থ্য পরিকল্পনা কিনে থাকেন তবে এখানে আরও 50,000 পর্যন্ত ছাড়ের দাবি করতে পারেন।

Prev1 of 2

Leave A Reply

Please enter your comment!
Please enter your name here